× প্রচ্ছদ অনলাইনপ্রথম পাতাশেষের পাতাখেলাবিনোদনএক্সক্লুসিভভারতবিশ্বজমিনবাংলারজমিনদেশ বিদেশশিক্ষাঙ্গনসাক্ষাতকাররকমারিপ্রবাসীদের কথামত-মতান্তরফেসবুক ডায়েরিবই থেকে নেয়া তথ্য প্রযুক্তি শরীর ও মন চলতে ফিরতে ষোলো আনা মন ভালো করা খবরকলকাতা কথকতাখোশ আমদেদ মাহে রমজানস্বাধীনতার সুবর্ণ জয়ন্তীসেরা চিঠিইতিহাস থেকে
ঢাকা, ৯ ডিসেম্বর ২০২১, বৃহস্পতিবার , ২৪ অগ্রহায়ণ ১৪২৮ বঙ্গাব্দ, ৪ জমাদিউল আউয়াল ১৪৪৩ হিঃ

ভারত-পাকিস্তান ম্যাচ বাতিলের দাবি

খেলা

স্পোর্টস ডেস্ক
১৮ অক্টোবর ২০২১, সোমবার

ভারত-পাকিস্তানের দ্বন্দ্বের কথা কারোর অজানা নয়। দু’দেশের বৈরী রাজনৈতিক সম্পর্কের প্রভাব পড়েছে ক্রিকেটেও। ২০০৭-০৮ মৌসুমের পর কোনো দ্বিপাক্ষিক সিরিজে মুখোমুখি হয়নি ভারত-পাকিস্তান। শুধুমাত্র বিশ্বকাপের আসরে দুই চিরপ্রতিদ্বন্দ্বীর লড়াই উপভোগের সুযোগ মেলে ক্রিকেট প্রেমীদের। আবারও একটি উপলক্ষ সৃষ্টি হয়েছে, টি-টোয়েন্টি বিশ্বকাপে মুখোমুখি হবে দুই দল। তবে ভারতীয় রাজনীতিবিদরা চায় না দু’দলের মোকাবিলা। তাদের মতে, এ ম্যাচের মাধ্যমে বাড়তে পারে দুই দেশের বর্তমান রাজনৈতিক সমস্যা।

টি-টোয়েন্টি বিশ্বকাপের সপ্তম আসর শুরু হয়েছে গত ১৭ই অক্টোবর। চলছে প্রথম পর্বের খেলা।
আগামী ২৩শে অক্টোবর থেকে শুরু হবে সুপার টুয়েলভের ম্যাচ। আর ২৪শে অক্টোবর মুখোমুখি হবে ভারত-পাকিস্তান। ম্যাচটিকে ঘিরে উত্তেজনার কমতি নেই। তবে ভারত-পাকিস্তানের মধ্যকার বর্তমান পরিস্থিতি বিবেচনা করে ম্যাচটি বাতিল করার দাবি জানিয়েছেন ভারতের কেন্দ্রীয় মন্ত্রী ও বিজেপির সিনিয়র নেতা গিরিরাজ সিং।

সম্প্রতি জম্মু-কাশ্মীরে বেসামরিক নাগরিকদের হত্যা বেড়েই চলেছে। গত ১৫ই অক্টোবর কুলগামে দুই বেসামরিক ভারতীয় নাগরিককে গুলি করে হত্যা করেছে বিচ্ছিন্নতাবাদীরা। তারা জম্মু-কাশ্মীরের বাসিন্দাও ছিল না। উত্তর প্রদেশে তাদের বসবাস।

গিরিরাজ সিং কাশ্মীরে সাম্প্রতিক সহিংসতার জন্য পাকিস্তানকে দায়ী করে বলেন, রাষ্ট্রটির সন্ত্রাসবাদী মুখ বিশ্বের সামনে স্পষ্ট হয়েছে। এর ফল তাদের ভোগ করতে হবে। তার ভাষায়, জম্মু-কাশ্মীরে হিন্দুদের ওপর হামলার পরিপ্রেক্ষিতে ২৪শে অক্টোবর ভারত ও পাকিস্তানের মধ্যকার ম্যাচটি আদৌ অনুষ্ঠিত হওযা উচিত কিনা, তা পুনর্বিবেচনার প্রয়োজন রয়েছে।

গিরিরাজ বলেছেন, ‘ভারত পাকিস্তানের ম্যাচটি আবার বিবেচনা করা দরকার। কারণ জম্মু-কাশ্মীরের বিষয় নিয়ে দুই দেশের মধ্যে উত্তেজনাকর পরিবেশ চলছে।’

এছাড়া পাঞ্জাবের মন্ত্রী পারগাত সিং-ও ম্যাচটি বাতিলের দাবি তুলেছেন। তিনি বলেন, ‘টি- টোয়েন্টি বিশ্বকাপে ভারত-পাকিস্তানের ম্যাচটি মাঠে গড়ানো উচিত নয়। কারণ দুই দেশের সীমান্তের অবস্থা এখন স্বাভাবিক নয়। দুই দেশই খুব চাপের মধ্যে দিয়ে যাচ্ছে। সমস্যা আরও বাড়তে পারে এমন কিছু করা উচিত নয় আমাদের।’
অবশ্যই দিতে হবে *
অবশ্যই দিতে হবে *
অন্যান্য খবর