× প্রচ্ছদ অনলাইনপ্রথম পাতাশেষের পাতাখেলাবিনোদনএক্সক্লুসিভভারতবিশ্বজমিনবাংলারজমিনদেশ বিদেশশিক্ষাঙ্গনসাক্ষাতকাররকমারিপ্রবাসীদের কথামত-মতান্তরফেসবুক ডায়েরিবই থেকে নেয়া তথ্য প্রযুক্তি শরীর ও মন চলতে ফিরতে ষোলো আনা মন ভালো করা খবরকলকাতা কথকতাখোশ আমদেদ মাহে রমজানস্বাধীনতার সুবর্ণ জয়ন্তীসেরা চিঠি
ঢাকা, ১৮ অক্টোবর ২০২১, সোমবার , ৩ কার্তিক ১৪২৮ বঙ্গাব্দ, ১০ রবিউল আউয়াল ১৪৪৩ হিঃ
কানাডায় ফেডারেল নির্বাচন আজ

৮ কানাডিয়ান-বাংলাদেশি কি চমক দেখাতে পারবেন?

অনলাইন

দীন ইসলাম, কানাডা (টরেন্টো) থেকে
(৩ সপ্তাহ আগে) সেপ্টেম্বর ২০, ২০২১, সোমবার, ১১:৪৭ পূর্বাহ্ন

কানাডায় আজ আগাম ফেডারেল নির্বাচন। কে আসবেন ক্ষমতায় এনিয়ে চলছে চুলচেরা বিশ্লেষণ। সব জরিপে এগিয়ে রয়েছে জাস্টিন ট্টুডোর নেতৃত্বাধীন লিবারেল পার্টি। এবারের ফেডারেল নির্বাচনে কানাডার চারটি দল থেকে আট জন কানাডিয়ান-বাংলাদেশি প্রার্থী হয়েছেন। এর আগে কানাডার জাতীয় কোনো নির্বাচনে এত বাংলাদেশি কানাডিয়ানকে নির্বাচন করতে দেখা যায়নি। কানাডিয়ান বাংলাদেশি প্রার্থীদের মধ্যে মূলধারার রাজনৈতিক দল লিবারেল থেকে একজন, কনজারভেটিভ পার্টি থেকে দুই জন, এনডিপি থেকে চার জন এবং একজন গ্রিন পার্টি থেকে মনোনয়ন পেয়েছেন। কানাডিয়ান বাংলাদেশি প্রার্থীদের মধ্যে অন্টারিও প্রদেশের অশোয়া আসনে ক্ষমতাসীন দল লিবারেল থেকে আফরোজা হোসেন, টরন্টোর স্কারবোরো সাউথ-ওয়েস্ট আসনে কনজারভেটিভ পার্টি থেকে মহসিন ভূইয়া, এনডিপি থেকে স্কারবোরো সেন্টার আসনে ফাইজ কামাল, আলবাট্রার আসনে এনডিপি থেকে খালিস আহমেদ তমাল, ক্যালগরি থেকে এনডিপির গুলশান আক্তার, মেট্রো ভ্যাঙ্কুভারের সোরি-নিউটন আসনে কনজারভেটিভ পার্টির সৈয়দ মহসিন, অন্টারিও প্রদেশের অশোয়া আসনে গ্রিন পার্টি থেকে সানী মীর এবং আলবাট্টার নায়গ্রা ওয়েস্ট আসনে এনডিপি থেকে নামির রহমান মনোনয়ন পেয়েছেন। টরন্টোর স্কারবোরো সাউথ-ওয়েস্ট আসনে কনজার্ভেটিভ পার্টি থেকে মনোনয়ন পাওয়া মহসিন ভূইয়া মানবজমিনকে জানান, ভারত ও শ্রীলঙ্কার কমিউনিটি অনেক এগিয়ে যাচ্ছে।
ইমিগ্রেশনের ক্ষেত্রে তারা নানা সুবিধা পাচ্ছে। দলের পরিচয়ের বাইরে আমি একজন কানাডিয়ান বাংলাদেশি হিসেবে সবার কাছে ভোট চাই। আশা করছি বাঙ্গালী ভাইয়েরা আমাকে বিমুখ করবেন না। কনজারভেটিভ দলের আরেক প্রার্থী সৈয়দ মহসিন ঢাকার মিরপুরের সাবেক সাংসদ এবং ঢাকা সিটির ডেপুটি মেয়র এস এ খালেকের পুত্র। সৈয়দ মহসিন ১৯৯৩ সালে্র উপ-নির্বাচনে সাংসদ নির্বাচিত হয়েছিলেন। প্রয়াত হারুন মোল্লার শূন্য আসনের উপ-নির্বাচনে তিনি কামাল মজুমদারকে হারিয়ে বিজয় অর্জন করেন। তিনি বলেন, কানাডায় প্রথম নির্বাচন করলেও আমার রক্তে মিশে আছে রাজনীতি। ছাত্রজীবন থেকে রাজনীতি করেছি, উচ্চতর পড়াশোনা করেছি আমেরিকায়। এসব অভিজ্ঞতা এবার কাজে লাগাবো। আমার এলাকা সোরি-নিউটনের বর্তমান এম পি লিবারেল পার্টি একজন শিখ। চারবার নির্বাচিত হয়ে এখন নানা কারণে তিনি বিতর্কিত। ফলে শিখ সম্প্রদায়ের ভোটারেরা আমাকে সমর্থন দিচ্ছেন। আরেক কানাডিয়ান- বাংলাদেশি নামির রহমান এনডিপি থেকে এবারও নির্বাচন করছেন। এ নিয়ে তিনি তৃতীয়বারের মতো নির্বাচন করছেন। তিনি ২৫ বছর যাবৎ কানাডায় বসবাস করছেন। কানাডায় পলিটিক্যাল সায়েন্সে তিনি পড়াশোনা করেছেন। গ্রিন পার্টি থেকে অশোয়া আসনে মনোনয়ন পেয়েছেন সানী মীর। তিনি মা–বাবার সঙ্গে ইমিগ্রেশন নিয়ে কানাডায় আসেন। কানাডার ইয়র্ক ইউনিভার্সিটিতে তিনি পড়াশোনা করেন। এর আগে তিনি এ আসনের একটি এলাকা থেকে কাউন্সিলর নির্বাচন করেছিলেন। সাধারণ বাঙ্গালীরা বলছেন, এবারের ফেডারেল নির্বাচনে কি চমক দেখাতে পারবেন আট বাংলাদেশি কানাডিয়ান? আজকের পরই সব খোলাসা হবে।

অবশ্যই দিতে হবে *
অবশ্যই দিতে হবে *
পাঠকের মতামত
**মন্তব্য সমূহ পাঠকের একান্ত ব্যক্তিগত। এর জন্য সম্পাদক দায়ী নন।
nam nai
২০ সেপ্টেম্বর ২০২১, সোমবার, ৪:৪৪

These candidates should ask current BD govt how to win election without Voter ( Casting ballot the night before ). They should import this Technology from Bangladesh . Ha Ha.

Kazi
১৯ সেপ্টেম্বর ২০২১, রবিবার, ১১:০০

মন্তব্য নিষ্প্রয়োজন । লিবারেল পার্টি যেখানে অগ্রসর সেখনে একমাত্র ঐ পার্টির মনোনীত প্রার্থীর আশা করা যেতে পারে । বাকিরা অনেকেই শুধু বাহাদুরি করার জন্য........

অন্যান্য খবর