× প্রচ্ছদ অনলাইনপ্রথম পাতাশেষের পাতাখেলাবিনোদনএক্সক্লুসিভভারতবিশ্বজমিনবাংলারজমিনদেশ বিদেশশিক্ষাঙ্গনসাক্ষাতকাররকমারিপ্রবাসীদের কথামত-মতান্তরফেসবুক ডায়েরিবই থেকে নেয়া তথ্য প্রযুক্তি শরীর ও মন চলতে ফিরতে ষোলো আনা মন ভালো করা খবরকলকাতা কথকতাখোশ আমদেদ মাহে রমজানস্বাধীনতার সুবর্ণ জয়ন্তীসেরা চিঠি
ঢাকা, ২২ সেপ্টেম্বর ২০২১, বুধবার , ৭ আশ্বিন ১৪২৮ বঙ্গাব্দ, ১৩ সফর ১৪৪৩ হিঃ

‘ভারতে করোনার দ্বিতীয় ঢেউ শেষ হয়ে যায়নি’

বিশ্বজমিন

মানবজমিন ডেস্ক
(১ মাস আগে) আগস্ট ৩, ২০২১, মঙ্গলবার, ৬:৩৩ অপরাহ্ন

ভারতের আট রাজ্যে এখনও চোখ রাঙাচ্ছে করোনা ভাইরাস। সরকারি টাস্কফোর্সের প্রধান বলেছেন, করোনা ভাইরাসের দ্বিতীয় ঢেউ এখনও শেষ হয়ে যায়নি। ডেল্টা ভ্যারিয়েন্টের কারণে অনেক স্থানে সংক্রমণ বাড়ছে। আটটি রাজ্যে বাড়ছে আর-ফ্যাক্টর। ভাইরাসের প্রজনন হারকে ‘আর-ফ্যাক্টর’ হিসেবে অভিহিত করা হয়। এ খবর দিয়েছে অনলাইন এনডিটিভি। এতে আরো বলা হয় করোনা ভাইরাস ইস্যুতে সরকারের গঠিত টাস্কফোর্সের প্রধান ভি কে পাল সতর্কতা দিয়েছেন। কারণ, ৪৪টি জেলায় আক্রান্তের সংখ্যা অনেক বেশি।
ডেল্টা ভ্যারিয়েন্টের কারণে দ্বিতীয় ঢেউ এখনো শেষ হয়ে যায়নি। গত চার সপ্তাহে ১৮টি জেলায় সংক্রমণ বৃদ্ধির প্রবণতা দেখা গেছে। ভি কে পাল বলেন, ডেল্টা ভ্যারিয়েন্ট বড় এক সমস্যা। এখনও এই মহামারি চোখ রাঙাচ্ছে। আমাদের দেশে এখনও বিদ্যমান দ্বিতীয় ঢেউ। মনে রাখুন, ‘আর’ নাম্বার ০.৬ বা তার নিচে হওয়া উচিত। যদি এটা এক-এর বেশি হয়, তাহলে তাতে বুঝতে হবে সমস্যা বড় এবং এই ভাইরাস বিস্তার লাভ করতে চাইছে। যেসব রাজ্যে আর-ফ্যাক্টর এক-এর বেশি আছে তা হলো হিমাচল প্রদেশ, জম্মু ও কাশ্মীর, লক্ষদ্বীপ, তামিলনাড়ু, মিজোরাম, কর্নাটক, পুদুচেরি এবং কেরালা। শুধু অন্ধ্র প্রদেশ এবং মহারাষ্ট্রে তা কমে আসার প্রবণতা দেখা গেছে। এর মধ্যে আছে পশ্চিমবঙ্গ, নাগাল্যান্ড, হরিয়ানা, গোয়া, দিল্লি এবং ঝাড়খণ্ড। এ রাজ্যগুলোতে আর-ফ্যাক্টর এক। কেন্দ্রীয় স্বাস্থ্য মন্ত্রণালয়ের যুগ্ম সচিব লাভ আগরওয়াল বলেন, যখন আর-ফ্যাক্টর এক-এর বেশি হয়, এর অর্থ হলো সংক্রমণ বাড়ছে এবং সেখানে নিয়ন্ত্রণ প্রয়োজন। তিনি আরো বলেন, গড়ে যুক্তরাষ্ট্র, কানাডা, অস্ট্রেলিয়া এবং ভারতে আর-ফ্যাক্টর ১.২। এর অর্থ হলো আক্রান্ত একজন মানুষ একজনের বেশি মানুষকে সংক্রমিত করতে পারেন।

অবশ্যই দিতে হবে *
অবশ্যই দিতে হবে *
অন্যান্য খবর