× প্রচ্ছদ অনলাইনপ্রথম পাতাশেষের পাতাখেলাবিনোদনএক্সক্লুসিভভারতবিশ্বজমিনবাংলারজমিনদেশ বিদেশশিক্ষাঙ্গনসাক্ষাতকাররকমারিপ্রবাসীদের কথামত-মতান্তরফেসবুক ডায়েরিবই থেকে নেয়া তথ্য প্রযুক্তি শরীর ও মন চলতে ফিরতে ষোলো আনা মন ভালো করা খবরকলকাতা কথকতাখোশ আমদেদ মাহে রমজানস্বাধীনতার সুবর্ণ জয়ন্তীসেরা চিঠি
ঢাকা, ২৮ সেপ্টেম্বর ২০২১, মঙ্গলবার , ১৩ আশ্বিন ১৪২৮ বঙ্গাব্দ, ১৯ সফর ১৪৪৩ হিঃ

করোনায় আক্রান্ত শুটার টুম্পার জন্য সরকারের সহযোগিতা চায় পরিবার

খেলা

স্পোর্টস রিপোর্টার
২৭ জুলাই ২০২১, মঙ্গলবার

করোনাভাইরাসে আক্রান্ত জাতীয় শুটার জাকিয়া সুলতানা টুম্পা রাজধানীর একটি হাসপাতালে আইসিইউতে ভর্তি রয়েছেন। তার ফুসফুসের ৭০ শতাংশ আক্রান্ত বলে চিকিৎসকের বরাত দিয়ে জানিয়েছে তার পরিবার। বর্তমানে তার অবস্থা আশঙ্কাজনক। টুম্পার উন্নত চিকিৎসার জন্য সরকারের সহযোগিতা কামনা করছে তার পরিবার।
অস্ট্রেলিয়ায় গোল্ড কোস্টের ২১তম কমনওয়েলথ গেমসে মেয়েদের ১০ মিটার এয়ার রাইফেলে চতুর্থ হন টুম্পা। দলগত ব্রোঞ্জ জেতেন ২০১৬ সালের সাউথ এশিয়ান গেমসে। এছাড়া একাধিক জাতীয় চ্যাম্পিয়নশিপেও একাধিক পদক রয়েছে লালমনিরহাটের এই শুটারের। গতকাল টুম্পার ছোটভাই জাহাঙ্গীর আলম ফুয়াদ বলেন, ‘আগের থেকে আপুর অবস্থা এখন কিছুটা ভালো। তবে আগে আমরা যেটা জানতাম, ওর লাঙের ৪০ শতাংশ আক্রান্ত।
এখন ডাক্তাররা বলছেন সেটা ৭০ শতাংশ।’ এ অবস্থায় টুম্পার উন্নত চিকিৎসার জন্য পরিবারের পক্ষ থেকে সরকারের হস্তক্ষেপ কামনা করেন তিনি। ফেডারেশন থেকে কোনো যোগাযোগ করা হয়েছে কি-না জানতে চাইলে ফুয়াদ বলেন, ‘ফেডারেশন থেকে এখন পর্যন্ত কেউ কোনো যোগাযোগ করেননি। তবে ওর ক্লাব- ঢাকা রাইফেল ক্লাব থেকে নিয়মিত যোগাযোগ রাখছে।’ টুম্পার সঙ্গে তার বাবা তসলিম উদ্দিনও করোনা আক্রান্ত হন। তিনিও একই হাসপাতালের কেবিনে ভর্তি। তার অবস্থা এখন ভালোর দিকে বলে জানান তার ছেলে। দ্বিতীয় পরীক্ষায় কোভিড নেগেটিভ ফল এসেছে তার। ঈদের আগে টুম্পা ও টুম্পার বাবার শরীরে করোনাভাইরাস ধরা পড়ে। তাদের দু’জনের শরীরেই ভারতীয় ধরন বা ডেল্টা ভ্যারিয়েন্ট পাওয়া যায়। শুরুতে লালমনিরহাটে গ্রামের বাড়ি আইসোলেশনে ছিলেন টুম্পা। তার বাবাকে অবশ্য স্থানীয় হাসপাতালে ভর্তি করা হয়েছিল। অবস্থার অবনতি হলে দু’জনকেই ঈদের দিন ঢাকায় আনা হয়। টুম্পা শুক্রবার থেকে আইসিইউতে আছেন।

অবশ্যই দিতে হবে *
অবশ্যই দিতে হবে *
অন্যান্য খবর