× প্রচ্ছদ অনলাইনপ্রথম পাতাশেষের পাতাখেলাবিনোদনএক্সক্লুসিভভারতবিশ্বজমিনবাংলারজমিনদেশ বিদেশশিক্ষাঙ্গনসাক্ষাতকাররকমারিপ্রবাসীদের কথামত-মতান্তরফেসবুক ডায়েরিবই থেকে নেয়া তথ্য প্রযুক্তি শরীর ও মন চলতে ফিরতে ষোলো আনা মন ভালো করা খবরকলকাতা কথকতাখোশ আমদেদ মাহে রমজানস্বাধীনতার সুবর্ণ জয়ন্তীসেরা চিঠি
ঢাকা, ২১ সেপ্টেম্বর ২০২১, মঙ্গলবার , ৬ আশ্বিন ১৪২৮ বঙ্গাব্দ, ১২ সফর ১৪৪৩ হিঃ

বাংলাদেশ শীর্ষ ৫ সহনশীল অর্থনীতির দেশ: অর্থমন্ত্রী

অনলাইন

অনলাইন ডেস্ক
(১ সপ্তাহ আগে) সেপ্টেম্বর ১৩, ২০২১, সোমবার, ৯:১৬ অপরাহ্ন

মহামারির প্রতিকূলতার মধ্যেও বাংলাদেশ শীর্ষ পাঁচটি সহনশীল অর্থনীতির মধ্যে থাকার কথা জানিয়েছেন অর্থমন্ত্রী আ হ ম মুস্তফা কামাল।

আজ অর্থমন্ত্রী 'কমনওয়েলথ ট্রেড অ্যান্ড ইনভেস্টমেন্ট সামিট ২০২১'-এ দেয়া বক্তব্যে এই তথ্য জানান। একাধিক আন্তর্জাতিক প্রতিষ্ঠানের জরিপে বাংলাদেশের অর্থনীতির এই অবস্থানে উঠে আসার তথ্য দেন তিনি।

সম্মেলনে কমনওয়েলথভুক্ত দেশগুলোর মধ্যে বাণিজ্য ও বিনিয়োগ বৃদ্ধি করে ক্ষতিগ্রস্ত অর্থনীতির পুনরুদ্ধারের উপায় এবং পথ খুঁজে বের করার চেষ্টা করছেন বিভিন্ন দেশের নেতারা।

বক্তৃতায় অর্থমন্ত্রী বলেন, ২০২০ সালের আইএমএফ-এর অক্টোবরের রিপোর্ট অনুযায়ী, বিশ্ব অর্থনীতিতে গড় ৪.৪ শতাংশের নেতিবাচক প্রবৃদ্ধি দেখা যায়। এ সময় অতি অল্প কয়েকটি ইতিবাচক প্রবৃদ্ধির অর্থনীতির মধ্যে বাংলাদেশ অন্যতম।

অর্থমন্ত্রী আরও বলেন, আমরা সবাই জানি কোভিড-১৯ এর কারণে গত বছর বৈশ্বিক অর্থনীতি ৩ শতাংশ সংকুচিত হয়েছে। কমনওয়েলথভুক্ত দেশগুলোর অর্থনীতি সংকুচিত হয়েছে প্রায় ১০ শতাংশ, যা বৈশ্বিক বাণিজ্য ও বিনিয়োগ হ্রাসের অন্যতম প্রধান কারণ।

জাতিসংঘের বাণিজ্য ও উন্নয়ন বিষয়ক সংস্থা-আঙ্কটাডের একটি প্রতিবেদনে ইঙ্গিত করা হয়েছে যে, ২০২০ সালে বৈশ্বিক সরাসরি বৈদেশিক বিনিয়োগ কমেছে ৪২ শতাংশ। আর এশিয়া এবং প্রশান্ত মহাসাগরীয় অঞ্চলের কমনওয়েলথ অর্থনীতি ৫০ শতাংশের বেশি ক্ষতিগ্রস্ত হয়েছে। এই পটভূমিতে, কমনওয়েলথভুক্ত দেশগুলোর বাণিজ্য এবং বিনিয়োগ উভয় ক্ষেত্রেই একটি শক্তিশালী পুনরুদ্ধারের পথ খুঁজে বের করাই আমাদের এই সভার মহৎ উদ্দেশ্য।

সভায় কমনওয়েলথ ট্রেড অ্যান্ড ইনভেস্টমেন্ট কাউন্সিলের চেয়ারম্যান লর্ড মারল্যান্ড এবং যুক্তরাজ্যের আন্তর্জাতিক বাণিজ্য বিষয়ক মন্ত্রী এবং বাণিজ্য বোর্ডের সভাপতি এলিজাবেথ ট্রাস এমপিসহ আরও বিশিষ্ট ব্যক্তিবর্গ বক্তব্য প্রদান করেন। তারা সবাই কমনওয়েলথভুক্ত দেশগুলোর মধ্যে বাণিজ্য ও বিনিয়োগ বৃদ্ধি করে ক্ষতিগ্রস্ত অর্থনীতি পুনরুদ্ধারের উপায় এবং পথ খুঁজে বের করতে একসঙ্গে কাজ করার আশা প্রকাশ করেন।।

অবশ্যই দিতে হবে *
অবশ্যই দিতে হবে *
পাঠকের মতামত
**মন্তব্য সমূহ পাঠকের একান্ত ব্যক্তিগত। এর জন্য সম্পাদক দায়ী নন।
হামিম
১৪ সেপ্টেম্বর ২০২১, মঙ্গলবার, ১০:০০

দেশের অর্ধেকের বেশী মানুষ ভীষন আর্থিক কষ্টে জীবন যাপন করছে অথচ এইসব রির্পোট নিয়ে সরকার বগল বাজাচ্ছে সমানে। প্রতিটি জিনিষের দাম যেভাবে বেড়েছে তাতে মানুষজন খুব অসহায় হয়ে পড়ছে।

মাহমুদ
১৩ সেপ্টেম্বর ২০২১, সোমবার, ৮:৫৩

কিসের ভিত্তিতে এসব রিপোর্ট তৈরী করা হয় আর কে এসব করে ! সহনশীল আবার কি? এত মানুষের কর্ম হারানো,এত দূর্নীতির পরেও এই অবস্থা? তাহলে তো আরও দূর্নীতি করা যায়!

Liton
১৩ সেপ্টেম্বর ২০২১, সোমবার, ৮:৪৬

এয়ারপোর্টে পি সি আর মেশিন কবে বসবে একটু বলতে পারেন?

অন্যান্য খবর