× প্রচ্ছদ অনলাইনপ্রথম পাতাশেষের পাতাখেলাবিনোদনএক্সক্লুসিভভারতবিশ্বজমিনবাংলারজমিনদেশ বিদেশশিক্ষাঙ্গনসাক্ষাতকাররকমারিপ্রবাসীদের কথামত-মতান্তরফেসবুক ডায়েরিবই থেকে নেয়া তথ্য প্রযুক্তি শরীর ও মন চলতে ফিরতে ষোলো আনা মন ভালো করা খবরকলকাতা কথকতাখোশ আমদেদ মাহে রমজানস্বাধীনতার সুবর্ণ জয়ন্তীসেরা চিঠি
ঢাকা, ২০ সেপ্টেম্বর ২০২১, সোমবার , ৪ আশ্বিন ১৪২৮ বঙ্গাব্দ, ১১ সফর ১৪৪৩ হিঃ

কমলগঞ্জে চা বাগানে দু’পক্ষের সংঘর্ষ আহত ৬

বাংলারজমিন

কমলগঞ্জ (মৌলভীবাজার) প্রতিনিধি
২৮ জুলাই ২০২১, বুধবার

আধিপত্য বিস্তারের জের ধরে কমলগঞ্জের পাত্রখোলা চা বাগানে দু’পক্ষের সংঘর্ষে নারীসহ ৬ জন আহত হয়েছেন। এ ঘটনায় বাগান পঞ্চায়েত কমিটির প্রাক্তন সাধারণ সম্পাদক মোবারক হোসেনের বসতবাড়িতে হামলা ও ভাঙচুর করা হয়েছে। সংঘর্ষের ঘটনায় গুরুতর আহত ২ জনকে মৌলভীবাজার সদর হাসপাতাল ও সিলেট ওসমানী মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে ভর্তি করা হয়েছে। গত সোমবার রাত ১২ টায় সংঘর্ষের এ ঘটনা ঘটে। পরে পুলিশ পরিস্থিতি নিয়ন্ত্রণে আনে। এদিকে হামলা ও সংঘর্ষের ঘটনায় গতকাল চা বাগানে কাজ বন্ধ রাখে শ্রমিকরা। জানা যায়, ন্যাশনাল টি কোম্পানি (এনটিসি) এর পাত্রখোলা চা বাগান পঞ্চায়েত কমিটির প্রাক্তন সাধারণ সম্পাদক মোবারক হোসেন ও বর্তমান কমিটির সভাপতি দেবাশিষ চক্রবর্তী শিপনের মধ্যে আধিপত্য বিস্তারকে কেন্দ্র করে দীর্ঘদিন ধরে বিরোধ চলে আসছে। এ বিরোধের জের ধরে গত সোমবার রাতে মোবারক হোসেনের বাসায় প্রতিপক্ষরা হামলা চালায়।
হামলায় মোবারক হোসেন, তার স্ত্রী আছমা বেগম, মেয়ে লুৎফুন্নাহার ও জীবন উরাং আহত হন। হামলার পর বাগানে উত্তেজনা ছড়িয়ে পড়ে। উত্তেজিত শ্রমিকরা প্রতিপক্ষের লোক কিষান অলমিক ও মধু কর্মকারের ওপর হামলা চালায়। হামলায় গুরুতর আহত মধু কর্মকারকে সিলেট এমএজি ওসমানী মেডিকেল হাসপাতাল ও কিষান অলমিককে মৌলভীবাজার সদর হাসপাতালে ভর্তি করা হয়। অন্যরা কমলগঞ্জ উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্স থেকে চিকিৎসা গ্রহণ করেন। এদিকে, এ ঘটনার জের ধরে গতকাল শ্রমিকরা সকাল ৬টা থেকে সাড়ে ১১টা পর্যন্ত চা বাগানে কাজ বন্ধ রেখে কারখানার প্রধান ফটকের সামনে বিক্ষোভ করেন। এতে উত্তেজনা দেখা দিলে কমলগঞ্জ থানার ওসি (তদন্ত) সোহেল রানার নেতৃত্বে পুলিশের একটি দল ঘটনাস্থলে পৌঁছে পরিস্থিতি নিয়ন্ত্রণ করেন।

পাত্রখোলা চা বাগান ব্যবস্থাপক মো. শামসুল ইসলাম জানান, তাদের দীর্ঘদিনের সমস্যা। কিছুদিন আগেও তাদের মধ্যে এ রকম ঘটনা ঘটেছিল। গতকাল বাগানে কোনো কাজ হয়নি। বর্তমানে পরিস্থিতি শান্ত রয়েছে।

অবশ্যই দিতে হবে *
অবশ্যই দিতে হবে *
অন্যান্য খবর