× প্রচ্ছদ অনলাইনপ্রথম পাতাশেষের পাতাখেলাবিনোদনএক্সক্লুসিভভারতবিশ্বজমিনবাংলারজমিনদেশ বিদেশশিক্ষাঙ্গনসাক্ষাতকাররকমারিপ্রবাসীদের কথামত-মতান্তরফেসবুক ডায়েরিবই থেকে নেয়া তথ্য প্রযুক্তি শরীর ও মন চলতে ফিরতে ষোলো আনা মন ভালো করা খবরকলকাতা কথকতাখোশ আমদেদ মাহে রমজানস্বাধীনতার সুবর্ণ জয়ন্তীসেরা চিঠি
ঢাকা, ২১ সেপ্টেম্বর ২০২১, মঙ্গলবার , ৬ আশ্বিন ১৪২৮ বঙ্গাব্দ, ১২ সফর ১৪৪৩ হিঃ

সীতাকুণ্ডে আদালতের নির্দেশ অমান্য করে জায়গা দখলের চেষ্টা

বাংলারজমিন

সীতাকুণ্ড (চট্টগ্রাম) প্রতিনিধি
৪ আগস্ট ২০২১, বুধবার

সীতাকুণ্ডে আদালতের নির্দেশ অমান্য করে জোরপূর্বক গাছ কেটে জায়গা দখলের চেষ্টার অভিযোগ পাওয়া গেছে। এ ঘটনায় মঙ্গলবার সীতাকুণ্ড থানায় অলিখিত অভিযোগ দায়ের করেছেন ভুক্তভোগী ফাজুদা বেগম। অভিযোগ সূত্রে জানা যায়, চট্টগ্রামের সীতাকুণ্ডে ১নং সৈয়দপুর ইউনিয়নের বাকখালী মৌজার ৫২ শতক জায়গা রেকর্ড ও খরিদামূলে ফজুদা বেগম মালিক হয়ে দীর্ঘদিন যাবৎ ভোগ দখল আছে। কিন্তু একই বসতবাড়িতে বসবাসরত বি.এস ৯৮৬৩ নং খতিয়ানের সহঅংশীদার ও নিকটপ্রতিবেশী মৃত সিরাজুল হকের পুত্র রুহুল আমিন মৃত নিজাম উদ্দিনের পুত্র মেহেদী হাসান জনি ও জয় এবং সিরাজুল হকের অপর পুত্র ফখরুল ইসলাম জোরপূর্বক মূল্যবান গাছ কেটে বেড়া দিয়ে জাগায় দখলের পাঁয়তারা করছে। অসহায় ফজুদা জানান, বড়ভাই প্রবাসে চাকরিরত এবং তিন ছেলে চাকরির সুবাদে বাড়ির বাইরে অবস্থান করায় সুযোগ বুঝে সম্পত্তি আত্মসাত করার পাঁয়তারা করছে প্রতিপক্ষগণ এবং পুকুরে জাল দিয়ে মাছ ধরে নিয়ে যাচ্ছে তারা। জোরপূর্বক জায়গা থেকে গাছ কেটে জায়গা দখল করার চেষ্টা করছে তারা। গাছ কাটায় বাধা দিলে ক্ষিপ্ত হয়ে গালি-গালাজ করে হুমকি দিতে থাকে প্রতিপক্ষরা। বিচারের আশায় অতিরিক্ত জেলা ম্যাজিট্র্রেট আদালত উত্তর চট্টগ্রামে ৩৩৪/১৮ এবং ননজিআর ১০৪৭/১৯ নং মামলা দায়ের করেন ফজুদা বেগম।
সীতাকুণ্ড থানার এসআই মোঃ সেলিম জানান, আসামিদের বিরুদ্ধে গাছ কাটার অভিযোগে আদালতে প্রসিকিউশন দেওয়া হয়েছে।

অবশ্যই দিতে হবে *
অবশ্যই দিতে হবে *
অন্যান্য খবর