× প্রচ্ছদ অনলাইনপ্রথম পাতাশেষের পাতাখেলাবিনোদনএক্সক্লুসিভভারতবিশ্বজমিনবাংলারজমিনদেশ বিদেশশিক্ষাঙ্গনসাক্ষাতকাররকমারিপ্রবাসীদের কথামত-মতান্তরফেসবুক ডায়েরিবই থেকে নেয়া তথ্য প্রযুক্তি শরীর ও মন চলতে ফিরতে ষোলো আনা মন ভালো করা খবরকলকাতা কথকতাখোশ আমদেদ মাহে রমজানস্বাধীনতার সুবর্ণ জয়ন্তীসেরা চিঠি
ঢাকা, ২১ সেপ্টেম্বর ২০২১, মঙ্গলবার , ৬ আশ্বিন ১৪২৮ বঙ্গাব্দ, ১২ সফর ১৪৪৩ হিঃ

ইরানের পারমাণবিক চুক্তি পুনর্বহালের পদক্ষেপে অগ্রগতি

বিশ্বজমিন

মানবজমিন ডেস্ক
(১ সপ্তাহ আগে) সেপ্টেম্বর ১৩, ২০২১, সোমবার, ১২:৩৬ অপরাহ্ন

ইরানের সঙ্গে সম্পাদিত ২০১৫ সালের ঐতিহাসিক পারমাণবিক চুক্তি পুনর্বহালের পদক্ষেপ আরো একধাপ এগিয়ে গেল। রোববার ইরান ও জাতিসংঘের পারমাণবিক পর্যবেক্ষক সংস্থা আইএইএ- এ নিয়ে সঙ্কট কাটিয়ে উঠতে একটি চুক্তিতে উপনীত হয়েছে। এর ফলে এ মাসে পরের দিকে পারমাণবিক ইস্যুতে অব্যাহতভাবে আলোচনা চলতে থাকবে। আলোচনার জন্য শনিবার দিনশেষে ইরানের রাজধানী তেহরানে অবতরণ করেন আইএইএ’র মহাপরিচালক রাফায়েল গ্রোসি। তারপর রোববার সকালে ইরানে আণবিক শক্তি সংস্থায় নবনিযুক্ত প্রধান মোহাম্মদ এসলামির সঙ্গে সাক্ষাত করেন তিনি। ইরানের নতুন প্রেসিডেন্ট ইব্রাহিম রইসির প্রশাসনের অধীনে এটাই তার প্রথম তেহরান সফর। মোহাম্মদ এসলামিকে গত ২৯ শে আগস্ট পারমাণবিক ওই সংস্থার প্রধান হিসেবে নিযুক্ত করেন প্রেসিডেন্ট রইসি। আলোচনাকে উভয় পক্ষই গঠনমূলক বলে অভিহিত করেছেন।
এ মাসের শেষের দিকে ভিয়েনায় আইএইএ’র সাধারণ অধিবেশন। তার ফাঁকে ফাঁকে তারা আলোচনা অব্যাহত রাখতে রাজি হয়েছেন। তারা আরও একমত হয়েছেন যে, আইএইএ’র পর্যবেক্ষণকারী ক্যামেরার মেমোরি কার্ড পরিবর্তন করার জন্য শিগগিরই তেহরান সফরে যাবেন রাফায়েল গ্রোসি। গত ডিসেম্বরে ইরানের পার্লামেন্ট একটি আইন পাস করে। সেই আইনের অধীনে বর্তমান মেমোরি কার্ড ইরানে বহাল থাকবে। ফেব্রুয়ারি পর ইরান বলেছে, ভিয়েনায় একটি চুক্তিতে পৌঁছার পর আইএইএ’র টেপ হস্তান্তর করবে তারা। এর ফলে যুক্তরাষ্ট্রের সাবেক প্রেসিডেন্ট ডনাল্ড ট্রাম্পের দেয়া একতরফা নিষেধাজ্ঞা প্রত্যাহার হবে। রোববারের বৈঠকের পর এসলামি বলেছেন, আমাদের এবং আইএইএ’র মধ্যে জোর দেয়া হয়েছে আস্থা বাড়ানোর বিষয়ে।

ওদিকে দু’দিন আগে আইএইএর দুটি নতুন গোপন রিপোর্ট প্রকাশ হয়েছে। তাতে দেখা গেছে, ইরানের পারমাণবিক কর্মসূচি নিয়ে উদ্বিগ্ন জাতিসংঘের এ সংস্থা। এর কয়েকদিন পরেই ইরানের সঙ্গে ওই বৈঠক করলেন সংস্থার প্রধান রাফায়েল গ্রোসি। প্রকাশ হওয়া ওই রিপোর্টে বলা হয়েছে, আইএইএ’র রেকর্ডিং সামগ্রীতে পর্যাপ্ত সহযোগিতা করতে ব্যর্থ হয়েছে ইরান। একটি ঘটনার পর হয়তো এসব সরঞ্জাম ধ্বংস করে দেয়া হয়েছে। আর এ ঘটনা ঘটানো হয়েছে উচ্চ মাত্রায় ইউরেনিয়াম সমৃদ্ধ করার সময়ে। অন্যদিকে বিভিন্ন স্থানে পারমাণবিক সামগ্রীর বিষয়ে পূর্ণাঙ্গ ব্যাখ্যা দেয়নি ইরান।

অবশ্যই দিতে হবে *
অবশ্যই দিতে হবে *
অন্যান্য খবর