× প্রচ্ছদ অনলাইনপ্রথম পাতাশেষের পাতাখেলাবিনোদনএক্সক্লুসিভভারতবিশ্বজমিনবাংলারজমিনদেশ বিদেশশিক্ষাঙ্গনসাক্ষাতকাররকমারিপ্রবাসীদের কথামত-মতান্তরফেসবুক ডায়েরিবই থেকে নেয়া তথ্য প্রযুক্তি শরীর ও মন চলতে ফিরতে ষোলো আনা মন ভালো করা খবরকলকাতা কথকতাখোশ আমদেদ মাহে রমজানস্বাধীনতার সুবর্ণ জয়ন্তীসেরা চিঠি
ঢাকা, ২৯ সেপ্টেম্বর ২০২১, বুধবার , ১৪ আশ্বিন ১৪২৮ বঙ্গাব্দ, ২০ সফর ১৪৪৩ হিঃ

চার জেলায় আরও ৫৮ জনের মৃত্যু

অনলাইন

অনলাইন ডেস্ক
(১ মাস আগে) আগস্ট ৫, ২০২১, বৃহস্পতিবার, ১০:৪৯ পূর্বাহ্ন

ময়মনসিংহ, রাজশাহী, চট্টগ্রামে ও কুষ্টিয়ায় করোনা আক্রান্ত ও উপসর্গ নিয়ে গত ২৪ ঘণ্টায় আরও ৫৮ জনের মৃত্যু হয়েছে। এরমধ্যে ময়মনসিংহ মেডিকলে কলেজ হাসপাতালে সর্বোচ্চ ২১ জন, রাজশাহী মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে ১৭ জন, চট্টগ্রামে ৯ জন ও কুষ্টিয়া করোনা ডেডিকেটেড হাসপাতালে ১১ জন মৃত্যুবরণ করেন। বিস্তারিত প্রতিনিধিদের পাঠানো রিপোর্টে-

স্টাফ রিপোর্টার, ময়মনসিংহ থেকে জানান, ময়মনসিংহ মেডিকেল কলেজ (মমেক) হাসপাতালের করোনা ইউনিটে গত ২৪ ঘণ্টায় ২১ জনের মৃত্যু হয়েছে। এদের মধ্যে করোনায় ছয়জন ও উপসর্গ নিয়ে ১৫ জনের মৃত্যু হয়।
আজ বৃহস্পতিবার মমেক হাসপাতাল করোনা ইউনিটের ফোকালপারসন ডা. মহিউদ্দিন খান মুন এ তথ্য নিশ্চিত করেন।
জেলা সিভিল সার্জন ডা. মোহাম্মদ নজরুল ইসলাম বলেন, গত ২৪ ঘণ্টায় ময়মনসিংহ মেডিকেল কলেজ হাসপাতালের পিসিআর ও অ্যান্টিজেন টেস্টে এক হাজার ৫৬৩টি নমুনা পরীক্ষা করে ৩১৬ জন করোনা রোগী শনাক্ত হয়েছেন।


স্টাফ রিপোর্টার, রাজশাহী থেকে জানান, প্রাণঘাতী করোনায় ভাইরাসের সংক্রমণ ও উপসর্গে গত ২৪ ঘণ্টায় রাজশাহী মেডিকেল কলেজ (রামেক) হাসপাতালের করোনা ইউনিটের বিভিন্ন ওয়ার্ডে আরও ১৭ জনের মৃত্যু হয়েছে। আজ বৃহস্পতিবার সকালে রামেক হাসপাতালের পরিচালক ব্রিগেডিয়ার জেনারেল শামীম ইয়াজদানী বিষয়টি নিশ্চিত করেছেন। তিনি বলেন, বুধবার সকাল ৮টা থেকে বৃহস্পতিবার সকাল ৮টা পর্যন্ত রামেক হাসপাতালের করোনা ইউনিটের বিভিন্ন ওয়ার্ডে মারা গেছেন মোট ১৭ জন। এর মধ্যে সংক্রমণে ছয়জন ও উপসর্গে ১১ জন। মৃতদের মধ্যে নয়জন পুরুষ ও আটজন নারী।
মৃতদের পরিবারকে স্বাস্থ্যবিধি মেনে দাফন করার নির্দেশনা দেয়া হয়েছে। এদিকে রোগীদের ভর্তি ও সংক্রমণের বিষয়ে রামেক পরিচালক জানান, গত ২৪ ঘণ্টায় রামেকে নতুন ভর্তি হয়েছেন ৩৯ জন। সুস্থ হয়ে বাড়ি ফিরেছেন ৩৬ জন। রামেকে করোনা আক্রান্ত হয়ে ১৮৮ জন এবং সন্দেহভাজন ও উপসর্গ নিয়ে ২০৩ জন ভর্তি রয়েছেন। গত ২৪ ঘণ্টায় রামেকে ৫১৩টি শয্যার বিপরীতে রোগী ভর্তি ছিলেন ৩৯১ জন।
পরীক্ষা ও শনাক্তের বিষয়ে শামীম ইয়াজদানী বলেন, গত ২৪ ঘণ্টায় রামেক হাসপাতালের পিসিআর মেশিনে ৯৪টি নমুনা পরীক্ষায় ৩৩ জনের করোনা পজিটিভ রিপোর্ট এসেছে। অন্যদিকে মেডিকেল কলেজের পিসিআর মেশিনে ২৮২ জনের নমুনা পরীক্ষায় ৪৫ জনের করোনা পজিটিভ রিপোর্ট আসে।
দুই ল্যাবে মোট ৩৭৬ জনের নমুনা পরীক্ষা করা হয়। এতে ৭৮ জনের করোনা পজিটিভ রেজাল্ট আসে। পরীক্ষা বিবেচনায় শনাক্তের হার ২৩ দশমিক ৭১ শতাংশ।

