× প্রচ্ছদ অনলাইনপ্রথম পাতাশেষের পাতাখেলাবিনোদনএক্সক্লুসিভভারতবিশ্বজমিনবাংলারজমিনদেশ বিদেশশিক্ষাঙ্গনসাক্ষাতকাররকমারিপ্রবাসীদের কথামত-মতান্তরফেসবুক ডায়েরিবই থেকে নেয়া তথ্য প্রযুক্তি শরীর ও মন চলতে ফিরতে ষোলো আনা মন ভালো করা খবরকলকাতা কথকতাখোশ আমদেদ মাহে রমজানস্বাধীনতার সুবর্ণ জয়ন্তীসেরা চিঠি
ঢাকা, ২০ সেপ্টেম্বর ২০২১, সোমবার , ৪ আশ্বিন ১৪২৮ বঙ্গাব্দ, ১১ সফর ১৪৪৩ হিঃ

দ্বিতীয়বার কোভিড আক্রান্তের ক্ষেত্রে উপসর্গ হালকা হয়: গবেষণা

বিশ্বজমিন

মানবজমিন ডেস্ক
(১ মাস আগে) জুলাই ২৮, ২০২১, বুধবার, ৮:২০ অপরাহ্ন

কোভিড-১৯ ক্রমাগত হালকা রোগে পরিণত হচ্ছে বলে ধারণা করছেন বিজ্ঞানীরা। গবেষণায় জানা গেছে, দ্বিতীয় বার কোভিড আক্রান্ত হলে তা প্রথমবারের তুলনায় অনেক কম প্রভাব ফেলতে পারে। একইসঙ্গে সেসময় উপসর্গগুলোও প্রথমবারের মতো ভয়াবহ রূপ ধারণ করেনা। বৃটেনের প্রায় ২০ হাজার মানুষের মধ্যে গবেষণা চালিয়ে এ তথ্য প্রদান করেছেন বিজ্ঞানীরা। তাদের দাবি, এই তথ্য প্রমাণ করে যে কোভিড দিনদিন একটি সাধারণ রোগে পরিণত হচ্ছে। এ খবর দিয়েছে ডেইলি মেইল।
খবরে বলা হয়েছে, দ্বিতীয় বার কোভিড আক্রান্ত হওয়া অস্বাভাবিক না হলেও গুরুতর অসুস্থ হওয়া বেশ বিরল। গত এপ্রিল মাসে বৃটেনের অফিস ফর ন্যাশনাল স্টাটিস্টিকস বা ওএনএস একটি পর্যবেক্ষণ চালু করে। পর্যবেক্ষনে থাকা ১৯ হাজার ৪৭০ জনের মধ্যে ১৯৫ জন দ্বিতীয় দফায় কোভিড আক্রান্ত হন।
অর্থাৎ মাত্র ১ শতাংশ মানুষ দুইবার কোভিড আক্রান্ত হয়েছেন বৃটেনে।
এই রিপোর্টে সেসব মানুষদেরই স্থান দেয়া হয়েছে যারা অন্তত ৯০ দিনের ব্যবধানে দুইবার কোভিড আক্রান্ত হয়েছেন। এতে দেখা গেছে দ্বিতীয় দফায় আক্রান্ত হওয়াদের মধ্যে মাত্র এক চতুর্থাংশই উচ্চতর মাত্রায় সংক্রমিত হয়েছেন। অথচ প্রথম দফায় এই মাত্রা দেখা যায় দুই তৃতীয়াংশের মধ্যেই। বিজ্ঞানীরা বলছেন, এটিই প্রমাণ করে যে প্রাকৃতিকভাবে এবং ভ্যাকসিনের মাধ্যমে মানুষ কোভিডের বিরুদ্ধে প্রতিরোধ গড়ে তুলতে পারছে।

অবশ্যই দিতে হবে *
অবশ্যই দিতে হবে *
অন্যান্য খবর