× প্রচ্ছদ অনলাইনপ্রথম পাতাশেষের পাতাখেলাবিনোদনএক্সক্লুসিভভারতবিশ্বজমিনবাংলারজমিনদেশ বিদেশশিক্ষাঙ্গনসাক্ষাতকাররকমারিপ্রবাসীদের কথামত-মতান্তরফেসবুক ডায়েরিবই থেকে নেয়া তথ্য প্রযুক্তি শরীর ও মন চলতে ফিরতে ষোলো আনা মন ভালো করা খবরকলকাতা কথকতাখোশ আমদেদ মাহে রমজানস্বাধীনতার সুবর্ণ জয়ন্তীসেরা চিঠিইতিহাস থেকে
ঢাকা, ২৪ অক্টোবর ২০২১, রবিবার , ৯ কার্তিক ১৪২৮ বঙ্গাব্দ, ১৬ রবিউল আউয়াল ১৪৪৩ হিঃ

হাটহাজারীতে রোহিঙ্গাকে বাংলাদেশি পাসপোর্ট তৈরিতে সহযোগিতার অভিযোগ

দেশ বিদেশ

হাটহাজারী (চট্টগ্রাম) প্রতিনিধি
২৯ সেপ্টেম্বর ২০২১, বুধবার

চট্টগ্রামের হাটহাজারীতে এক রোহিঙ্গা নাগরিককে জাতীয়তা সনদ দিয়ে বাংলাদেশি পাসপোর্ট তৈরিতে সহযোগিতা করার অভিযোগ ওঠে উপজেলার ৮নং মেখল ইউপি চেয়ারম্যান মোহাম্মদ সালাউদ্দিন চৌধুরীর বিরুদ্ধে। জাতীয়তা সনদ দেয়ার বিষয়টি স্বীকার করেন তিনি। জানা গেছে, গত ৯ই জুন হাফিজুল্লাহ নামে এক রোহিঙ্গাকে জাতীয়তা সনদ প্রদান করেন হাটহাজারী উপজেলার ৮নং মেখল ইউপি চেয়ারম্যান মোহাম্মদ সালাউদ্দিন চৌধুরী। ওই সনদপত্রে হাফিজুল্লাহর পিতার নাম নুরুল আমিন, মায়ের নাম শামসুন নাহার এবং ঠিকানা খলিল সওদাগরের বাড়ি, গ্রাম মাজাফ্‌ফরপুর ৩ নম্বর ওয়ার্ড এবং ডাকঘর রহিমপুর উল্লেখ রয়েছে। ওই ঠিকানায় মূলত হাফিজুল্লাহ নামের কোনো ব্যক্তি নেই। ভুয়া ওই ব্যক্তি রোহিঙ্গা বলে ধারণা করছে এলাকাবাসী। এদিকে ওই জাতীয়তা সনদ ব্যবহার করে পাসপোর্টও তৈরি করেছেন কথিত হাফিজুল্লাহ। গত ২৩শে জুন পাসপোর্টের ফরম পূরণ করে জমা দেয়া হয়।
জাতীয়তা সনদপত্র দেয়ার বিষয়টি স্বীকার করে মেখল ইউপি চেয়ারম্যান মোহাম্মদ সালাউদ্দিন চৌধুরী বলেন, হাফিজুল্লাহ রোহিঙ্গা কিনা আমি জানতাম না। আমার কাছে সনদের জন্য এসেছে আমি সনদ দিয়েছি। পরে বিষয়টি আমি জেনেছি। এখন বিষয়টি তদন্ত করা হচ্ছে। এ ব্যাপারে হাটহাজারী উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা মো. শাহিদুল আলমের কাছে জানতে চাইলে তিনি খবর পেয়েছেন বলে উল্লেখ করেন। বিষয়টি খোঁজখবর নিয়ে যাচাই-বাছাই করা হচ্ছে। যদি বিষয়টি সত্য হয়ে থাকে তাহলে বিধি মোতাবেক ব্যবস্থা নেয়া হবে।

অবশ্যই দিতে হবে *
অবশ্যই দিতে হবে *
অন্যান্য খবর