× প্রচ্ছদ অনলাইনপ্রথম পাতাশেষের পাতাখেলাবিনোদনএক্সক্লুসিভভারতবিশ্বজমিনবাংলারজমিনদেশ বিদেশশিক্ষাঙ্গনসাক্ষাতকাররকমারিপ্রবাসীদের কথামত-মতান্তরফেসবুক ডায়েরিবই থেকে নেয়া তথ্য প্রযুক্তি শরীর ও মন চলতে ফিরতে ষোলো আনা মন ভালো করা খবরকলকাতা কথকতাখোশ আমদেদ মাহে রমজানস্বাধীনতার সুবর্ণ জয়ন্তীসেরা চিঠি
ঢাকা, ২০ সেপ্টেম্বর ২০২১, সোমবার , ৫ আশ্বিন ১৪২৮ বঙ্গাব্দ, ১১ সফর ১৪৪৩ হিঃ

করোনা টিকা নিয়ে যে ৪ প্রশ্নের উত্তর জানা জরুরি

অনলাইন

রাহমান মনি, জাপান থেকে
(১ মাস আগে) জুলাই ৩০, ২০২১, শুক্রবার, ১১:২৭ পূর্বাহ্ন

জাপান প্রবাসী গবেষক ড. তপন পালকে সবাই চেনেন। যদিও অনেকেই এই জাপানে তাকে সামাজিক-সাংস্কৃতিক ব্যক্তিত্ব হিসেবে চেনেন, আসলে তিনি একজন গবেষক, এক বিজ্ঞানী। বাংলাদেশ ও জাপানের করোনা ভাইরাসের সংক্রমণ নিয়ে তিনি গাণিতিক ও কৃত্রিম বুদ্ধিমত্তার মডেল প্রয়োগ করে বিভিন্ন সময়ে বিভিন্ন পূর্বাভাস দিয়েছেন যা প্রকৃত অবস্থার সাথে অনেকটাই মিলে গেছে কিংবা কাছাকাছি গেছে। এবার ড. তপন পাল করোনা ভাইরাসের টিকা নিয়ে বিশ্বের বিভিন্ন দেশের তথ্য-উপাত্ত বিশ্লেষণ করে গুরুত্বপূর্ণ তথ্য দিয়েছেন। প্রশ্নোত্তর হিসেবে সেই তথ্য এখানে তুলে ধরা হলো। তিনি তথ্যসূত্রসহ নিম্নলিখিত চারটি প্রশ্নের উত্তর দিয়েছেন।

১. কেন করোনা ভাইরাসের টিকা নিবেন?
২. টিকা নিলে কি করোনা হবে না?
৩. ডেল্টা ধরণের বিরুদ্ধে টিকা কতটা কার্যকরী?
৪. টিকা নিলে কি ঝুঁকি আছে?

১. কেন করোনা ভাইরাসের টিকা নিবেন?
আজ হোক, কাল হোক আপনাকে করোনার টিকা নিতে হবে। হয়তোবা প্রতি বছর ইনফ্লুয়েঞ্জার টিকার মত এটা নিতে হতে পারে। টিকা না নিলে গুরুতর অসুস্থ হওয়ার সম্ভাবনা আছে।
এমনকি জীবন বিপন্ন হতে পারে। টিকা না নিলে যদি করোনা ভাইরাসে কেউ আক্রান্ত হয়, তাহলে মৃত্যুর সম্ভাবনা জাপানে ১.৭৫% এবং বাংলাদেশে ১.৬৪%।
আমার পরিবারের ভাইবোন, ভগ্নিপতি, শ্বশুর-শাশুড়িসহ আত্মীয়-স্বজন, পরিচিত জনদের অনেকেই করোনা ভাইরাসের টিকা নিয়েছেন।

২. টিকা নিলে কি করোনা হবে না?
টিকা নিলে যে করোনা হবে না তার কোন গ্যারান্টি নেই। কিন্তু করোনা ভাইরাসে সংক্রমিত হলেও সাধারণতঃ উপসর্গ মৃদু হবে। গুরুতর অসুস্থ হওয়ার সম্ভাবনা কম হবে। আমার ফ্রেন্ডলিস্টের কেউ কেউ করোনা ভাইরাসের টিকার দুই ডোজ নেওয়ার পরেও করোনাতে সংক্রমিত হয়েছেন।
এদিকে সিঙ্গাপুরের তথ্য অনুযায়ী, সিঙ্গাপুরে গত এক মাসে করোনা ভাইরাসে সংক্রমিত ১,০৯৬ জনের মধ্যে ৪৪% ব্যক্তিই করোনার টিকার দুই ডোজ নিয়েছিল, ৩০% এক ডোজ নিয়েছিল আর ২৫% টিকা নেয়নি। এই ১,০৯৬ জনের মধ্যে আট জনের শারীরিক অবস্থার মারাত্মক অবনতি ঘটেছিল কিন্তু এরা কেউই করোনা টিকার দুই ডোজ নেয়নি।

৩. ডেল্টা ধরণের বিরুদ্ধে টিকা কতটা কার্যকরী?
করোনা ভাইরাসের ডেল্টা ধরণ মারাত্মক সংক্রামক। এই ডেল্টা ধরণে আক্রান্ত রোগীর গুরুতর অসুস্থ হয়ে হাসপাতালে ভর্তির প্রয়োজন হতে পারে। আবার অল্প বয়সীরাও প্রচুর আক্রান্ত হচ্ছে। টিকার উপর নির্ভর করে করোনা ভাইরাসের ডেল্টা ধরণের বিরুদ্ধে কার্যকারিতা পরিবর্তিত হবে। সিঙ্গাপুরের তথ্য অনুযায়ী করোনা ভাইরাসের টিকার দুই ডোজ ডেল্টা ধরণের বিরুদ্ধে ৬৯% কার্যকরী। ইসরায়েলের তথ্য অনুযায়ী ফাইজারের টিকা ডেল্টা ধরণের সংক্রমণ ঠেকাতে ৩৯% কার্যকরী হলেও করোনা ভাইরাসে সংক্রমিত রোগীর গুরুতর অসুস্থতা ঠেকাতে ৮৮-৯১% কার্যকরী। অ্যাস্ট্রাজেনেকার দুই ডোজ ডেল্টা ধরণের বিরুদ্ধে ৬০% কার্যকরী (খুব সম্ভবত গুরুতর অসুস্থতা ঠেকাতে)।

৪. টিকা নিলে কি ঝুঁকি আছে?
জাপানে আমার পরিচিত যারা মডার্না ও ফাইজারের টিকা নিয়েছেন তাদের কারো কারোর হাতে ব্যথা ও হালকা জ্বর হয়েছে। কিন্তু কারো এ পর্যন্ত Anaphylaxis নামক এলার্জির উপসর্গ দেখা দেয়নি। আমেরিকার CDCi দেওয়া তথ্য অনুযায়ী প্রতি দশ লক্ষ টিকা গ্রহণকারীর মধ্যে মাত্র ২-৫ জনের Anaphylaxis উপসর্গ দেখা দিতে পারে। আর টিকা নেওয়ার পর টিকার পার্শ্বপ্রতিক্রিয়ার কারণে মৃত্যুর সম্ভাবনা বিরল।

অবশ্যই দিতে হবে *
অবশ্যই দিতে হবে *
অন্যান্য খবর