× প্রচ্ছদ অনলাইনপ্রথম পাতাশেষের পাতাখেলাবিনোদনএক্সক্লুসিভভারতবিশ্বজমিনবাংলারজমিনদেশ বিদেশশিক্ষাঙ্গনসাক্ষাতকাররকমারিপ্রবাসীদের কথামত-মতান্তরফেসবুক ডায়েরিবই থেকে নেয়া তথ্য প্রযুক্তি শরীর ও মন চলতে ফিরতে ষোলো আনা মন ভালো করা খবরকলকাতা কথকতাখোশ আমদেদ মাহে রমজানস্বাধীনতার সুবর্ণ জয়ন্তীসেরা চিঠি
ঢাকা, ১৯ সেপ্টেম্বর ২০২১, রবিবার , ৩ আশ্বিন ১৪২৮ বঙ্গাব্দ, ১০ সফর ১৪৪৩ হিঃ

সাইকেল চালিয়ে পার্লামেন্টে রাহুল গান্ধী

বিশ্বজমিন

মানবজমিন ডেস্ক
(১ মাস আগে) আগস্ট ৩, ২০২১, মঙ্গলবার, ৪:০৪ অপরাহ্ন

জ্বালানি ও রান্নার গ্যাসের ক্রমবর্ধমান দামের প্রতিবাদে বাইসাইকেল চালিয়ে পার্লামেন্টে গিয়েছেন কংগ্রেস নেতা রাহুল গান্ধী। মঙ্গলবার এর আগে তিনি একটি ট্রাক্টর চালিয়ে পার্লামেন্ট চত্বরে যান। সেখানে প্রথমে তিনি বিরোধী দলের সদস্যদের নিয়ে সকালের নাস্তা করেন। এরপর বাইসাইকেল চালিয়ে প্রবেশ করেন পার্লামেন্টে। এ সময় তার সঙ্গে ছিলেন লোকসভা নেতা অধীর রঞ্জন চক্রবর্তীসহ দলীয় সহকর্মীরা। বাইসাইকেলে পার্লামেন্টে প্রবেশের আগে তিনি লোকসভা ও রাজ্যসভায় বিরোধী ১৫ দলের সদস্য ও নিজের সহকর্মীদের সকালের নাস্তায় আপ্যায়িত করেন। এতে উপস্থিত ছিলেন দ্রাবিড়া মুন্নেত্রা কাজাগামের (ডিএমকে) কানিমোঝি, ন্যাশনালিস্ট কংগ্রেস পার্টির সুপ্রিয়া সুলে ও প্রফুল প্যাটেল, তৃণমূল কংগ্রেসের সৌগত রায়, কল্যাণ বন্দ্যোপাধ্যায় ও মহুয়া মৈত্র, শিবসেনার সঞ্জয় রাউত, প্রিয়াঙ্কা চতুর্বেদী, সমাজবাদী পার্টির রামগোপাল যাদব, রাষ্ট্রীয় জনতা দলের মনোজ ঝা প্রমুখ। এতে বহুজন সমাজ পার্টির কেউ যোগ দেননি।

রাহুল গান্ধী নিজের দলের সহকর্মীদের ছাড়াও বিরোধী দলীয় নেতাদের কাছাকাছি পৌঁছানোর চেষ্টা করেন।
এর মধ্য দিয়ে তিনি এটা নিশ্চিত করতে চান যে, বিরোধী দলের ঐক্য অটুট আছে। তবে কংগ্রেস একটি বার্তা পরিষ্কার দিতে চাইছে। তা হলো, যখন কেন্দ্রে নরেন্দ্র মোদি সরকারের ইস্যুতে কথা বলবেন তখন তারা আরো অটুট থাকবেন। রাহুল বলেছেন, আমাদের কারো মুখ বা আমাদের কারো নাম গুরুত্বপূর্ণ নয়। গুরুত্বপূর্ণ হলো, আমরা সবাই জনগণের প্রতিনিধি। আমাদের প্রতিটি মুখের বিপরীতে আছে কোটি মুখ। এসব মুখ বা মানুষ দ্রব্যমূল্য বৃদ্ধি ও মুদ্রাস্ফীতির সঙ্কট মোকাবিলা করছে। এটাই কি ‘আচ্ছে দিন’।

১৯ শে জুলাই পার্লামেন্টের বর্ষাকালীন মৌসুমের প্রথম দিনের পর আবার পেট্রোল, ডিজেল ও রান্নার গ্যাসের মূল্য বৃদ্ধির বিরুদ্ধে কঠোর অবস্থান নিয়েছে বিরোধীরা। এখন চলছে এই অধিবেশনের তৃতীয় সপ্তাহ। অন্য যেকোনো ইস্যুতে আলোচনার আগে পেগাসাস ইস্যু এবং তিনটি কৃষি বিষয়ক আইন নিয়ে কথা বলার জন্য এতদিন চেষ্টা করেছে বিরোধীরা। তা নিয়ে পার্লামেন্টে ব্যাপক হট্টগোল হয়েছে। একাধিকবার মুলতবি করতে হয়েছে পার্লামেন্ট অধিবেশন।

অবশ্যই দিতে হবে *
অবশ্যই দিতে হবে *
অন্যান্য খবর