× প্রচ্ছদ অনলাইনপ্রথম পাতাশেষের পাতাখেলাবিনোদনএক্সক্লুসিভভারতবিশ্বজমিনবাংলারজমিনদেশ বিদেশশিক্ষাঙ্গনসাক্ষাতকাররকমারিপ্রবাসীদের কথামত-মতান্তরফেসবুক ডায়েরিবই থেকে নেয়া তথ্য প্রযুক্তি শরীর ও মন চলতে ফিরতে ষোলো আনা মন ভালো করা খবরকলকাতা কথকতাখোশ আমদেদ মাহে রমজানস্বাধীনতার সুবর্ণ জয়ন্তীসেরা চিঠি
ঢাকা, ২১ সেপ্টেম্বর ২০২১, মঙ্গলবার , ৬ আশ্বিন ১৪২৮ বঙ্গাব্দ, ১২ সফর ১৪৪৩ হিঃ

সোনারগাঁ থেকে অপহৃত শিশু ঢাকা থেকে উদ্ধার

বাংলারজমিন

সোনারগাঁ (নারায়ণগঞ্জ) প্রতিনিধি
১৪ সেপ্টেম্বর ২০২১, মঙ্গলবার

সোনারগাঁ উপজেলার মোগরাপাড়া এলাকা থেকে অপহৃত শিশু জাফনাথ সাঈদা জবাকে অপহরণের ৮ ঘণ্টা পর ঢাকার মহাখালী থেকে উদ্ধার করেছে পুলিশ। গত রোববার গভীর রাতে পুলিশ  শিশুটিকে উদ্ধারের পর তার মায়ের কোলে ফিরিয়ে দেয়। এ সময় অপহরণের ঘটনায় জড়িত কাজের মেয়ে শারমিনকেও  গ্রেপ্তার করে পুলিশ। এ ঘটনায় রাতে অপহৃত শিশু জবার বাবা জহিরুল ইসলাম বাদী হয়ে সোনারগাঁ থানায় একটি মামলা দায়ের করেছেন। গতকাল সোমবার সকালে অপহরণকারী শারমিনকে নারায়ণগঞ্জ আদালতে প্রেরণ করা হয়েছে।
পুলিশ ও এলাকাবাসী সূত্রে জানা যায়, উপজেলার মোগরাপাড়া ইউনিয়নের মোগরাপাড়া এলাকায় বসবাসরত নারায়ণগঞ্জের সরকারি তোলারাম কলেজে প্রভাষক উম্মে সালমা ও তার স্বামী মো. জহিরুল ইসলাম নারায়ণগঞ্জ আদালতের একজন আইনজীবী। স্বামী-স্ত্রী দু’জনেই কর্মজীবী হওয়ায় শিশু জবাকে দেখাশোনা করার জন্য গত ২৫-২৬ দিন আগে লালমনিরহাট থেকে শারমিন নামের এক কাজের মেয়েকে মোগরাপাড়ার ভাড়া বাসায় তারা নিয়ে আসেন। গত রোববার বেলা সাড়ে তিনটার দিকে কাজের  মেয়ে শারমিন  কৌশলে জবাকে অপহরণ করে বাড়ি থেকে নিয়ে পালিয়ে যায়।
জবাকে দীর্ঘ সময় দেখতে না পেয়ে বিষয়টি জবার মায়ের সন্দেহ হয়। তিনি বাসার আশপাশে জবাকে খুঁজে না পেয়ে জবার বাবাকে বিষয়টি অবহিত করেন। পরে জবার বাবা বিষয়টি সোনারগাঁ থানা পুলিশকে অবহিত করার পর পুলিশ ঘটনাস্থলে উপস্থিত হয়ে শিশু জবাকে উদ্ধারে মাঠে নামেন। ঘটনার পর অপহরণকারী শারমিনের মা’কে রূপগঞ্জের তারাবো বিশ্বরোড এলাকা থেকে আটক করে জিজ্ঞাসাবাদ শুরু করে পুলিশ। তার মায়ের দেয়া তথ্যের ভিত্তিতে তেজগাঁও সাততলা বস্তি এলাকায় উদ্ধার অভিযানে নামে পুলিশ। সেখানে শিশু জবাকে না পেয়ে গোপন সংবাদের ভিত্তিতে মহাখালী ফ্লাইওভারের নিচে অভিযান চালিয়ে অপহরণকারী
শারমিনকে গ্রেপ্তার করা হয়। এ সময় তার কাছ থেকে অপহৃত শিশু জবাকে উদ্ধার করা হয়।
অপহৃত শিশু জবার বাবা এডভোকেট জহিরুল ইসলাম জানান, জবাকে হারিয়ে আমরা মানসিকভাবে পুরোপুরি ভেঙে পড়ি। পুলিশের তৎপরতায় আমরা জবাকে ফিরে পেয়েছি। শিশু  জবাকে উদ্ধারে যারা সহযোগিতা করেছেন তাদের সকলের প্রতি আমরা কৃতজ্ঞ।
সোনারগাঁ থানার অফিসার ইনচার্জ (ওসি) মো. হাফিজুর রহমান বলেন, অপহৃত শিশুকে ৮ ঘণ্টা চেষ্টার পর উদ্ধার করে তার মায়ের কোলে ফিরিয়ে দেয়া হয়েছে। অপহরণকারীকে গ্রেপ্তার করা হয়েছে। এ ঘটনায় থানায় একটি মামলা হয়েছে।

অবশ্যই দিতে হবে *
অবশ্যই দিতে হবে *
অন্যান্য খবর