× প্রচ্ছদ অনলাইনপ্রথম পাতাশেষের পাতাখেলাবিনোদনএক্সক্লুসিভভারতবিশ্বজমিনবাংলারজমিনদেশ বিদেশশিক্ষাঙ্গনসাক্ষাতকাররকমারিপ্রবাসীদের কথামত-মতান্তরফেসবুক ডায়েরিবই থেকে নেয়া তথ্য প্রযুক্তি শরীর ও মন চলতে ফিরতে ষোলো আনা মন ভালো করা খবরকলকাতা কথকতাখোশ আমদেদ মাহে রমজানস্বাধীনতার সুবর্ণ জয়ন্তীসেরা চিঠি
ঢাকা, ২২ সেপ্টেম্বর ২০২১, বুধবার , ৭ আশ্বিন ১৪২৮ বঙ্গাব্দ, ১৩ সফর ১৪৪৩ হিঃ

আগামীর স্বপ্ন দেখালেন রোমান

খেলা

স্পোর্টস রিপোর্টার
২৮ জুলাই ২০২১, বুধবার

সেই ১৯৮৪ লস অ্যাঞ্জেলেস অলিম্পিক গেমসে প্রথম অংশ নিয়েছিল বাংলাদেশ। এরপর ৯টি অলিম্পিক গেমসেই অংশ নিয়েছেন বাংলাদেশের অ্যাথলেটরা। কিন্তু এর আগে কোনো অ্যাথলেট বাছাইপর্ব পার হতে পারেননি। হিটেই বাদ পড়াটা ছিল এদেশের অ্যাথলেটদের নিয়মিত ঘটনা। এ কারণেই বিশ্বের অন্যতম জনবহুল দেশ হিসেবে অলিম্পিকে পদক জিততে না পারার অনাকাঙ্ক্ষিত তালিকাও উঠে যায় বাংলাদেশের নাম। সেই দেশের রোমান সানা আশার প্রদীপ হয়ে গিয়েছিলেন টোকিও অলিম্পিকে। রোমানই প্রথমবারের মতো অলিম্পিকে গিয়েছিলেন নির্দিষ্ট লক্ষ্য নিয়ে, পুরোপুরি নিজের যোগ্যতায়। তিনিই প্রথম বাংলাদেশি ক্রীড়াবিদ হিসেবে অলিম্পিকের ‘বাছাইপর্বে’র বাধা ডিঙিয়ে খেলেছেন চূড়ান্ত পর্বে।
প্রথমে আরচারির মিশ্র ইভেন্টে দিয়া সিদ্দিকীকে হেরেছেন সোনাজয়ী দক্ষিণ কোরিয়ার কাছে। কিন্তু নজরকাড়া পারফরম্যান্সে সবার মন জয় করেছেন। সেই ধারাবাহিকতায় রিকার্ভের ব্যক্তিগত একক ইভেন্টে রোমান দেখিয়েছেন ভালোভাবেই। রোমান যদি শেষ ষোলোতে উঠতে পারতেন, তা হতো অবশ্যই বাংলাদেশের জন্য আরও বড় ইতিহাস। সেটা হয়তো রোমান পারেননি। শেষ ষোলেতে উঠার লড়াইয়ে তিনি হেরেছেন কানাডার ক্রিসপিন ডুয়েনাসের কাছে। রোমানের হৃদয় ভেঙে ৬-৪ সেট পয়েন্টে শেষ পর্যন্ত ম্যাচ জিতে নিয়েছেন ডুয়েনাস। তবে যতটুকু পেরেছেন তাতেই তাকে নিয়ে আগামীর স্বপ্ন দেখছেন
অনেকেই। অলিম্পিকের মতো আসরে ছেলেদের রিকার্ভ-এককের দ্বিতীয় রাউন্ডে উঠে পুরো বাংলাদেশকে স্বপ্নও দেখিয়েছিলেন এই আরচার। যদিও সেই স্বপ্নযাত্রার স্থায়ীত্ব হয়েছে মাত্র ৫২ মিনিট। সকালে নকআউট পর্বের প্রথম রাউন্ডে জিতেছিলেন ব্রিটেনের টম হলের বিপক্ষে। কিন্তু কিছুক্ষণের মধ্যেই দ্বিতীয় রাউন্ডে হেরে গেলেন কানাডার ক্রিসপিন ডুয়েনাসের কাছে। হারলেও লড়াইটা হয়েছে হাড্ডাহাড্ডি। শেষ শটে গিয়ে নিষ্পত্তি হয়েছে ম্যাচের ফল। আগের ৪ সেটের মধ্যে দুটি সেট জেতেন রোমান ও ডুয়েনাস। শেষ সেটে প্রথম শটে রোমান মারেন ৯, ডুয়েনাস মারেন ৭। পরের তিরে রোমান ৮ মারার পর ডুয়েনাস মেরেছেন ১০। দুজনের পয়েন্ট তখন সমান ১৭। শেষ শটে ডুয়েনাস ৯ মারলে জিততে রোমানকে ১০ মারতেই হতো। কিন্তু দুর্ভাগ্য রোমানের, শেষ শটে মারলেন ৮। অন্তত ৯ পয়েন্ট মারলেও খেলাটা টাইব্রেকারে গড়াতো। কিন্তু সেই সুযোগটাও তৈরি করতে পারলেন না রোমান! এবার হয়তো পারেননি, তবে ভবিষ্যতে পারার একটা রাস্তা তৈরী করেছেন। খেলা শেষে বিশ্ব আরচারিকে দেওয়া এক সাক্ষাৎকারে তেমন আশার কথাই শোনালেন রোমান। তিনি বলেন, ্তুম্যাচটা জেতার ভালো সুযোগ ছিল আমার সামনে। আফসোস হচ্ছে, হতাশাও আছে, মাত্র দশটা পয়েন্টই তো লাগতো!্থ তবে এবারের মতো যাত্রাটা শেষ হয়ে গেলেও রোমান হতোদ্যম হচ্ছেন না মোটেও। চোখ রাখছেন সুদূরে। বাংলাদেশকে স্বপ্ন দেখাচ্ছেন সোনা জয়ের। কবে নাগাদ জিততে চান জানালেন সেটাও। বললেন, ্তু২০২৮ অলিম্পিকে সোনা জিততে চাই, সেটাই আমার লক্ষ্য। ২০২৪ অলিম্পিকও খেলব আমি। সেজন্যে সামর্থ্যের সবটুকু দিয়ে চেষ্টা থাকবে আমার।

অবশ্যই দিতে হবে *
অবশ্যই দিতে হবে *
অন্যান্য খবর