× প্রচ্ছদ অনলাইনপ্রথম পাতাশেষের পাতাখেলাবিনোদনএক্সক্লুসিভভারতবিশ্বজমিনবাংলারজমিনদেশ বিদেশশিক্ষাঙ্গনসাক্ষাতকাররকমারিপ্রবাসীদের কথামত-মতান্তরফেসবুক ডায়েরিবই থেকে নেয়া তথ্য প্রযুক্তি শরীর ও মন চলতে ফিরতে ষোলো আনা মন ভালো করা খবরকলকাতা কথকতাখোশ আমদেদ মাহে রমজানস্বাধীনতার সুবর্ণ জয়ন্তীসেরা চিঠি
ঢাকা, ২২ সেপ্টেম্বর ২০২১, বুধবার , ৭ আশ্বিন ১৪২৮ বঙ্গাব্দ, ১৩ সফর ১৪৪৩ হিঃ

বিজয়নগরে অপহরণের সঙ্গে জড়িত থাকায় দুই ছাত্রলীগ নেতাকে অব্যাহতি

বাংলারজমিন

বিজয়নগর (ব্রাহ্মণবাড়িয়া) প্রতিনিধি
২৭ জুলাই ২০২১, মঙ্গলবার

ব্রাহ্মণবাড়িয়ার বিজয়নগরে অপহরণকারী চক্রের সঙ্গে জড়িত থাকার অভিযোগে দুই ছাত্রলীগ নেতাকে সংগঠন থেকে অব্যাহতি দেয়া হয়েছে। গত রোববার দুপুরে ব্রাহ্মণবাড়িয়া জেলা ছাত্রলীগের সাধারণ সম্পাদক শাহাদাৎ হোসেন শোভন বিষয়টি নিশ্চিত করেন। শোভন বলেন, বিজয়নগরের দুই ছাত্রলীগ নেতাকে দলীয় সিদ্ধান্ত মোতাবেক তাদের দু’জনকে অব্যাহতি দেয়া হয়েছে। তাদের বিরুদ্ধে আনীত অভিযোগের বিষয়টি তদন্ত করা হবে। অভিযুক্তরা হলেন- বিজয়নগর উপজেলা ছাত্রলীগের সহ-সভাপতি আশিকুর রহমান ও উপজেলার চান্দুরা ইউনিয়ন ছাত্রলীগের সহ-সম্পাদক শাহনেওয়াজ মিলন। জানা যায়, চলতি বছরের ১৫ই জুলাই একই উপজেলার গাজীপুর গ্রামের আব্দুল লতিফের ছেলে শেকুল মিয়ার (৩৮) ১ লাখ ২০ হাজার টাকা মূল্যের একটি ব্যাটারিচালিত অটোরিকশা চুরি করে ফয়সাল। ওই অটোরিকশাটি শাহবাজপুর রাজাবাড়িয়াকান্দির লুদু মিয়ার ছেলে নাজির মিয়া ও নাছির মিয়ার কাছে ৬৫ হাজার টাকায় বিক্রি করেন। কিন্তু ফয়সাল অটোরিকশাটির এফিডেভিটসহ বিক্রির সময় সব কর্মকাণ্ড ভিডিও করে রাখেন।
অতঃপর গত ২১শে জুলাই গভীর রাতে ফয়সালের নেতৃত্বে প্রাইভেটকার ও মোটরসাইকেলযোগে সাত যুবক নাছিরের বাড়ি সরাইল উপজেলার শাহবাজপুর ইউনিয়নের রাজাবাড়িয়াকান্দি গ্রামে যান। এরমধ্যে বিজয়নগর উপজেলা ছাত্রলীগের সহ-সভাপতি আশিকুর রহমান ও উপজেলার চান্দুরা ইউনিয়ন ছাত্রলীগের সহ-সম্পাদক শাহনেওয়াজ মিলনও ছিলেন। তারা নিজেদের ডিবির কর্মকর্তা পরিচয় দিয়ে চুরি হওয়া ওই অটোরিকশাটি দিয়ে দিতে বলেন। নতুবা নাজির-নাছিরসহ বাড়ির লোকজনকে অপহরণ করার হুমকি দেন। পরে কৌশল করে নাছির তার আত্মীয়স্বজনকে মোবাইল ফোনে সব জানায়। গ্রামবাসী খবর পেয়ে তাদের আটক করে পুলিশে দেন। ওইদিন রাতেই অপহরণ মামলায় তাদের গ্রেপ্তার দেখানো হয়।
গ্রেপ্তারকৃতরা হলো- মোস্তফা আহমেদ ফয়সাল, সালমান, শেকুল মিয়া, মো. শাহাব উদ্দিন, বিজয়নগর উপজেলা ছাত্রলীগের সহ-সভাপতি ও চান্দুরা ইউনিয়ন ছাত্রলীগের সভাপতি আশিকুর রহমান এবং উপজেলার চান্দুরা ইউনিয়ন ছাত্রলীগের সহ-সম্পাদক শাহনেওয়াজ মিলন এবং আশকর আলী।
অপহরণ মামলার তদন্তকারী কর্মকর্তা সরাইল থানার এস আই মো. জাকির হোসেন খন্দকার বলেন, ফয়সালের বিরুদ্ধে চুরি, ছিনতাই ও ডাকাতিসহ ২৪টি মামলা রয়েছে।

অবশ্যই দিতে হবে *
অবশ্যই দিতে হবে *
অন্যান্য খবর