× প্রচ্ছদ অনলাইনপ্রথম পাতাশেষের পাতাখেলাবিনোদনএক্সক্লুসিভভারতবিশ্বজমিনবাংলারজমিনদেশ বিদেশশিক্ষাঙ্গনসাক্ষাতকাররকমারিপ্রবাসীদের কথামত-মতান্তরফেসবুক ডায়েরিবই থেকে নেয়া তথ্য প্রযুক্তি শরীর ও মন চলতে ফিরতে ষোলো আনা মন ভালো করা খবরকলকাতা কথকতাখোশ আমদেদ মাহে রমজানস্বাধীনতার সুবর্ণ জয়ন্তীসেরা চিঠি
ঢাকা, ২২ সেপ্টেম্বর ২০২১, বুধবার , ৭ আশ্বিন ১৪২৮ বঙ্গাব্দ, ১৩ সফর ১৪৪৩ হিঃ

পর্ন ছবি তৈরি নিয়ে মুখ খুললেন দর্শনা

বিনোদন

বিনোদন ডেস্ক
৩১ জুলাই ২০২১, শনিবার

বিনোদন দুনিয়া আর পর্ন দুনিয়া যেন একই মুদ্রার এ পিঠ-ওপিঠ। একটিতে আলোর রোশনাই। অন্যটিতে অন্ধকার। সম্প্রতি সিনে জগতে কালো ছায়া ফেলেছে পর্নোগ্রাফি। একই সঙ্গে জড়িয়ে গিয়েছে কলকাতা ও মুম্বইয়ের নাম। খবরে ফাঁস, দুই মহানগরীর বুকেই রমরমিয়ে চলছে পর্ন ছবি তৈরির ব্যবসা। যা নিয়ে উঠতি মডেল, অভিনেত্রীদের অজস্র অভিযোগ। তাদের দাবি, জোর করে, ভয় দেখিয়ে, ভুলিয়ে, টাকার টোপ দিয়ে নাকি এই ধরনের পেশায় আসতে বাধ্য করা হচ্ছে।
এই অভিযোগ কতটা সত্যি?  অভিনেত্রী দর্শনা বনিক জানান, মডেলিং থেকে অভিনয়ে আসার দিনগুলোয় তিনি কোনও খারাপ অভিজ্ঞতার সাক্ষী নন। পাশাপাশি এও স্বীকার করেছেন, মডেলিং বা অভিনয়ের সঙ্গে জড়িত মানুষদের এখনও সহজলভ্য ভাবা হয়। তার মতে, এর জন্য দায়ী সমাজ। দর্শনার দাবি, ধর্ষিতাকে তার আচরণ বা পোশাকের জন্য দায়ী করা হয়। একই ভাবে অভিনেত্রী বা মডেলের দিকে আঙুল তোলা হয় তার সাহসী দৃশ্যে অভিনয় বা ফটোশুটের জন্য। এই ধরনের অভিনয়ে যারা সাবলীল তারাই পর্ন ছবি করেন বা অভিনয়ের প্রস্তাব পান, ধারণাটাই ভুল। কলকাতায় এই ধরনের ইন্ডাস্ট্রির সন্ধান কখনও পেয়েছেন দর্শনা? এ বারেও অকপট অভিনেত্রী। সাফ জবাব তার, টলিউডের কোথাও এই ধরনের বেআইনি কাজ হয় না। তবে কানাঘুষো শুনেছি, এই ধরনের র‌্যাকেট কলকাতার বুকেও আছে। রবিবার ছোটখাটো স্টুডিওতে নগ্ন ফটোশুট হয়। সেখানে অচেনা মডেল বা অভিনেত্রীরা আসেন। এরা টালিগঞ্জের কেউ নন। দর্শনার আরও দাবি, হাতেগোনা কিছু চিত্রগ্রাহক এই ধরনের নগ্ন ছবি তোলেন। নেটমাধ্যমেও ছড়িয়ে দেন হয়তো। সেই ছবি তার চোখেও পড়েছে।

অবশ্যই দিতে হবে *
অবশ্যই দিতে হবে *
অন্যান্য খবর