× প্রচ্ছদ অনলাইনপ্রথম পাতাশেষের পাতাখেলাবিনোদনএক্সক্লুসিভভারতবিশ্বজমিনবাংলারজমিনদেশ বিদেশশিক্ষাঙ্গনসাক্ষাতকাররকমারিপ্রবাসীদের কথামত-মতান্তরফেসবুক ডায়েরিবই থেকে নেয়া তথ্য প্রযুক্তি শরীর ও মন চলতে ফিরতে ষোলো আনা মন ভালো করা খবরকলকাতা কথকতাখোশ আমদেদ মাহে রমজানস্বাধীনতার সুবর্ণ জয়ন্তীসেরা চিঠিইতিহাস থেকে
ঢাকা, ৫ ডিসেম্বর ২০২১, রবিবার , ২১ অগ্রহায়ণ ১৪২৮ বঙ্গাব্দ, ২৯ রবিউস সানি ১৪৪৩ হিঃ

প্রতিপক্ষদের হুমকি দিয়ে রাখলেন স্টার্ক

খেলা

স্পোর্টস ডেস্ক
১৮ অক্টোবর ২০২১, সোমবার

ওয়ানডে বিশ্বকাপে সবচেয়ে সফল দল অস্ট্রেলিয়া। সাতবার ফাইনাল খেলে পাঁচবারই হেসেছে শিরোপার হাসি। সেই অজিরা এখনো খুলতে পারেনি টি-টোয়েন্টি বিশ্বকাপের গেরো। ছয় আসরে মাত্র একবার খেলেছে ফাইনাল। ২০১০ সালের আসরে চিরপ্রতিদ্বন্দ্বী ইংল্যান্ডের কাছে হারে অস্ট্রেলিয়া। এবারের আসরে অস্ট্রেলিয়া এসেছে বাজে পারফরমেন্স সঙ্গী করে। সবশেষ দুই টি-টোয়েন্টি সিরিজ হেরেছে ওয়েস্ট ইন্ডিজ ও বাংলাদেশের সঙ্গে। এই দুই সিরিজে ১০ ম্যাচে জয় মাত্র দুটি। তার আগে থেকেই অবশ্য বাজে পারফরমেন্স অজিদের। ২০২০ সাল থেকে এ পর্যন্ত খেলা ২৪ টি-টোয়েন্টিতে জয় মাত্র ৮টি। অস্ট্রেলিয়ার এমন পারফরমেন্সের কারণে তাদেরকে ফেভারিট তালিকার উপরের দিকে রাখছে না ক্রিকেট বিশ্লেষকরা। প্রতিপক্ষও এমনটা ভাবলে হিতে বিপরীত হবে বলে সতর্ক করে দিয়েছেন অজি গতি তারকা মিচেল স্টার্ক।
সবশেষ দুই সিরিজে অস্ট্রেলিয়া খেলেনি নিজেদের সেরা স্কোয়াড নিয়ে। দলের সেরা ব্যাটারদের ছাড়াই উইন্ডিজ ও বাংলাদেশে সিরিজ হারে তারা। সাম্প্রতিক সময়ে বাজে পারফরমেন্সের কারণ হিসেবে সেরা দল নিয়ে খেলতে না পারাকে দায়ী করলেন স্টার্ক। জাতীয় দলের হয়ে ৪১ ম্যাচে ৫১ উইকেট নেয়া এই পেসার বলেন, ‘বিভিন্ন কারণে গত তিন বছরের বেশি সময় আমরা সেরা টি-টোয়েন্টি স্কোয়াড নিয়ে খেলতে পারিনি। সেরাদের নিয়েই আমরা এসেছি। আশা করছি নিজেদের সামর্থ্য অনুযায়ী পারফরর্ম করতে পারবো।’
গত আসরে সেমিফাইনালেও উঠতে পারেনি অস্ট্রেলিয়া। সাম্প্রতিক পারফরমেন্স ভালো না হলেও বিশ্বকাপে চোখ স্টার্কের। সাদা বলে অন্যতম সেরা পেসার বলেন, ‘আমাদের লক্ষ্য বিশ্বকাপ জেতা। এটাই আমাদের একমাত্র লক্ষ্য।’ আইপিএলের দ্বিতীয় পর্বে খেলেননি বেশিরভাগ অজি ক্রিকেটার। সানরাইজার্স হায়দরাবাদের হয়ে আরব আমিরাত পর্বে কোনো ম্যাচ খেলেননি ডেভিড ওয়ার্নার। একমাত্র নিয়মিত ছিলেন গ্লেন ম্যাক্সওয়েল। ১৫ ম্যাচে ৫১৩ রান করে আসরের চতুর্থ সর্বোচ্চ রানসংগ্রাহ তিনি।
সুপার টুয়েলভে অস্ট্রেলিয়ার প্রথম ম্যাচ দক্ষিণ আফ্রিকার বিপক্ষে। প্রোটিয়াদের বিপক্ষে ম্যাচের পারফরমেন্স বদলে দিতে পারে আসরে দলের চেহারা। মিচেল স্টার্ক বলেন, ‘প্রথম ম্যাচে ভালো খেলা খুবই গুরুত্বপূর্ণ। আর সেটা করতে পারলে পুরো আসরে এর প্রভাব থাকবে। এটা সত্যি যে আমরা এখনো এই সংস্করণে বিশ্বকাপ জিততে পারিনি। টি-টোয়েন্টিতে অস্ট্রেলিয়ার প্রথম শিরোপা জয়ী দলের অংশ হতে মুখিয়ে রয়েছি।’

অবশ্যই দিতে হবে *
অবশ্যই দিতে হবে *
অন্যান্য খবর