× প্রচ্ছদ অনলাইনপ্রথম পাতাশেষের পাতাখেলাবিনোদনএক্সক্লুসিভভারতবিশ্বজমিনবাংলারজমিনদেশ বিদেশশিক্ষাঙ্গনসাক্ষাতকাররকমারিপ্রবাসীদের কথামত-মতান্তরফেসবুক ডায়েরিবই থেকে নেয়া তথ্য প্রযুক্তি শরীর ও মন চলতে ফিরতে ষোলো আনা মন ভালো করা খবরকলকাতা কথকতাখোশ আমদেদ মাহে রমজানস্বাধীনতার সুবর্ণ জয়ন্তীসেরা চিঠি
ঢাকা, ২৩ অক্টোবর ২০২১, শনিবার , ৮ কার্তিক ১৪২৮ বঙ্গাব্দ, ১৫ রবিউল আউয়াল ১৪৪৩ হিঃ

চীনকে মোকাবিলায় একজোট যুক্তরাষ্ট্র, বৃটেন, অস্ট্রেলিয়া

বিশ্বজমিন

মানবজমিন ডেস্ক
(১ মাস আগে) সেপ্টেম্বর ১৬, ২০২১, বৃহস্পতিবার, ১:৪১ অপরাহ্ন

চীনকে মোকাবিলায় আধুনিক প্রতিরক্ষা প্রযুক্তি শেয়ার করার একটি বিশেষ নিরাপত্তা চুক্তি ঘোষণা করেছে বৃটেন, যুক্তরাষ্ট্র ও অস্ট্রেলিয়া। এই অংশীদারিত্বের ফলে প্রথমবারের মতো পারমাণবিক শক্তিচালিত সাবমেরিন বা ডুবোজাহাজ তৈরিতে সক্ষম হবে অস্ট্রেলিয়া। এই চুক্তির আওতায় থাকবে কৃত্রিম গোয়েন্দা, কোয়ান্টাম প্রযুক্তি এবং সাইবার দুনিয়া। চুক্তিটি পরিচিত হবে আউকাস নামে। এ খবর দিয়েছে অনলাইন বিবিসি। এতে আরো বলা হয়, ইন্দো-প্যাসিফিক অঞ্চলে চীন ক্রমবর্ধমান হারে শক্তি ও সামরিক উপস্থিতি বৃদ্ধি করছে। এ নিয়ে ওই তিনটি দেশ উদ্বিগ্ন। এই চুক্তির ফলে ফ্রান্সের ডিজাইন করা সাবমেরিন তৈরির একটি চুক্তি বাতিল করেছে অস্ট্রেলিয়া।
২০১৬ সালে অস্ট্রেলিয়ার নৌবাহিনীর জন্য ৫০০০ কোটি অস্ট্রেলিয়ান ডলারের বিনিময়ে ১২টি সাবমেরিন নির্মাণের চুক্তি পায় ফ্রান্স। এটাই ছিল অস্ট্রেলিয়ার এযাবতকালের সবচেয়ে বড় প্রতিরক্ষা বিষয়ক চুক্তি। কিন্তু এই প্রকল্পের কাজ অনেক বিলম্ব হয়। কারণ, ক্যানবেরা চাইছিল বেশির ভাগ উপাদান হতে হবে স্থানীয়ভাবে প্রাপ্ত। বুধবার আউকাস নামের নতুন নিরাপত্তা চুক্তি বিষয়ে যৌথ বিবৃতি প্রকাশ করেন যুক্তরাষ্ট্রের প্রেসিডেন্ট জো বাইডেন, বৃটিশ প্রধানমন্ত্রী বরিস জনসন এবং অস্ট্রেলিয়ার প্রধানমন্ত্রী স্কট মরিসন। এতে বলা হয়, আউকাস চুক্তির অধীনে প্রথম পদক্ষেপ হিসেবে আমরা অস্ট্রেলিয়ান রয়েল নেভিকে পারমাণবিক শক্তিচালিত সাবমেরিন তৈরিতে তাদের উচ্চাভিলাষের প্রতি সমর্থন দিতে প্রতিশ্রুতিবদ্ধ। এর ফলে ইন্টো-প্যাসিফিক অঞ্চলে স্থিতিশীলতা আসবে। এসব সাবমেরিন মোতায়েন করা হবে আমাদের অভিন্ন মর্যাদা এবং স্বার্থে।

অবশ্যই দিতে হবে *
অবশ্যই দিতে হবে *
অন্যান্য খবর