× প্রচ্ছদ অনলাইনপ্রথম পাতাশেষের পাতাখেলাবিনোদনএক্সক্লুসিভভারতবিশ্বজমিনবাংলারজমিনদেশ বিদেশশিক্ষাঙ্গনসাক্ষাতকাররকমারিপ্রবাসীদের কথামত-মতান্তরফেসবুক ডায়েরিবই থেকে নেয়া তথ্য প্রযুক্তি শরীর ও মন চলতে ফিরতে ষোলো আনা মন ভালো করা খবরকলকাতা কথকতাখোশ আমদেদ মাহে রমজানস্বাধীনতার সুবর্ণ জয়ন্তীসেরা চিঠি
ঢাকা, ২২ সেপ্টেম্বর ২০২১, বুধবার , ৭ আশ্বিন ১৪২৮ বঙ্গাব্দ, ১৩ সফর ১৪৪৩ হিঃ

হেপাটাইটিস নিয়ে সচেতনতা বৃদ্ধির লক্ষ্যে এভারকেয়ারের আলোচনা

দেশ বিদেশ

স্টাফ রিপোর্টার
৩০ জুলাই ২০২১, শুক্রবার

বিশ্ব হেপাটাইটিস দিবস-২০২১ উপলক্ষে সম্প্রতি এভারকেয়ার হসপিটাল একটি অনলাইন প্যানেল আলোচনার আয়োজন করে। “আর অপেক্ষা নয়, হেপাটাইটিস প্রতিরোধের এখনই সময়” -এই প্রতিপাদ্যকে সামনে রেখে মানুষের মধ্যে হেপাটাইটিস নিয়ে সচেতনতা সৃষ্টি ও বৃদ্ধির জন্য এই ভার্চ্যুয়াল আলোচনার আয়োজন করা হয়। এতে প্রধান অতিথি হিসেবে ঢাকা উত্তর সিটি করপোরেশনের মেয়র মো. আতিকুল ইসলাম এবং বিশেষ অতিথি হিসেবে চট্টগ্রাম সিটি করপোরেশনের মেয়র রেজাউল করিম চৌধুরী অনলাইন প্যানেল আলোচনায় অংশগ্রহণ করেন। প্রধান অতিথির বক্তব্যে মেয়র মো. আতিকুল ইসলাম বলেন, মাননীয় প্রধানমন্ত্রীর নেতৃত্বে দেশের স্বাস্থ্যখাত দিন দিন উন্নতির পথে এগিয়ে যাচ্ছে। কিন্তু জনগণের মধ্যে সচেতনতার হার বৃদ্ধি না করা গেলে হেপাটাইটিসের মতো রোগ নির্মূল করা কঠিন হয়ে পড়বে। বাংলাদেশে প্রায় ১ কোটি মানুষ হেপাটাইটিসে আক্রান্ত, প্রায় ২০ হাজার রোগী এই রোগে মৃত্যুবরণ করছে এবং আক্রান্ত ১০ জন রোগীর ৯ জনই জানেন না যে তারা এই রোগে আক্রান্ত। এই পরিস্থিতিতে, নগর পিতা নয়, নগর সেবক হিসেবে আমি বলতে চাই “হেপাটাইটিস নিয়ে অপেক্ষা নয়”। তাই জনমনে রোগের কারণ, করণীয় এবং প্রতিকার সম্পর্কে সচেতনতা বৃদ্ধির এখনই সময়।
তিনি আরও বলেন, রাস্তার বিলবোর্ড থেকে শুরু করে ডিজিটাল প্ল্যাটফরম ব্যবহার করে আমরা জনগণের কাছে পৌঁছাবো, তাদের সচেতন করে তুলতে চেষ্টা করবো এবং আমি আশা করবো সর্বস্তরের মানুষ আমার পাশে থাকবেন এবং একযোগে কাজ করবেন। বিশেষ অতিথির বক্তব্যে চট্টগ্রাম সিটি মেয়র রেজাউল করিম চৌধুরী বলেন, হেপাটাইটিস নিয়ে যে জনগণের মধ্যে সচেতনতার অভাব রয়েছে তা স্পষ্ট। আমাদের দেশে এখনো এমন মানুষ আছে যারা শিক্ষার আলো থেকে বঞ্চিত। তাই জনগণের মধ্যে সচেতনতা বৃদ্ধির বিষয়ে বাড়তি গুরুত্ব দিতে হবে। আমরা যারা গুরুত্বপূর্ণ দায়িত্বে আছি, আমাদের কাজ হবে যার যার অবস্থান থেকে গণসচেতনতা সৃষ্টি করে হেপাটাইটিস নির্মূলে কার্যকর পদক্ষেপ গ্রহণ করা। অন্যথায় এই আলোচনা শুধু আলোচনাই থেকে যাবে। আমি আশা করবো দেশের সকলে সম্মিলিতভাবে এই ভাইরাস দমনে কাজ করবে।
এছাড়াও ঢাকা উত্তর সিটি করপোরেশনের প্রধান স্বাস্থ্য কর্মকর্তা ব্রি.জে. মো. জোবায়দুর রহমান; এভারকেয়ার হসপিটাল ঢাকার গ্যাস্ট্রোঅ্যান্টারোলজি বিভাগের সিনিয়র কনসাল্টেন্ট এবং কো-অর্ডিনেটর ডা. মোহাম্মদ লুতফুল লতিফ চৌধুরী; শেখ রাসেল গ্যাস্ট্রোলিভার ইনস্টিটিউট এবং হাসপাতালের ডিরেক্টর অধ্যাপক ফারুক আহমেদ; এভারকেয়ার হাসপাতাল ঢাকা’র গ্যাস্ট্রোঅ্যান্টারোলজি বিভাগের কনসাল্টেন্ট ডা. এস এম আলী হায়দার এবং সিএমসিএইচ-এর গ্যাস্ট্রোঅ্যান্টারোলজি বিভাগের প্রধান অধ্যাপক ডা. এরশাদ উদ্দিন আহমেদ ইভেন্টটিতে অংশগ্রহণ করেন।

অবশ্যই দিতে হবে *
অবশ্যই দিতে হবে *
অন্যান্য খবর