× প্রচ্ছদ অনলাইনপ্রথম পাতাশেষের পাতাখেলাবিনোদনএক্সক্লুসিভভারতবিশ্বজমিনবাংলারজমিনদেশ বিদেশশিক্ষাঙ্গনসাক্ষাতকাররকমারিপ্রবাসীদের কথামত-মতান্তরফেসবুক ডায়েরিবই থেকে নেয়া তথ্য প্রযুক্তি শরীর ও মন চলতে ফিরতে ষোলো আনা মন ভালো করা খবরকলকাতা কথকতাখোশ আমদেদ মাহে রমজানস্বাধীনতার সুবর্ণ জয়ন্তীসেরা চিঠি
ঢাকা, ২৮ সেপ্টেম্বর ২০২১, মঙ্গলবার , ১৩ আশ্বিন ১৪২৮ বঙ্গাব্দ, ১৯ সফর ১৪৪৩ হিঃ

বড় আশা নিয়ে জহিরের টোকিও যাত্রা

খেলা

স্পোর্টস রিপোর্টার
২৬ জুলাই ২০২১, সোমবার

দেশের দ্রুততম মানবী শিরিন আক্তার এবং দ্রুততম মানব মো. ইসমাইলের বদলে জহির রায়হানকে অলিম্পিকে পাঠানোর সিদ্ধান্ত নেয় বাংলাদেশ অ্যাথলেটিক্স ফেডারেশন। ফেডারেশনের নেয়া এই সিদ্ধান্ত নিয়ে অনেক কথা হয়েছে। দেশের দ্রুততম মানব-মানবীকে বাদ দিয়ে কেন জহির রায়হানকে নির্বাচন করা হয়েছে, তা জানতে চেয়ে ফেডারেশনকে চিঠিও দিয়েছিল বাংলাদেশ অলিম্পিক এসোসিয়েশন। এসব বির্তক পাশ কাটিয়ে গতকাল টোকিওর উদ্দ্যেশে দেশ ছাড়েন জহির রায়হান। জহিরের সঙ্গে জাপান গেছেন কোচ আবদুল্লাহ হেল কাফি ও অ্যাথলেটিক ফেডারেশনের সাধারণ সম্পাদক আবদুর রকিব মন্টু। ১লা আগষ্ট অলিম্পিক স্টেডিয়ামে ৪০০ মিটার স্প্রিন্টের হিটে নামবেন জহির।
অ্যাথলেট জহির রায়হান ও কোচ আবদুল্লাহ হেল কাফি বিকেএসপি থেকে বিমানবন্দরে রওনা হওয়ার সময় তাদের সঙ্গে ছবি তোলেন দেশের দ্রুততম মানবী শিরিন আক্তার। টোকিওতে অ্যাথলেট জহির রায়হানের জন্য শুভ কামনা জানিয়ে শিরিন বলেন, ‘ক্রীড়াবিদ ও কোচ সবার স্বপ্নই থাকে অলিম্পিকে অংশ নেয়ার। জহির রায়হান, আমার কোচ আবদুল্লাহ হেল কাফি এবং আমি-আমাদের তিনজনের শিকড়ই বিকেএসপিতে।
রিওতে আমার স্বপ্ন পূরণ হয়েছে। এবার টোকিওতে স্বপ্ন পূরনের পালা জহিরের।’ তিনি যোগ করেন, ‘জহির যেন নিজের সেরাটা দিতে পারে অলিম্পিকে। এই কোভিডের সময় তারা যেন সবকিছু সুন্দরভাবে শেষ করে দেশে ফিরতে পারে সেই কামনাই থাকলো। এছাড়া আমাদের দেশ থেকে যারাই অলিম্পিকে অংশ নিচ্ছেন সবার প্রতি রইলো শুভ কামনা।’ অ্যাথলেটদের সঙ্গে একই ফ্লাইটে টোকিও রওনা হন সাঁতারের কোচ নিবেদিতা দাসও। সাঁতারু আরিফুল ইসলাম ১৭ই জুলাই টোকিও পৌঁছলেও আরেক সাঁতারু লন্ডন প্রবাসী জুনায়না আহমেদ পৌঁছেছেন গতকাল। দেশ ছাড়ার আগে জহির বলেন, ‘অলিম্পিকে সুযোগ পাওয়াটা ভাগ্যের ব্যাপার। টোকিও অলিম্পিকে খেলতে যেতে পারছি, এটা আমার ক্যারিয়ারের সবচেয়ে বড় অর্জন। চেষ্টা করবো যেন দেশের জন্য ভালো কিছু বয়ে আনতে পারি। আসলে টোকিওতে আমার লক্ষ্য ৪০০ মিটার স্প্রিন্টে টাইমিংয়ে উন্নতি ঘটানো।’ ২০১৭ সালে যুব বিশ্ব অ্যাথলেটিক্স চ্যাম্পিয়নশিপে সেমিফাইনালে উঠেছিলেন জহির। নাইরোবিতে অনুষ্ঠিত ৪০০ মিটার দৌড়ের হিটে রায়হান ৪৮.০০ সেকেন্ড সময় নিয়ে উঠে যান সেমিফাইনালে। অ্যাথলেটিকের যে কোনো পর্যায়ে এটাই বাংলাদেশের কোনো অ্যাথলেটের প্রথম সেমিফাইনাল।

অবশ্যই দিতে হবে *
অবশ্যই দিতে হবে *
অন্যান্য খবর