× প্রচ্ছদ অনলাইনপ্রথম পাতাশেষের পাতাখেলাবিনোদনএক্সক্লুসিভভারতবিশ্বজমিনবাংলারজমিনদেশ বিদেশশিক্ষাঙ্গনসাক্ষাতকাররকমারিপ্রবাসীদের কথামত-মতান্তরফেসবুক ডায়েরিবই থেকে নেয়া তথ্য প্রযুক্তি শরীর ও মন চলতে ফিরতে ষোলো আনা মন ভালো করা খবরকলকাতা কথকতাখোশ আমদেদ মাহে রমজানস্বাধীনতার সুবর্ণ জয়ন্তীসেরা চিঠি
ঢাকা, ২৮ সেপ্টেম্বর ২০২১, মঙ্গলবার , ১৩ আশ্বিন ১৪২৮ বঙ্গাব্দ, ১৯ সফর ১৪৪৩ হিঃ

আফগান প্রেসিডেন্সিয়াল প্রাসাদে তালেবান নেতাদের বাকযুদ্ধ

বিশ্বজমিন

মানবজমিন ডেস্ক
(১ সপ্তাহ আগে) সেপ্টেম্বর ১৫, ২০২১, বুধবার, ৯:৪৫ পূর্বাহ্ন

নতুন সরকার গঠন নিয়ে কাবুলে প্রেসিডেন্সিয়াল প্রাসাদের ভিতরে তালেবান নেতাদের মধ্যে তীব্র উত্তেজনা ছড়িয়ে পড়ে। তা নিয়ে শুরু হয় বাকযুদ্ধ। তাদেরই সিনিয়র কয়েকজন কর্মকর্তা এ কথা বলেছেন বিবিসি’কে। তারা বলেছেন, তালেবানের সহপ্রতিষ্ঠাতা মোল্লা আবদুল গণি বারাদার গ্রুপ এবং মন্ত্রীপরিষদের এক সদস্যের মধ্যে দেখা দেয় ওই উত্তেজনা। সাম্প্রতিক সময়ে জনগণের দৃষ্টির আড়ালে ছিলেন মোল্লা আবদুল গণি বারাদার। এ নিয়ে তালেবান নেতাদের মধ্যে মতবিরোধ দেখা দেয়। রিপোর্ট প্রকাশিত হয়েছে যে, তিনি মারা গেছেন। কিন্তু তালেবানরা আনুষ্ঠানিকভাবে এ রিপোর্ট প্রত্যাখ্যান করেন।


গত মাসে আফগানিস্তানের ক্ষমতা কেড়ে নেয় তালেবানরা। তারপর তারা দেশটিকে ‘ইসলামিক এমিরেট’ ঘোষণা করে। নতুন যে অন্তর্বর্তী বা তত্ত্বাবধায়ক সরকারের মন্ত্রীসভা গঠন করা হয়েছে তাতে পুরোটাই পুরুষ এবং তালেবানদের সিনিয়র নেতা। এমনকি গত দুই দশকে যুক্তরাষ্ট্রের সেনাদের বিরুদ্ধে হামলায় যারা জড়িত এমন কয়েকজন নেতাও আছেন। তাদের কারো কারো বিরুদ্ধে এফবিআইয়ের ওয়ারেন্ট আছে।

তালেবানের একটি সূত্র বিবিসিকে বলেছেন, আবদুল গণি বারাদারের সঙ্গে শরণার্থী বিষয়ক মন্ত্রী খলিলুর রহমান হাক্কানির উত্তপ্ত বাক্য বিনিময় হয়েছে। এ নিয়ে উভয়ের সমর্থকদের মধ্যে শুরু হয় বাকযুদ্ধ। তালেবান সিনিয়র সদস্য এবং এ ঘটনার সঙ্গে জড়িত কাতারে অবস্থানরত একটি সূত্র ঘটনার সত্যতা স্বীকার করেছেন। তিনি বলেছেন, গত সপ্তাহে ওই বিতণ্ডার সৃষ্টি হয়। তিনি বলেছেন, অন্তর্বর্তী সরকারের কাঠামো নিয়ে অসন্তুষ্ট ছিলেন উপপ্রধানমন্ত্রী আবদুল গণি বারাদার। তা নিয়েই বাক্য বিনিময় হতে থাকে। এক পর্যায়ে আফগানিস্তানে বিজয়ের জন্য তালেবানের কাকে কৃতীত্ব দেয়া হবে এ নিয়ে উত্তপ্ত বাক্য বিনিময় হয়।

উল্লেখ্য, যুক্তরাষ্ট্রের সাবেক প্রেসিডেন্ট ডনাল্ড ট্রাম্পের সঙ্গে প্রথম সরাসরি তালেবান নেতা হিসেবে যোগাযোগ প্রতিষ্ঠা করেন আবদুল গণি বারাদার। সে ২০২০ সালের ঘটনা। তারপর কাতারের রাজধানী দোহায় মার্কিন সেনা প্রত্যাহার নিয়ে চুক্তি স্বাক্ষর হয়।

অবশ্যই দিতে হবে *
অবশ্যই দিতে হবে *
পাঠকের মতামত
**মন্তব্য সমূহ পাঠকের একান্ত ব্যক্তিগত। এর জন্য সম্পাদক দায়ী নন।
samsulislam
১৫ সেপ্টেম্বর ২০২১, বুধবার, ২:৩৪

গর্দভ

Golam Soroar
১৫ সেপ্টেম্বর ২০২১, বুধবার, ৩:০৯

ছাগল দিয়ে হাল চাষ হয়না, তালেবান বুঝবে কবে?

আলামিন
১৪ সেপ্টেম্বর ২০২১, মঙ্গলবার, ১০:১০

ফালতু খবর।

Kazi
১৪ সেপ্টেম্বর ২০২১, মঙ্গলবার, ৯:২৮

গদি দখল যত সহজ চালানো তত সহজ নয় । এই শুরু হল স্বার্থের হানাহানি ও প্রভাব বিস্তার নিয়ে দন্ধ । একদিন হয়তো বাকযুদ্ধ রূপ নিবে অস্ত্র যুদ্ধে । তাও বিচিত্র নয়।

অন্যান্য খবর