× প্রচ্ছদ অনলাইনপ্রথম পাতাশেষের পাতাখেলাবিনোদনএক্সক্লুসিভভারতবিশ্বজমিনবাংলারজমিনদেশ বিদেশশিক্ষাঙ্গনসাক্ষাতকাররকমারিপ্রবাসীদের কথামত-মতান্তরফেসবুক ডায়েরিবই থেকে নেয়া তথ্য প্রযুক্তি শরীর ও মন চলতে ফিরতে ষোলো আনা মন ভালো করা খবরকলকাতা কথকতাখোশ আমদেদ মাহে রমজানস্বাধীনতার সুবর্ণ জয়ন্তীসেরা চিঠিইতিহাস থেকে
ঢাকা, ৯ ডিসেম্বর ২০২১, বৃহস্পতিবার , ২৪ অগ্রহায়ণ ১৪২৮ বঙ্গাব্দ, ৪ জমাদিউল আউয়াল ১৪৪৩ হিঃ

শান্তিগঞ্জে দু’পক্ষের সংঘর্ষে নিহত ১

দেশ বিদেশ

শান্তিগঞ্জ (সুনামগঞ্জ) প্রতিনিধি
১৮ অক্টোবর ২০২১, সোমবার

 সুনামগঞ্জ জেলার শান্তিগঞ্জ উপজেলার জয়কলস ইউনিয়নের জয়কলস গ্রামে দু’পক্ষের সংঘর্ষে একজন নিহত ও ১০ জন আহত হয়েছেন। গতকাল সকাল ১১টায় জয়কলস গ্রামের পূর্বে সিলেট সুনামগঞ্জ আঞ্চলিক মহাসড়কে ঘটনাটি ঘটে। আহতদের সুনামগঞ্জ সদর হাসপাতাল ও গুরুতর আহতদের সিলেট এমএজি ওসমানী মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে ভর্তি করা হয়েছে। খবর পেয়ে পুলিশ ঘটনাস্থলে অভিযান চালিয়ে ৬ ব্যক্তিকে আটক করেছে। আহতরা হলেন জয়কলস গ্রামের আবুল লেইছ পক্ষের মৃত ওয়রিছ মিয়ার ছেলে লালু মিয়া (৪৫) বিকাল ৪টায় চিকিৎসাধীন অবস্থায় সিলেট ওসমানী হাসপাতালে মারা যান এবং অপর ৯ জনের মধ্যে মৃত নোয়াজ আলীর ছেলে আমির আলী (৫৫), আমির আলীর ছেলে হেলাল মিয়া (৩৫), রইছ উদ্দিনের ছেলে ছালে আহমদ ও সাইদ আহমদ (২২)। একই গ্রামের শহীদ মিয়ার পক্ষের হোসেন আহমদের ছেলে সৈয়দুর রহমান (২৮) গুরুতর আহত হয়েছেন।
স্থানীয় ও পুলিশ সূত্রে জানা যায়, শনিবার দুপুরে জয়কলস গ্রামের আমির আলীর ছেলে সিএনজি চালক হেলাল মিয়া প্রতিবেশী শহীদ মিয়ার পক্ষের একটি গরুকে তার সিএনজি গাড়ি দিয়ে সিলেট-সুনামগঞ্জ আঞ্চলিক মহাসড়কের ওপর ধাক্কা দেয়। এতে শহীদ মিয়া ও আবুল লেইছ পক্ষের মধ্যে বিরোধের সৃষ্টি হয়।
গতকাল রোববার সকাল ৯টায় জয়কলস গ্রামবাসীর লোকজন জয়কলস পয়েন্টে উভয়পক্ষের লোকজনদের নিয়ে এক সালিশ বৈঠক বসে। সালিশ বৈঠক চলাকালে উভয়পক্ষের লোকজন দেশীয় অস্ত্রশস্ত্র নিয়ে সংঘর্ষে লিপ্ত হয়। এতে উভয়পক্ষের কমপক্ষে ৯ জন আহত হয়েছেন। তাৎক্ষণিক থানা পুলিশ খবর পেয়ে মারপিটের ঘটনায় জড়িত সন্দেহে জয়কলস গ্রামের রহিম আলীর ছেলে নজির আলী (৩৫), সুফিয়ান মিয়ার ছেলে রিমন মিয়া (১৯), আছকির আলীর ছেলে নিজাম উদ্দিন (১৭), নাজিম উদ্দিনের ছেলে মুজিব মিয়া (২৮), মাসুক মিয়ার ছেলে জানে আলম (১৭) ও সুনামগঞ্জ সদর উপজেলার জগজীবনপুর গ্রামের রাকিব আলীর ছেলে জুনাইদ আহমদ সুমন (২২)কে আটক করেন। শান্তিগঞ্জ থানার উপ-পুলিশ পরিদর্শক আলাউদ্দিন বলেন, পুলিশ মারপিটের সংবাদ পেয়ে ঘটনাস্থলে উপস্থিত হয়ে ৬ জনকে আটক করে। এলাকার পরিস্থিতি নিয়ন্ত্রণে রয়েছে। আটকদের জিজ্ঞাসাবাদ অব্যাহত আছে। শান্তিগঞ্জ থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) কাজী মোক্তাদির হোসেন ঘটনার সত্যতা নিশ্চিত করে বলেন, অভিযোগ প্রাপ্তি সাপেক্ষে আইনানুগ ব্যবস্থা গ্রহণ করা হবে।
অবশ্যই দিতে হবে *
অবশ্যই দিতে হবে *
অন্যান্য খবর