× প্রচ্ছদ অনলাইনপ্রথম পাতাশেষের পাতাখেলাবিনোদনএক্সক্লুসিভভারতবিশ্বজমিনবাংলারজমিনদেশ বিদেশশিক্ষাঙ্গনসাক্ষাতকাররকমারিপ্রবাসীদের কথামত-মতান্তরফেসবুক ডায়েরিবই থেকে নেয়া তথ্য প্রযুক্তি শরীর ও মন চলতে ফিরতে ষোলো আনা মন ভালো করা খবরকলকাতা কথকতাখোশ আমদেদ মাহে রমজানস্বাধীনতার সুবর্ণ জয়ন্তীসেরা চিঠিইতিহাস থেকে
ঢাকা, ৯ ডিসেম্বর ২০২১, বৃহস্পতিবার , ২৫ অগ্রহায়ণ ১৪২৮ বঙ্গাব্দ, ৪ জমাদিউল আউয়াল ১৪৪৩ হিঃ

পুলিশের জেরায় অসহযোগিতা, প্রমাণ দাখিলে ব্যর্থতা, মন্ত্রীপুত্র গ্রেপ্তার

ভারত

বিশেষ সংবাদদাতা, কলকাতা
(১ মাস আগে) অক্টোবর ১০, ২০২১, রবিবার, ১০:১৯ পূর্বাহ্ন

প্রথম নোটিশ অস্বীকার। এরপর সুপ্রিম কোর্টের নির্দেশে উত্তরপ্রদেশ পুলিশ যখন বাড়িতে দ্বিতীয় নোটিশ লটকে দিল তখন আর তা অস্বীকার করতে পারেনি কেন্দ্রীয় স্বরাষ্ট্র প্রতিমন্ত্রীর ছেলে আশিস মিশ্র। শনিবার সকাল ১১ টা নাগাদ দুই আইনজীবী অবধীশ কুমার সিং এবং জিতেন্দ্র সিংকে সঙ্গে নিয়ে পুলিশের উচ্চ কর্তাদের মুখোমুখি হয় আশিস। ডি আই জি উপেন্দ্র আগারওয়াল জানিয়েছেন যে বেশ কিছু ভিডিও ক্লিপিং দেখিয়ে দুই আইনজীবী প্রমান করার চেষ্টা করেন যে ঘটনার সময় আশিস সিং ঘটনাস্থলে ছিল না। সে অন্য একটি জনসভায় ছিল। কিন্তু, আশিস জেরায় পরস্পর বিরোধী কথা বলে। বেশ কিছু প্রশ্নের জবাব দিতে সে অস্বীকৃত হয়। সেদিন লখিমপুর খেরিতে একটি জনসভায় অজয় মিশ্রর ভাষণ দেওয়ার কথা ছিল।
কিন্তু, তার দেরি হওয়ায় কৃষকরা অসন্তোষ প্রকাশ করছিলো। সেই সময় একটি কালো এসইউভি গাড়ি ভিড়ের মধ্যে ঢুকে পড়ে ও চার কৃষককে পিষে মারে। এই ঘটনার পরে গণপ্রহারে আরও চারজনের মৃত্যু হয়। কালো এসইউভিতে আশিস সিং চালকের আসনে ছিলেন বলে অভিযোগ। বেশ কিছু প্রশ্নের জবাব এড়িয়ে যাওয়ার পর শনিবার বিকেল থেকেই আশিসকে গ্রেপ্তার করার প্রস্তুতি নিচ্ছিলো পুলিশ। নিরাপত্তা বাড়ানো হয় বিভিন্ন জায়গার। স্থানীয় বিজেপি অফিস কার্যত ঘিরে ফেলা হয়। এরপর ১২ ঘণ্টা জেরার পর রাত ১১ টায় গ্রেপ্তার করা হয় আশিস সিংকে।
অবশ্যই দিতে হবে *
অবশ্যই দিতে হবে *
অন্যান্য খবর