× প্রচ্ছদ অনলাইনপ্রথম পাতাশেষের পাতাখেলাবিনোদনএক্সক্লুসিভভারতবিশ্বজমিনবাংলারজমিনদেশ বিদেশশিক্ষাঙ্গনসাক্ষাতকাররকমারিপ্রবাসীদের কথামত-মতান্তরফেসবুক ডায়েরিবই থেকে নেয়া তথ্য প্রযুক্তি শরীর ও মন চলতে ফিরতে ষোলো আনা মন ভালো করা খবরকলকাতা কথকতাখোশ আমদেদ মাহে রমজানস্বাধীনতার সুবর্ণ জয়ন্তীসেরা চিঠি
ঢাকা, ২৯ সেপ্টেম্বর ২০২১, বুধবার , ১৪ আশ্বিন ১৪২৮ বঙ্গাব্দ, ২০ সফর ১৪৪৩ হিঃ

ঢিলেঢালা লকডাউন কমেছে চেকপোস্টও

দেশ বিদেশ

স্টাফ রিপোর্টার
৩ আগস্ট ২০২১, মঙ্গলবার

রাজধানীতে করোনার সংক্রমণ ঠেকাতে সরকার ঘোষিত বিধি-নিষেধের লকডাউনে ঢিলেঢালা ভাব লক্ষ্য করা গেছে। কমেছে চেকপোস্টও। গতকাল ব্যক্তিগত ও নানা কারণে ঘর থেকে বের হয়েছেন বিভিন্ন শ্রেণি-পেশার মানুষ। গণপরিবহণ না থাকলেও কেউ কেউ পায়ে হেঁটে, কেউবা রিকশায় গন্তব্যে গেছেন। গতকাল ঢাকার সড়কে মানুষ এবং যানবাহনের সংখ্যা আগের দিনের তুলনায় বেশি দেখা গেছে। তবে কিছু কিছু স্থানে যারাই ব্যক্তিগত গাড়ি নিয়ে বের হয়েছেন তারাই পড়েছেন পুলিশের জেরার মুখে। যারা বিনা প্রয়োজনে গাড়ি নিয়ে বের হয়েছেন তাদের ট্রাফিক আইনে জরিমানা ও মামলা দেয়া হয়েছে। চেকপোস্টগুলোতে আগে যেভাবে শক্তভাবে পুলিশ গাড়ি তল্লাশি ও ওই পথে যাতায়াতকারীদের বিভিন্ন প্রশ্ন জিজ্ঞাসা করতেন তা গতকাল করতে দেখা যায়নি।
অনেক চেকপোস্টে পুুলিশ বসে সড়কের চিত্র দেখে সময় কাটিয়েছেন। ঢাকার বড় তিন টার্মিনাল মহাখালী, গাবতলী ও সায়েদাবাদ বাস টার্মিনাল থেকে দূরপাল্লার কোনো বাস ছেড়ে যায়নি। এছাড়া বাইরে থেকে আসা কোনো যানবাহনকে ঢাকায় ঢুকতে দেয়া হয়নি। ঢাকার প্রবেশপথগুলোতে কঠোর নজরদারি বসায় পুলিশ। এদিকে, গতকাল ঢাকা মহানগর পুলিশ (ডিএমপি) সূত্রে জানা গেছে, বিধি লঙ্ঘন করে বাসার বাইরে আসায় ৩৪৫ জনকে গ্রেপ্তার করেছে পুলিশ। ভ্রাম্যমাণ আদালত ১৩৫ জনকে ১ লাখ ৮৯ হাজার ৮০০ টাকা জরিমানা করেছে। আর সড়ক পরিবহন আইন অনুসারে বিনা কারণে গাড়ি নিয়ে সড়কে বের হওয়ার কারণে ৩৬৬টি গাড়িকে ৮ লাখ ২৪ হাজার ৫০০ টাকা জরিমানা করা হয়েছে। অতিমারি করোনাভাইরাসের সংক্রমণ উদ্বেগজনক হারে বাড়তে থাকায় আগামী ৫ই পর্যন্ত লকডাউন দিয়েছে সরকার। লকডাউন বাড়বে কি কমবে তা সরকারের পক্ষ থেকে স্পষ্ট করে কিছু বলা হয়নি। গতকাল সকাল থেকে দুপুর পর্যন্ত রাজধানীর ফার্মগেট, শাহ্বাগ, মৎস্য ভবন, কাকরাইল এলাকায় ঘুরে মানুষের উপস্থিতি লক্ষ করা গেছে। গার্মেন্ট খোলার পর থেকে মানুষের চলাচল বেড়েছে। হোটেল-রেস্তোরাঁগুলোতে স্বাস্থ্যবিধি ছিল উপেক্ষিত। সড়ক ছিল রিকশার দখলে। গতকাল দুপুরে জাতীয় প্রেস ক্লাবের সামনে রমজান নামে এক ব্যক্তি জানান, তিনি পল্টনে একটি প্রাইভেট কোম্পানিতে চাকরি করেন। লালবাগ যাবেন বলে অফিস থেকে বের হয়ে গন্তব্যস্থলে হেঁটে যাচ্ছেন।
ফার্মগেটে দায়িত্ব পালনকারী ট্রাফিক পুলিশ রেজাউল করীম জানান, লকডাউনে কোনো গাড়ি ছেড়ে দেয়া হচ্ছে না। প্রত্যেক গাড়িকে তারা কেন বের হয়েছেন তা জিজ্ঞাসা করা হচ্ছে। যারা বিনা কারণে বের হয়েছেন তাদের নামে ট্রাফিক আইনে মামলা দায়ের করা হচ্ছে।

অবশ্যই দিতে হবে *
অবশ্যই দিতে হবে *
অন্যান্য খবর