× প্রচ্ছদ অনলাইনপ্রথম পাতাশেষের পাতাখেলাবিনোদনএক্সক্লুসিভভারতবিশ্বজমিনবাংলারজমিনদেশ বিদেশশিক্ষাঙ্গনসাক্ষাতকাররকমারিপ্রবাসীদের কথামত-মতান্তরফেসবুক ডায়েরিবই থেকে নেয়া তথ্য প্রযুক্তি শরীর ও মন চলতে ফিরতে ষোলো আনা মন ভালো করা খবরকলকাতা কথকতাখোশ আমদেদ মাহে রমজানস্বাধীনতার সুবর্ণ জয়ন্তীসেরা চিঠি
ঢাকা, ১৬ অক্টোবর ২০২১, শনিবার , ১ কার্তিক ১৪২৮ বঙ্গাব্দ, ৮ রবিউল আউয়াল ১৪৪৩ হিঃ
আলাপন

পূজার সঙ্গে রসায়নটা বেশ জমেছে -এবিএম সুমন

বিনোদন

মাজহারুল তামিম
২২ সেপ্টেম্বর ২০২১, বুধবার

২০১৭ সালে ‘ঢাকা অ্যাটাক’-এ পুলিশ অফিসার ‘আশফাক’ চরিত্রটি দিয়ে দর্শকদের নজর কেড়েছিলেন ঢালিউড অভিনেতা এবিএম সুমন। এরপর তিনি নিয়মিতই কাজ করে যাচ্ছেন। নিজেকে প্রস্তুত করে ছুটে চলছেন আপন গতিতে। তার হাতে রয়েছে বেশকিছু মানসম্মত সিনেমা। সদ্য শেষ করেছেন 'হৃদিতা' সিনেমার শুটিং। সুনামগঞ্জের টাঙ্গুয়ার হাওরে গানের শুটিংয়ের মাধ্যমে তার এই সিনেমার কাজ শেষ হয়। পরিচালক ইস্পাহানি আরিফ জাহানের পরিচালনায় অবশেষে তো 'হৃদিতা'র কাজ শেষ করলেন। অভিজ্ঞতা কেমন ছিল? সুমন বলেন, 'হৃদিতা'য় অভিনয় করে খুব ভালো লেগেছে।
এখানে একজন পেইন্টাররের চরিত্রে অভিনয় করেছি। এই চরিত্রটি আমার জন্য একদমই নতুন ছিল। পুরোপুরি প্রেমের গল্প, ট্রাজেডিও আছে। আশা করি এটি মুক্তি পেলে সবাই পছন্দ করবে ইনশাআল্লাহ। পূজার সঙ্গে এই সিনেমায় প্রথমবার কাজ করলেন। রসায়নটা কেমন ছিল? এ নায়ক বলেন, পূজার সঙ্গে রসায়নটা বেশ জমেছে আসলে। আমার কাছে মনে হয়েছে দুটি চরিত্র মার্চ করতে পেরেছে ঠিকঠাক মতো। ভীষণ আশাবাদী আমাদের জুটি নিয়ে। এরপর কোন সিনেমার কাজ করবেন? এবিএম সুমন বলেন, 'অন্তর্জাল'র আমার অংশের কিছু কাজ বাকি আছে। এই সিনেমার শুটিংয়ে অংশ নেব এরপর। এদিকে সুঠাম দেহের এ নায়কের ‘ভ্রমর’, ‘দাহকাল’, ‘গিরগিটি’ ও 'এম আর নাইন' নামের চারটি সিনেমার কাজ করোনার কারণে থমকে আছে। হাতে থাকা এই সিনেমাগুলোর কী অবস্থা? উত্তরে তিনি বলেন, এই সিনেমাগুলোর কাজ অনেক আগেই হওয়ার কথা। কিন্তু করোনা এবং নানা জটিলতায় বারবার পিছিয়ে যাচ্ছে। খুব শিগগিরই ধীরে ধীরে কাজ শুরু হবে। এরমধ্যে 'দাহকাল'র কাজটা করবো নভেম্বরে। এমনই পরিকল্পনা। আর 'এম আর নাইন' এ বিদেশী শিল্পী আছে, তারা আসলে এখন শুটিং করতে চাইছে না। তাই আগামী বছরের শুরুতে শুটিং শুরু হবে এ সিনেমার। এদিকে ‘আদি’ ও ‘বিউটি সার্কাস’ নামের দুটি ছবি মুক্তির অপেক্ষায় রয়েছে এবিএম সুমনের। তিনি বলেন, এই সিনেমা দুটির গল্প, চরিত্র দারুণ। মুক্তি পেলে দর্শকদের ভালো লাগবে বলে আমার বিশ্বাস। এবিএম সুমন অভিনীত প্রথম ছবি ‘অচেনা হৃদয়’। এ ছবির মাধ্যমে ঢাকাই নায়কদের কাতারে নাম লেখান তিনি।

অবশ্যই দিতে হবে *
অবশ্যই দিতে হবে *
অন্যান্য খবর