স্টাফ রিপোর্টার চট্টগ্রাম থেকে জানান, করোনা ভাইরাসে আক্রান্ত হয়ে চট্টগ্রামে গত ২৪ ঘণ্টায় আরও নয়জনের মৃত্যু হয়েছে। এ নিয়ে জেলায় মোট মৃতের সংখ্যা দাঁড়াল এক হাজার ১৯ জনে। একই সময়ের মধ্যে করোনা শনাক্ত হয়েছেন এক হাজার ১১৭ জন। এর মধ্য দিয়ে জেলায় মোট শনাক্তের সংখ্যা দাঁড়াল ৮৭ হাজার ৫৪৬ জনে।
আজ বৃহস্পতিবার চট্টগ্রাম সিভিল সার্জন কার্যালয় থেকে প্রকাশিত প্রতিবেদন থেকে এ তথ্য জানা গেছে। সিভিল সার্জন ডা. শেখ ফজলে রাব্বি জানান, গতকাল (বুধবার) চট্টগ্রামের বিভিন্ন ল্যাবে তিন হাজার ৯৭ জনের নমুনা পরীক্ষায় এক হাজার ১১৭ জনের দেহে করোনার জীবাণু শনাক্ত হয়। এদের মধ্যে নগরের ৬৪১ জন ও উপজেলার ৪৭৬ জন। গত ২৪ ঘণ্টায় চট্টগ্রাম বিশ্ববিদ্যালয় ল্যাবে ২৪৯ জন, ফৌজদারহাট বিআইটিআইডি ল্যাবে ২৭২ জন, চট্টগ্রাম মেডিকেল কলেজ ল্যাবে ১৫৪ জন, ইমপেরিয়াল হাসপাতাল ল্যাবে ৫৭ জন ও শেভরণ হাসপাতাল ল্যাবে ৪৫ জনের শরীরে করোনার সংক্রমণ শনাক্ত হয়।
একই সময়ে চট্টগ্রাম মা ও শিশু হাসপাতাল ল্যাবে ২৭ জন, জেনারেল হাসপাতাল আরটিআরএল ল্যাবে ১৫ জন জন, ইপিক হেলথ কেয়ার ল্যাবে ৫৮ জন, অ্যান্টিজেন টেস্টে ২৩৮ জন এবং কক্সবাজার মেডিকেল কলেজ ল্যাবে চট্টগ্রামের দুইজনের শরীরে করোনার সংক্রমণ শনাক্ত হয়।
কুষ্টিয়া প্রতিনিধি জানান, গত ২৪ ঘণ্টায় কুষ্টিয়ার করোনা ডেডিকেটেড হাসপাতালে আরও ১১ জনের মৃত্যু হয়েছে। তাদের মধ্যে করোনায় ৯ জন এবং উপসর্গ নিয়ে দুজন মারা গেছেন। গতকাল বুধবার সকাল ৮টা থেকে আজ বৃহস্পতিবার সকাল ৮টা পর্যন্ত হাসপাতালে চিকিৎসাধীন অবস্থায় তাদের মৃত্যু হয়।

কুষ্টিয়া জেনারেল হাসপাতালের তত্ত্বাবধায়ক ডা. এম এ মোমেন এসব তথ্য নিশ্চিত করেছেন। হাসপাতাল সূত্রে জানা গেছে, ২১১ শয্যার করোনা ইউনিটে বৃহস্পতিবার সকাল ৯টা পর্যন্ত রোগী ভর্তি রয়েছেন ২১১ জন। এর মধ্যে করোনা নিয়ে ভর্তি রয়েছেন ১৮০ জন এবং ৩১ জন উপসর্গ নিয়ে ভর্তি রয়েছেন।

এদিকে নতুন ৫৯০ জনের নমুনা পরীক্ষা করে ২৩১ জনের দেহে করোনাভাইরাস শনাক্ত হয়েছে। জেলায় করোনায় মৃতের সংখ্যা দাঁড়িয়েছে ৫৮৯ জনে। নতুন ২৩১ জনসহ করোনা আক্রান্তের সংখ্যা দাঁড়িয়েছে ১৫ হাজার ৫০৩ জন।

জেলা প্রশাসকের কার্যালয় সূত্রে জানা গেছে, গত ২৪ ঘণ্টায় জেলায় নমুনা পরীক্ষা বিবেচনায় করোনা শনাক্তের হার ৩৯ দশমিক ১৫ শতাংশ। নতুন করে শনাক্ত হওয়া ২৩১ জনের মধ্যে কুষ্টিয়া সদরের ৯০ জন, দৌলতপুরের ছয়জন, কুমারখালীর ৩১ জন, ভেড়ামারার ৪৫ জন, মিরপুরের ৪৫ জন এবং খোকসা উপজেলার ১৪ জন রয়েছেন।
এখন পর্যন্ত জেলায় ৮৯ হাজার ৫৭২ জনের নমুনা পরীক্ষার জন্য নেওয়া হয়েছে। নমুনা পরীক্ষার প্রতিবেদন পাওয়া গেছে ৮৪ হাজার ১৩ জনের। বর্তমানে কুষ্টিয়ায় সক্রিয় করোনা রোগীর সংখ্যা ৩ হাজার ২৬৫ জন। তাদের মধ্যে হাসপাতালে চিকিৎসাধীন আছেন ২৭৭ জন ও হোম আইসোলেশনে আছেন ২ হাজার ৯৮৮ জন।

অবশ্যই দিতে হবে *
অবশ্যই দিতে হবে *
অন্যান্য খবর