× প্রচ্ছদ অনলাইনপ্রথম পাতাশেষের পাতাখেলাবিনোদনএক্সক্লুসিভভারতবিশ্বজমিনবাংলারজমিনদেশ বিদেশশিক্ষাঙ্গনসাক্ষাতকাররকমারিপ্রবাসীদের কথামত-মতান্তরফেসবুক ডায়েরিবই থেকে নেয়া তথ্য প্রযুক্তি শরীর ও মন চলতে ফিরতে ষোলো আনা মন ভালো করা খবরকলকাতা কথকতাখোশ আমদেদ মাহে রমজানস্বাধীনতার সুবর্ণ জয়ন্তীসেরা চিঠি
ঢাকা, ২০ সেপ্টেম্বর ২০২১, সোমবার , ৪ আশ্বিন ১৪২৮ বঙ্গাব্দ, ১১ সফর ১৪৪৩ হিঃ
আলাপন

মনেই হয়নি ছয় বছর পর অভিনয়ে ফিরেছি -শ্রাবণ্য তৌহিদা

বিনোদন

ফয়সাল রাব্বিকীন
২৯ জুলাই ২০২১, বৃহস্পতিবার

চলতি প্রজন্মের উপস্থাপিকাদের মধ্যে যিনি নিজের কাজ দিয়ে আলো ছড়াচ্ছেন তিনি শ্রাবণ্য তৌহিদা। অল্প সময়েই নিজের সাবলীল ও প্রাণবন্ত উপস্থাপনার মাধ্যমে দর্শকদের খুব কাছাকাছি পৌছে যান তিনি। বিশেষ করে স্পোর্টস বিষয়ক অনুষ্ঠান উপস্থাপনায় মুগ্ধতা ছড়াচ্ছেন তিনি। এদিকে উপস্থাপনার বাইরে মাঝেমধ্যেই অভিনয়েও দেখা মেলে তার। যদিও মধ্যে অনেকটা সময় অভিনয় থেকে দূরে ছিলেন। গেলো ঈদের জন্য প্রায় অর্ধযুগ পর নাটকে অভিনয় করেছেন তিনি। তাও আবার তিন তিনটি নাটকে। সব মিলিয়ে গেলো গেলো ঈদ কিভাবে কেটেছে? শ্রাবণ্য বলেন, পরিবারের সঙ্গে বেশ ভালো কেটেছে।
তাছাড়া আমার তিনটি নাটক এই ঈদে প্রচার হয়েছে। এ জন্যও ঈদটি বিশেষ ছিলো। নাটকগুলো থেকে কেমন সাড়া মিলেছে? গ্ল্যামারাস এই উপস্থাপক-অভিনেত্রী বলেন, ‘বিয়ের কয়েকদিন আগে’, ‘ভাঙনের পর’ ও ‘প্রিয় ডাকবাক্স’ নামক তিনটি নাটক থেকেই ভালো সাড়া পাচ্ছি। যারাই দেখেছেন প্রশংসা করেছেন। মনেই হয়নি ছয় বছর পর অভিনয়ে ফিরেছি। সবাই এত অ্যাপ্রিসিয়েট করেছে, উৎসাহ আরো বেড়ে গেছে। তাহলে এখন থেকে কি নিয়মিত পাওয়া যাবে অভিনয়ে? শ্রাবণ্য বলেন, নিয়মিত অভিনয় করা আমার পক্ষে সম্ভব নয়। কারণ উপস্থাপনা নিয়ে ব্যস্ততা চলতে থাকে। তবে উৎসবগুলোতে নিয়মিত কাজের চেষ্টা করবো। সিনেমায় কাজের ইচ্ছে আছে? হেসে শ্রাবণ্য বলেন, গতানুগতিক ছবিতে কাজের ইচ্ছে নেই। তবে আলাদা ধরনের ছবি এখন হচ্ছে। সেরকম ছবি হলে অবশ্যই করবো। আপনি একজন চিকিৎসক, সেই পেশা সামলে শোবিজে কাজ করাটা কঠিন হয়ে পড়ে না? শ্রাবণ্য বলেন, অনেক কঠিন। ডাক্তারি, পরিবার সামলে শোবিজে কাজ করাটা চ্যালেঞ্জেরও। তবে চেষ্টা করি সমন্বয় করে কাজ করার। অভিযোগ আছে যে কেউ এখন হুট করে উপস্থাপিকা বনে যাচ্ছেন। টিভি পর্দায় অনেক সময় বিব্রতকর অবস্থায়ও পড়তে হয়। বিষয়টিকে কিভাবে দেখেন? শ্রাবণ্য বলেন, এমন অভিযোগ আমিও শুনি। অনেক শিল্পী কিন্তু জেনে নেন যে উপস্থাপক কে। উপস্থাপনা যিনি করবেন তার যদি অতিথি সম্পর্কে জ্ঞান না থাকে তবে অবশ্যই বিব্রত হতে হবে। আমি নিজে সব সময় কোনো অনুষ্ঠান করতে গেলে আগে রিহার্সেল করি নিজে। সেটা না করতে পারলে মনে হয় নিজের সঙ্গে ঠিক করছি না। একেবারে নতুন যারা উপস্থাপনায় আসতে চায় তাদের করণীয় কি? এই গ্ল্যামার গার্ল বলেন, অবশ্যই কাজকে ভালোবাসতে হবে। উচ্চারণে দক্ষতা থাকতে হবে। ভালো বাংলা জানতে হবে। সবচেয়ে এসবের কোর্স করে জেনে বুঝে আসেন। উপস্থাপনা নিয়ে পরিকল্পনা কি? শ্রাবণ্য বলেন, এখন বিভিন্ন চ্যানেলের কাজ করছি। সামনে ইউটিউব চ্যানেল খুলার ইচ্ছে আছে। সেই পরিকল্পনা করছি। উপস্থাপনা দিয়ে এতটা জনপ্রিয়তা পাবেন ভেবেছিলেন? শ্রাবণ্য বলেন, এটা আসলে সবার ভাগ্যে জুটে না। সেদিক থেকে আমি ভাগ্যবান। আমি মুনমুন আপুকে দেখেই উপস্থাপনায় নিয়মিত হবার সিদ্ধান্ত নিয়েছিলাম। সেই থেকে পথচলা শুরু। মানুষের এত ভালোবাসা পেয়েছি তা দিয়েই এক জীবন পার করে দেয়া সম্ভব।

অবশ্যই দিতে হবে *
অবশ্যই দিতে হবে *
অন্যান্য খবর