× প্রচ্ছদ অনলাইনপ্রথম পাতাশেষের পাতাখেলাবিনোদনএক্সক্লুসিভভারতবিশ্বজমিনবাংলারজমিনদেশ বিদেশশিক্ষাঙ্গনসাক্ষাতকাররকমারিপ্রবাসীদের কথামত-মতান্তরফেসবুক ডায়েরিবই থেকে নেয়া তথ্য প্রযুক্তি শরীর ও মন চলতে ফিরতে ষোলো আনা মন ভালো করা খবরকলকাতা কথকতাখোশ আমদেদ মাহে রমজানস্বাধীনতার সুবর্ণ জয়ন্তীসেরা চিঠি
ঢাকা, ১৮ অক্টোবর ২০২১, সোমবার , ৩ কার্তিক ১৪২৮ বঙ্গাব্দ, ১০ রবিউল আউয়াল ১৪৪৩ হিঃ

দশমিনায় ছাত্রলীগ নেতাকে কুপিয়ে হত্যা

বাংলারজমিন

দশমিনা (পটুয়াখালী) প্রতিনিধি
১৯ সেপ্টেম্বর ২০২১, রবিবার

দশমিনা উপজেলার বেতাগী সানকিপুর ইউনিয়ন ছাত্রলীগের সাবেক যুগ্ম সাধারণ সম্পাদক ও স্থানীয় শিক্ষক আব্দুস সাত্তারের ছেলে রাকিব হোসাইন (২৪) কে প্রকাশ্যে কুপিয়ে হত্যার ঘটনায় আসামিদের বিরুদ্ধে অব্যাহত হুমকির অভিযোগ করেছেন রাকিবের শিক্ষক পিতা মো. আব্দুস সাত্তার। গতকাল মানবজমিনের সঙ্গে একান্ত সাক্ষাৎকারে তিনি এসব অভিযোগ করেন। ২০১৮ সালের ১৯ই সেপ্টেম্বর প্রতিপক্ষরা রাকিবকে প্রকাশ্যে কুপিয়ে হত্যা করে। রাকিবের পিতা আব্দুস সাত্তার আরও বলেন, রাকিব হত্যার ঘটনায় তিনি বাদী হয়ে দশমিনা থানায় ৯ জনকে আসামি করে হত্যা মামলা দায়ের করেন। রাকিব হত্যার আসামিদের গ্রেপ্তার ও দৃষ্টান্তমূলক শাস্তির দাবিতে দশমিনা উপজেলা আওয়ামী লীগ, ছাত্রলীগ বিক্ষোভ মিছিল মানববন্ধনসহ বিভিন্ন কর্মসূচি পালন করে। এঘটনার পর থেকে আসামিদের পক্ষ থেকে অব্যাহত হুমকি-ধমকি দেয়া শুরু হয় রাকিবের বাবা আব্দুস সাত্তার ও তার পরিবারকে। আব্দুস সাত্তার অভিযোগ করে বলেন, রাকিব হত্যা মামলার সাক্ষীদেরকেও হুমকি-ধমকি দেয়া অব্যাহত রেখেছে হত্যাকারীরা। হুমকির ঘটনায় দশমিনা থানায় পৃথক দু’টি সাধারণ ডায়রি করেছেন রাকিবের বাবা আব্দুস সাত্তার।
রাকিব হত্যা মামলার আসামিরা বর্তমানে আদালতের মাধ্যমে জামিনে রয়েছে।  ২০১৯ সালের ৩০শে জুন রাকিব হত্যা মামলা থেকে ৩ জনকে অব্যাহতি দিয়ে বাকি ৬ জনের বিরুদ্ধে আদালতে চার্জশিট দাখিল করে দশমিনা থানা পুলিশ। ওই চার্জশিটের বিরুদ্ধে ক্ষুব্ধ হয়ে আব্দুস সাত্তার ২০১৯ সালের ২৫শে জুলাই স্বরাষ্ট্র মন্ত্রণালয়ে লিখিত আভিযোগ করেছিলেন। বর্তমানে পটুয়াখালী জেলা জজ আদালতে রাকিব হত্যা মামলার বিচার কার্যক্রম চলমান রয়েছে।  
২০১৮ সালের ১৯শে সেপ্টেম্বর বুধবার রাতে বাড়ি ফেরার পথে পার্শ্ববর্তী বাড়ির আব্দুর রব ডাক্তার গংরা রাকিবের ওপর অতর্কিত হামলা চালিয়ে কুপিয়ে রক্তাক্ত জখম করে এতে ঘটনাস্থলেই রাকিবের মৃত্যু হয়। এঘটনায় নিহত রাকিবের বাবা শিক্ষক আব্দুস সাত্তার ৯ জনকে আসামি করে দশমিনা থানায় একটি হত্যা মামলা দায়ের করেন। অভিযোগের ব্যাপারে রাকিব হত্যা মামলার আসামি আব্দুর রব ডাক্তার বলেন, হুমকি দেয়ার ঘটনা সম্পূর্ণ মিথ্যা ও বানোয়াট। দশমিনা থানার ওসি মো. জসীম বলেন, হুমকির ঘটনা তদন্তে সত্যতা পাওয়া যায়নি তবে উনি আবার অভিযোগ দিলে বিষয়টি আবারো তদন্ত করে দেখা হবে। আজ রোববার রাকিব হত্যার চতুর্থ মৃত্যুবার্ষিকী উপলক্ষে রাকিবের পরিবার ও রাকিব স্মৃতি সংসদের পক্ষ থেকে দোয়া মিলাদ ও আলোচনা সভাসহ বিভিন্ন কর্মসূচি পালন করা হবে।   

অবশ্যই দিতে হবে *
অবশ্যই দিতে হবে *
অন্যান্য খবর