× প্রচ্ছদ অনলাইনপ্রথম পাতাশেষের পাতাখেলাবিনোদনএক্সক্লুসিভভারতবিশ্বজমিনবাংলারজমিনদেশ বিদেশশিক্ষাঙ্গনসাক্ষাতকাররকমারিপ্রবাসীদের কথামত-মতান্তরফেসবুক ডায়েরিবই থেকে নেয়া তথ্য প্রযুক্তি শরীর ও মন চলতে ফিরতে ষোলো আনা মন ভালো করা খবরকলকাতা কথকতাখোশ আমদেদ মাহে রমজানস্বাধীনতার সুবর্ণ জয়ন্তীসেরা চিঠি
ঢাকা, ১৯ অক্টোবর ২০২১, মঙ্গলবার , ৪ কার্তিক ১৪২৮ বঙ্গাব্দ, ১১ রবিউল আউয়াল ১৪৪৩ হিঃ
এহসান গ্রুপের প্রতারণা

৭ দিনের রিমান্ড শেষে রাগীব আহসানকে কারাগারে প্রেরণ

দেশ বিদেশ

পিরোজপুর প্রতিনিধি
২২ সেপ্টেম্বর ২০২১, বুধবার

গ্রাহকদের টাকা আত্মসাৎ ও প্রতারণার মামলায় মাল্টিপারপাস কোম্পানি এহসান গ্রুপের ব্যবস্থাপনা পরিচালক মুফতি মাওলানা রাগীব আহসানকে ৭ দিনের রিমান্ড শেষে কারাগারে প্রেরণ করেছে আদালত। এ সময়  তার ৩ ভাই মাওলানা আবুল বাশার, মো. খাইরুল ইসলাম ও মুফতি মাহমুদুল হাসানকেও জেল হাজতে পাঠানো হয়। গতকাল সকালে পিরোজপুর অতিরিক্ত চিফ জুডিশিয়াল ম্যাজিস্ট্রেট আদালতে আসামিদের হাজির করা হলে বিচারক আসামিদের জেল হাজতে প্রেরণ করেন। এদিকে, এহসান গ্রুপের ব্যবস্থাপনা পরিচালক মুফতি মাওলানা রাগীব আহসানকে আদালতে আনার কথা শুনে কয়েক শতাধিক গ্রাহক ও কোম্পানির এফও আদালত চত্বরে ভিড় করেন। গ্রাহকদের দাবি তারা তাদের পাওনা টাকা ফেরত পেতে চান। মামলার তদন্ত কর্মকর্তা মনিরুল ইসলাম জানান, অর্থ আত্মসাৎ ও প্রতারণার মামলায় রাগীব আহসান ও তার ভাইদের আদালতের নির্দেশে ৭ দিনের জিজ্ঞাসাবাদ শেষে আদালতে প্রেরণ করা হয়েছে। তদন্তে আসামিদের থেকে কিছু চাঞ্চল্যকর তথ্য পাওয়া গেলেও তদন্তের স্বার্থে প্রাপ্ত তথ্য প্রকাশ করা সম্ভব হচ্ছে না। এ বিষয়ে অতিরিক্ত পুলিশ সুপার (অপরাধ ও প্রশাসন) মোল্লা আজাদ হোসেন জানান, এহসান গ্রুপের বিরুদ্ধে দায়েরকৃত মামলা সিআইডি তদন্ত করবে।
ঊর্ধ্বতন কর্তৃপক্ষের নির্দেশে মামলার তদন্তের দায়িত্ব সিআইডিকে দেয়া হয়েছে। আদালতের নির্দেশে জিজ্ঞাসাবাদে রাগীব আহসান ও তার ৪ ভাইয়ের থেকে বেশকিছু গুরুত্বপূর্ণ ও চাঞ্চল্যকর তথ্য পাওয়া গেছে। তদন্তের স্বার্থে এই মুহূর্তে সব কিছু জানানো সম্ভব নয়।
উল্লেখ্য, গত ১৪ই সেপ্টেম্বর মঠবাড়িয়া উপজেলার তুষখালী এলাকার মো. মনির বাদী হয়ে ৩ লাখ ৩৯ হাজার ২০০ টাকা আত্মসাৎ ও প্রতারণা মামলা দয়ের করেন। এর আগের রাতে একই উপজেলার ছোটশৌলা গ্রামের আবুল হোসেন বাদী হয়ে ১৭ লাখ ৫০ হাজার টাকা আত্মসাতের দায়ে মামলা দায়ের করেন। পিরোজপুরে শেষ দুটি মামলা সহ এহসান গ্রুপের ব্যবস্থাপনা পরিচালক মুফতি মাওলানা রাগীব আহসান ও তার ৩ ভাইয়ে নামে মোট ৫টি মামলা দায়ের করা হয়েছে। ১০ই সেপ্টেম্বর সদর উপজেলার কুমারখালী এলাকার মো. হেমায়েত উদ্দিন বাদী হয়ে সদর থানায় ২ কোটি ৫৭ লাখ ৪০ হাজার টাকা আত্মসাতের অভিযোগে মামলা দায়ের করেন। একই দিনে সদর উপজেলার শিকারপুর এলাকার মো. আব্দুল মালেক বাদী হয়ে ২ লাখ ৭৫ হাজার ২০০ টাকা আত্মসাতের অভিযোগে মামলা দায়ের করেন। ১৩ই সেপ্টেম্বর পিরোজপুরের অতিরিক্ত চিফ জুডিশিয়াল ম্যাজিষ্ট্রেট আদালতের বিচারক মো. মহিউদ্দীনের আদালতে এহসান গ্রুপের ব্যবস্থাপনা পরিচালক মুফতি মাওলানা রাগীব আহসান ও তার ৩ ভাইকে ৯১ কোটি ১৫ লাখ ৫৫ হাজার ৯৩৩ টাকার আত্মসাৎ মামলায় ৭ দিনের রিমান্ডের আদেশ দিয়েছিলেন আদালত। এ মামলার বাদী ছিল তেজদাসকাঠী এলাকার হারুন অর রশিদ।

অবশ্যই দিতে হবে *
অবশ্যই দিতে হবে *
অন্যান্য খবর