× প্রচ্ছদ অনলাইনপ্রথম পাতাশেষের পাতাখেলাবিনোদনএক্সক্লুসিভভারতবিশ্বজমিনবাংলারজমিনদেশ বিদেশশিক্ষাঙ্গনসাক্ষাতকাররকমারিপ্রবাসীদের কথামত-মতান্তরফেসবুক ডায়েরিবই থেকে নেয়া তথ্য প্রযুক্তি শরীর ও মন চলতে ফিরতে ষোলো আনা মন ভালো করা খবরকলকাতা কথকতাখোশ আমদেদ মাহে রমজানস্বাধীনতার সুবর্ণ জয়ন্তীসেরা চিঠি
ঢাকা, ২৯ সেপ্টেম্বর ২০২১, বুধবার , ১৪ আশ্বিন ১৪২৮ বঙ্গাব্দ, ২০ সফর ১৪৪৩ হিঃ

এবার পাবনায় টিকা না দিয়েই সিরিঞ্জ পুশের অভিযোগ

অনলাইন

স্টাফ রিপোর্টার, পাবনা থেকে
(১ মাস আগে) আগস্ট ৫, ২০২১, বৃহস্পতিবার, ১:০৪ অপরাহ্ন

টাঙ্গাইলের পর পাবনায় টিকা না দিয়ে শূন্য সিরিঞ্জ পুশের অভিযোগ উঠেছে। গতকাল বুধবার দুপুরে পাবনা জেনারেল হাসপাতাল টিকা কেন্দ্রে এ ঘটনা ঘটে। ঘটনাটি সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যমে ছড়িয়ে পরার পর পাবনায় বেশ চাঞ্চল্যের সৃষ্টি হয়েছে।

জানা যায়, সাবাহ মারিয়ম অন্তিকা করোনা ভাইরাসের দ্বিতীয় ডোজের টিকা নেয়ার জন্য বুধবার সকাল ১২টার দিকে পাবনা জেনারেল হাসপাতালের টিকা কেন্দ্রে যান। সে ঢাকা কমিউনিটি মেডিকেল কলেজ এন্ড হাসপাতালের এমবিবিএস শেষ বর্ষের শিক্ষার্থী। দেড় ঘণ্টা পর টিকা দেয়ার জন্য নির্ধারিত স্থানে বসানো হয়। এরপর শূন্য সিরিঞ্জ তার শরীরে পুশ করা হয়। তা দেখে প্রতিবাদ করলে ফের টিকাসহ সিরিঞ্জ পুশ করা হয়।

মেডিকেল শিক্ষার্থী সাবাহ মারিয়ম অন্তিকার বাবা এডভোকেট আব্দুল হান্নান বলেন, আমি এই ঘটনার সুষ্ঠু তদন্ত ও জড়িতদের বিচার দাবী করছি। প্রয়োজনে আমি আইনগত ব্যবস্থা গ্রহণ করবো।

হাসপাতালের ভারপ্রাপ্ত আবাসিক মেডিকেল অফিসার (আরএমও) ডা. জাহিদুল ইসলাম বলেন, বিষয়টি আমি জানার চেষ্টা করছি।
এই মুুহুর্তে কিছু বলতে পারছি না। এ বিষয়ে লিখিত অভিযোগ পেলে তদন্তের মাধ্যমে খতিয়ে দেখা হবে।

পাবনা জেনারেল হাসপাতালের সহকারী পরিচালক ডা. কে এম আবু জাফর বলেন, দুপুর তিনটা পর্যন্ত আমি হাসপাতালেই ছিলাম। এ ধরণের কোন ঘটনা আমার কানে আসেনি বা আমাকে কেউ জানায়নি। এইমাত্র জানতে পারলাম। তিনি বলেন, অভিযোগ পেলে এবং প্রমাণিত হলে অবশ্যই দোষীদের বিরুদ্ধে প্রয়োজনীয় ব্যবস্থা গ্রহণ করা হবে।

পাবনার সিভিল সার্জন ডা. মনিসর চৌধুরী বলেন, ঘটনাটি দুঃখজনক। তবে আমি এ বিষয়ে কিছুই জানিনা। খোঁজ খবর নিয়ে দেখছি। জেলা প্রশাসক বিশ্বাস রাসেল হোসেন বলেন, এ ধরণের কোন অভিযোগ আমার কাছে আসেনি। আমি বিষয়টি জ্ঞাত নই।

অবশ্যই দিতে হবে *
অবশ্যই দিতে হবে *
পাঠকের মতামত
**মন্তব্য সমূহ পাঠকের একান্ত ব্যক্তিগত। এর জন্য সম্পাদক দায়ী নন।
জামশেদ পাটোয়ারী
৫ আগস্ট ২০২১, বৃহস্পতিবার, ৫:৪৪

যারা টিকা পুশ করেন, দেখা গেছে তারা মোবাইলে এবং কোন না কোন ব্যক্তির সাথে ভীষণ ব্যস্ত থাকেন। আমার নীজের অভিজ্ঞতা থেকে বলছি, টিকা দেয়ার লম্বা লাইনে দীর্ঘ দেড় ঘন্টা দাড়িয়ে থাকার পর আনষ্ঠানিকতা সেরে ভিতরে ঢুকে নির্দিষ্ট চেয়ারে বসে আছি, দেখলাম উনি ভীষণ ব্যস্ত। এত ব্যস্ত থাকলে সিরিঞ্জে ভ্যাকসিন না নিয়ে পুশ করাটা স্বাভাবিক। আর কিছু মানুষ আছে যারা হাজার টাকা গুণতে রাজি, কিন্তু কিছু সময় লাইনে দাড়াতে রাজি না। তাই একটু এদিক সেদিক করলেই হাজার টাকা ইনকামের সুযোগ।

Amirswapan
৫ আগস্ট ২০২১, বৃহস্পতিবার, ১:৫৬

সরকারকে বিতর্কিত করার গভীর ষড়যন্ত্র হতে পারে টাঙ্গাইলেরঐসহকারি কমকর্তাসহ দুইজনকে রিমান্ডে নিয়ে জিঙ্গাসাবাদ করলে কে মাষ্টারমাইন্ড জানাযাবে।

অন্যান্য খবর