× প্রচ্ছদ অনলাইনপ্রথম পাতাশেষের পাতাখেলাবিনোদনএক্সক্লুসিভভারতবিশ্বজমিনবাংলারজমিনদেশ বিদেশশিক্ষাঙ্গনসাক্ষাতকাররকমারিপ্রবাসীদের কথামত-মতান্তরফেসবুক ডায়েরিবই থেকে নেয়া তথ্য প্রযুক্তি শরীর ও মন চলতে ফিরতে ষোলো আনা মন ভালো করা খবরকলকাতা কথকতাখোশ আমদেদ মাহে রমজানস্বাধীনতার সুবর্ণ জয়ন্তীসেরা চিঠিইতিহাস থেকে
ঢাকা, ১ ডিসেম্বর ২০২১, বুধবার , ১৭ অগ্রহায়ণ ১৪২৮ বঙ্গাব্দ, ২৫ রবিউস সানি ১৪৪৩ হিঃ

মহাকাশে 'চ্যালেঞ্জ' -এর শুটিং শেষ

অনলাইন

মানবজমিন ডিজিটাল
(১ মাস আগে) অক্টোবর ১৮, ২০২১, সোমবার, ১০:১৯ অপরাহ্ন

ইউলিয়া পেরেসিল্ড ও ক্লিম শিপেঙ্কো আগামী ৫ অক্টোবর বাইকানুর উৎক্ষেপণ কেন্দ্র থেকে একটি রুশ রকেটে চড়ে ইন্টারন্যাশনাল স্পেস স্টেশন বা আইএসএস-এর উদ্দেশ্যে যাত্রা শুরু করেন । তারা যে ছবির ওপর কাজ করছেন তার নাম দেয়া হয়েছে ‘চ্যালেঞ্জ ’। রাশিয়ার রসকসমস মহাকাশ সংস্থার দাবি , সাধারণ মানুষের জন্য যে মহাশূন্যের দরজা খুলে যাচ্ছে তারা সেটাই দেখাতে চাইছেন । অবশেষে নির্বিঘ্নে শুটিং শেষ করে নিরাপদে পৃথিবীতে ফিরলেন রাশিয়ার এই সিনেমা দলটি। ক্লিম শিপেনকো এবং অভিনেতা ইউলিয়া পেরেসিল্ড আন্তর্জাতিক মহাশূন্য স্টেশন আইএসএস ত্যাগ করে কাজাখস্তানে অবতরণ করেন। তাদের পৃথিবীতে ফিরে আসার দৃশ্যটি আরেক ফিল্ম ক্রু ক্যামেরাবন্দি করেন। তবে অনেকেই একে গুজব বলে উড়িয়ে দিয়েছিলেন। তাদের দাবি নস্যাৎ করতে আইএসএস থেকে পাঠানো এক টুইটার পোস্টে পেরেসিল্ড তার খোলা চুলের ছবি পোস্ট করেন। ভরশূন্যতায় তোলা এই ছবি প্রমাণ করে পুরো শুটটাই হয়েছে মহাকাশে। চ্যালেঞ্জার ছবিটি বলা চলে মহাশূন্য নিয়ে এক ধরনের প্রতিযোগিতার অংশ। তবে চ্যালেঞ্জ নামের এই ছবির শুটিং চলাকালেও কম নাটক হয়নি। গত শুক্রবার তার থ্রাস্টারে সমস্যা দেখা দিলে মহাশূন্য স্টেশনটি হঠাত্‍ করেই একদিকে কাৎ হয়ে পড়ে। এর ফলে কিছু সময়ের জন্য শুটিং বন্ধ হয়ে যায়। আবার ৫ অক্টোবর যখন ফিল্ম ক্রুকে নিয়ে সয়ুজ রকেটটি আইএসএস গিয়ে পৌঁছায় তখন তার স্বয়ংক্রিয় ডকিং সিস্টেমটি বিকল হয়ে পড়ে। ম্যানুয়াল পদ্ধতিতে কোনোমতে রকেটটিকে আইএসএস-এর সাথে সংযুক্ত করা সম্ভব হয় । সব মিলিয়ে বলা যায় চ্যালেঞ্জ ছবির শুটিং করাটাও ছিল বেশ চ্যালেঞ্জিং। তবে সেই চ্যালেঞ্জ জিতে নিরাপদেই পৃথিবীর বুকে ফিরেছেন ইউলিয়া পেরেসিল্ড ও ক্লিম শিপেঙ্কোরা। এখন এই ছবির পরিচালক এবং অভিনেতাকে আগামী ১০ দিন ধরে রাশিয়ার স্টার সিটি প্রশিক্ষণ কেন্দ্রে থাকতে হবে, পৃথিবীতে ফিরে আসার পর প্রয়োজনীয় শারীরিক ও মানসিক পরীক্ষার জন্য। শোনা যাচ্ছে হলিউড তারকা টম ক্রুজও মহাকাশে একটি ছবিতে অংশ নিচ্ছেন। মার্কিন সংস্থা নাসা এবং ইলন মাস্কের প্রতিষ্ঠান স্পেস এক্স এই প্রকল্পের সাথে জড়িত।

সূত্র : বিবিসি

অবশ্যই দিতে হবে *
অবশ্যই দিতে হবে *
অন্যান্য খবর