× প্রচ্ছদ অনলাইনপ্রথম পাতাশেষের পাতাখেলাবিনোদনএক্সক্লুসিভভারতবিশ্বজমিনবাংলারজমিনদেশ বিদেশশিক্ষাঙ্গনসাক্ষাতকাররকমারিপ্রবাসীদের কথামত-মতান্তরফেসবুক ডায়েরিবই থেকে নেয়া তথ্য প্রযুক্তি শরীর ও মন চলতে ফিরতে ষোলো আনা মন ভালো করা খবরকলকাতা কথকতাখোশ আমদেদ মাহে রমজানস্বাধীনতার সুবর্ণ জয়ন্তীসেরা চিঠিইতিহাস থেকে
ঢাকা, ১ ডিসেম্বর ২০২১, বুধবার , ১৭ অগ্রহায়ণ ১৪২৮ বঙ্গাব্দ, ২৫ রবিউস সানি ১৪৪৩ হিঃ

দিরাইয়ে ডাক্তার ও ওষুধের দাবিতে মানববন্ধনে বক্তব্য দিলেন দুই সরকারি কর্মচারী

বাংলারজমিন

দিরাই (সুনামগঞ্জ) প্রতিনিধি
১৭ অক্টোবর ২০২১, রবিবার

সুনামগঞ্জের দিরাই উপজেলার চরনারচর ইউনিয়নের পেরুয়া উপস্বাস্থ্য কেন্দ্রে নিয়মিত ডাক্তার ও ওষুধ সরবরাহের দাবিতে স্থানীয় একটি সামাজিক সংগঠনের উদ্যোগে অনুষ্ঠিত মানববন্ধনে অংশ নিয়ে বক্তৃতা দিয়েছেন দুই সরকারি কর্মচারী। এরা হলেন, উপজেলা তথ্য সেবা কেন্দ্রের সহকারী ফারহাতুর রাইয়ান বীথি ও উপজেলার চরনারচর ইউনিয়নের দায়িত্বপ্রাপ্ত পরিবার পরিকল্পনা পরিদর্শক আতাহার আলী। গত বৃহস্পতিবার বিকেলে পেরুয়া উপস্বাস্থ্য কেন্দ্রের সামনে ওই মানববন্ধনটি হয়। এতে অংশ নিয়ে দুই সরকারি কর্মচারী ওই দাবীতে বক্তব্যও রাখেন। এ নিয়ে স্থানীয় লোকজনের মধ্যে মিশ্র প্রতিক্রিয়া দেখা গেছে। বক্তৃতায় উপজেলা তথ্য সেবা কেন্দ্রের সহকারী ফারহাতুর রাইয়ান বীথি  বলেন, আমি মূলত দিরাইবাসী না। চাকরির সুবিধার্থে গ্রামবাসীর মাঝে আসতে পেরেছি। যদি স্বাস্থ্য সেবা থেকে জনগণ বঞ্চিত হয় তাহলে এরচাইতে দুঃখজনক আর কিছু হয় না। স্বাস্থ্য সেবা প্রত্যেকের জন্যই এটা মৌলিক অধিকার। ডাক্তার না থাকায় গ্রামের মানুষ চিকিৎসাসেবা থেকে বঞ্চিত। আজকে মানববন্ধনের যে উদ্দেশ্য ‘ডাক্তার নাই, ডাক্তার চাই’। এ উদ্দেশ্যে আমি মূলত যেটুকু বলবো, যতো তাড়াতাড়ি সম্ভব এই পেরুয়াবাসীর আশা কিংবা আক্ষেপ এটা যেন তাড়াতাড়ি পূরণ হয়। পরিবার পরিকল্পনা পরিদর্শক আতাহার আলী বক্তব্যে বলেন, আমরা অত্যন্ত সুন্দর একটি বিল্ডিং পেয়েছি সরকারের কাছ থেকে। কিন্তু পরিচালনার জন্য জনবল খুবই কম। এ অবস্থার পরিত্রাণে তিনি পরিকল্পনা মন্ত্রী, এমপি ও ডিস্থির সুদৃষ্টি কামনা করেন। দিরাই উপজেলা পরিবার পরিকল্পনা কর্মকর্তা বিশ্বজিৎ কৃষ্ণ চক্রবর্তী বলেন, সে (আতাহার আলী) একজন সরকারি চাকরিজীবী হয়ে ওখানে যেতে পারে না। বিষয়টি আমি খতিয়ে দেখবো। উপজেলা তথ্য সেবা কর্মকর্তা জান্নাতুল ফেরদৌস সোনিয়া বলেন, আমরা মা ও শিশু স্বাস্থ্য সেবা নিয়েও কাজ করি। ওইখানে মানববন্ধন হবে, এটা আমাদের বলা হয়নি। বলা হয়েছে সেখানে শতাধিক নারী ও স্টুডেন্ট উপস্থিত থাকবে, মা ও শিশু স্বাস্থ্য সেবা নিয়ে কথা বলতে দাওয়াত দেয়া হয়। এজন্যই আমার সহকারী ফারহাতুর রাইয়ান বীথি সেখানে যায়।

অবশ্যই দিতে হবে *
অবশ্যই দিতে হবে *
অন্যান্য খবর