× প্রচ্ছদ অনলাইনপ্রথম পাতাশেষের পাতাখেলাবিনোদনএক্সক্লুসিভভারতবিশ্বজমিনবাংলারজমিনদেশ বিদেশশিক্ষাঙ্গনসাক্ষাতকাররকমারিপ্রবাসীদের কথামত-মতান্তরফেসবুক ডায়েরিবই থেকে নেয়া তথ্য প্রযুক্তি শরীর ও মন চলতে ফিরতে ষোলো আনা মন ভালো করা খবরকলকাতা কথকতাখোশ আমদেদ মাহে রমজানস্বাধীনতার সুবর্ণ জয়ন্তীসেরা চিঠি
ঢাকা, ১৯ অক্টোবর ২০২১, মঙ্গলবার , ৪ কার্তিক ১৪২৮ বঙ্গাব্দ, ১১ রবিউল আউয়াল ১৪৪৩ হিঃ

৫ বছর সাজার ভয়ে ১৪ বছর পালিয়ে

বাংলারজমিন

সখীপুর (টাঙ্গাইল) প্রতিনিধি
২৯ সেপ্টেম্বর ২০২১, বুধবার

টাঙ্গাইলের সখীপুরে ব্যাংক চেক ডিজঅনার মামলায় ৫ বছরের দণ্ডিত সাজার ভয়ে ১৪ বছর পালিয়েছিলেন আবু সাঈদ তালুকদার (৪২)। গতকাল সকালে তাকে টাঙ্গাইল আদালতের মাধ্যমে কারাগারে পাঠানো হয়েছে বলে জানায় পুলিশ। এরআগে গত সোমবার সকালে পাবনার ভাঙ্গুড়া উপজেলার শরৎনগর গ্রাম থেকে তাকে গ্রেপ্তার করা হয়। সে উপজেলার গড়গোবিন্দপুর গ্রামের মৃত কদ্দুস মাস্টারের ছেলে। পুলিশ জানায়, উপজেলার কচুয়া সড়কে গাউজ ভাণ্ডারি কাগজ বিতান নামে একটি সাইনবোর্ড টাঙিয়ে প্রবাসীদের ব্যাংক ড্রাফটের ব্যবসা করতেন আবু সাঈদ। ২০০৭ সালের ফেব্রুয়ারি মাসে সখীপুর বাজারের বণিক সমিতির সদস্য মামুন মিয়া টাঙ্গাইল আদালতে আবু সাঈদকে আসামি করে সাড়ে ১৩ লাখ টাকার ব্যাংক চেক ডিজঅনার মামলা করেন। ওই বছরই তার নামে আদালত থেকে থানায় গ্রেপ্তারি পরোয়ানা আসে। ২০০৮ সালে তার ৫ বছরের সাজা হয়।
সখীপুর থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা এ. কে সাইদুল হক ভূঁইয়া বলেন, আবু সাঈদের ৫ বছরের সাজা হয়েছিল। তিনি সখীপুর থানার সবচেয়ে পুরনো পলাতক আসামি ছিলেন।

অবশ্যই দিতে হবে *
অবশ্যই দিতে হবে *
অন্যান্য খবর