× প্রচ্ছদ অনলাইনপ্রথম পাতাশেষের পাতাখেলাবিনোদনএক্সক্লুসিভভারতবিশ্বজমিনবাংলারজমিনদেশ বিদেশশিক্ষাঙ্গনসাক্ষাতকাররকমারিপ্রবাসীদের কথামত-মতান্তরফেসবুক ডায়েরিবই থেকে নেয়া তথ্য প্রযুক্তি শরীর ও মন চলতে ফিরতে ষোলো আনা মন ভালো করা খবরকলকাতা কথকতাখোশ আমদেদ মাহে রমজানস্বাধীনতার সুবর্ণ জয়ন্তীসেরা চিঠি
ঢাকা, ২৩ অক্টোবর ২০২১, শনিবার , ৮ কার্তিক ১৪২৮ বঙ্গাব্দ, ১৫ রবিউল আউয়াল ১৪৪৩ হিঃ

মহাকাশ ভ্রমণ করতে চান? টিকেটের দাম প্রায় ৪ কোটি

রকমারি

মানবজমিন ডেস্ক
৯ আগস্ট ২০২১, সোমবার
সর্বশেষ আপডেট: ২:৫২ অপরাহ্ন

গত জুলাইয়ে নিজের রকেটে চড়ে মহাকাশ ঘুরে এসেছেন মার্কিন বিলিয়নিয়ার রিচার্ড ব্র্যানসন। এবার মহাকাশ সফরে ইচ্ছুক ব্যক্তিদের জন্য আসন প্রতি ৪ লাখ ৫০ হাজার ডলার (৩ কোটি ৮২ লাখ ৪১ হাজার টাকা) করে টিকিট বিক্রি শুরু করেছে তার মালিকানাধীন প্রতিষ্ঠান ভার্জিন গ্যালাক্টিক। এর আগে ২০১৪ সালে ২ লাখ ৫০ হাজার ডলার করে টিকিট বিক্রি শুরু করেছিল মহাকাশ ভ্রমণ বিষয়ক প্রতিষ্ঠানটি। তবে দুটি প্রাণঘাতী দুর্ঘটনার পর তা বন্ধ রাখা হয়। এ খবর দিয়েছে বিবিসি।

খবরে বলা হয়, আগামী বছরের মধ্যেই বাণিজ্যিকভাবে মহাকাশে ফ্লাইট চালুর প্রত্যাশা করছে ভার্জিন গ্যালাক্টিক।

এক বিবৃতিতে ভার্জিন গ্যালাক্টিকের প্রধান নির্বাহী মাইক্যাল কলগ্ল্যাজিয়ার জানান, গত মাসে ইউনিটি ২২ ফ্লাইটের সফল পরীক্ষামূলক মিশনের পর প্রতিষ্ঠানটির মহাকাশ ভ্রমণের সেবায় মানুষের আগ্রহ বেড়েছে।

তিনি বলেন, ইউনিটি ২২ ফ্লাইটের পর মানুষের আগ্রহ বৃদ্ধি বিবেচনায় নিয়ে, আমরা আজ থেকে টিকিট বিক্রি পুনরায় চালু করছি। বিশ্বজুড়ে বিস্তৃত পরিসরে মানুষের কাছে মহাকাশের বিস্ময় নিয়ে আসার চেষ্টায়, সম্পূর্ণ নতুন একটি শিল্প ও ভোক্তা অভিজ্ঞতা চালু করতে পেরে আমরা আনন্দিত।
কেবল ভার্জিন গ্যালাক্টিক নয়। মহাকাশে বাণিজ্যিকভাবে ভ্রমণ শিল্প গড়ে তুলতে যোগ দিয়েছে বিশ্বের আরো বেশকিছু শীর্ষ প্রতিষ্ঠান। এর মধ্যে রয়েছে আমাজনের মালিক জেফ বেজোস পরিচালিত প্রতিষ্ঠান ব্লু অরিজিন, টেসলা’র এলন মাস্কের স্পেস এক্স।

জুলাইয়ে ভার্জিনের ব্র্যানসন মহাকাশে সফর করার কয়দিন পর একই কায়দায় নিজের রকেটে চড়ে ক্রু নিয়ে মহাকাশে ঘুরে আসেন বেজোসও।
ধারণা করা হচ্ছে, শিগগিরই ২ লাখ থেকে ৩ লাখ ডলার মূল্যে মহাকাশে ভ্রমণের টিকিট বিক্রি শুরু করবে তার প্রতিষ্ঠান ব্লু অরিজিনও।
এদিকে, গত বছরই মহাকাশে পরীক্ষামূলক ফ্লাইট সম্পন্ন করেছে স্পেস এক্স। নাসার সঙ্গে মিলে আন্তর্জাতিক মহাকাশ স্টেশনে ভবিষ্যতে নভোচারী পাঠানোর পরিকল্পনা রয়েছে প্রতিষ্ঠানটির। এছাড়া, এ বছরের শেষে ১০ দিনের জন্য তিন জন নভোচারীকে মহাকাশ সফরে পাঠাবে বলে জানিয়েছে প্রতিষ্ঠানটি।

আগামী ডিসেম্বরে যুক্তরাষ্ট্রের নিউ মেক্সিকো থেকে মহাকাশ সফরের উদ্দেশ্যে পরবর্তী ফ্লাইট ইউনিটি ২৩ চালুর পরিকল্পনা রয়েছে ভার্জিন গ্যালাক্টিকের।

প্রতিষ্ঠানটি জানিয়েছে, ইচ্ছুক ব্যক্তিদের কাছে একটি আসন, বন্ধু ও পরিবার বিষয়ক প্যাকেজ বা পুরো রকেট ভাড়া করার সুযোগ রয়েছে। যারা ইতিমধ্যেই আগ্রহ দেখিয়েছে, তারা আগেভাগে আসন রিজার্ভ করতে পারবেন। উল্লেখ্য, ২০১৪ সালে টিকিট বিক্রি বন্ধ হওয়ার আগ অবধি প্রায় ৬০০ টিকিট বিক্রি করেছিল ভার্জিন।

অবশ্যই দিতে হবে *
অবশ্যই দিতে হবে *
পাঠকের মতামত
**মন্তব্য সমূহ পাঠকের একান্ত ব্যক্তিগত। এর জন্য সম্পাদক দায়ী নন।
z Ahmed
৯ আগস্ট ২০২১, সোমবার, ১২:০৫

যখন লক্ষ লক্ষ মানুষ খাদ্যের অভাবের জন্য, রোগ থেকে প্রতিদিন মারা যাচ্ছে, , লক্ষ লক্ষ মানুষ আশ্রয়হীন, শিক্ষা কম, এই সংকটময় সময়ে কিছু মানুষ কোটি কোটি টাকা খরচ করে কক্ষপথে ভ্রমণ করছে। মানুষ কতটা ভয়ংকর, কতটা বিপজ্জনক, কতটা হৃদয়হীন, কঠোর-হৃদয় এবং নির্মম !!!!

জ্ঞানী বালক
৯ আগস্ট ২০২১, সোমবার, ১১:২৩

Virgin Galactic এর landing আমার কাছে সবচেয়ে নিরাপদ মনে হয়েছে।

অন্যান্য খবর