× প্রচ্ছদ অনলাইনপ্রথম পাতাশেষের পাতাখেলাবিনোদনএক্সক্লুসিভভারতবিশ্বজমিনবাংলারজমিনদেশ বিদেশশিক্ষাঙ্গনসাক্ষাতকাররকমারিপ্রবাসীদের কথামত-মতান্তরফেসবুক ডায়েরিবই থেকে নেয়া তথ্য প্রযুক্তি শরীর ও মন চলতে ফিরতে ষোলো আনা মন ভালো করা খবরকলকাতা কথকতাখোশ আমদেদ মাহে রমজানস্বাধীনতার সুবর্ণ জয়ন্তীসেরা চিঠিইতিহাস থেকে
ঢাকা, ২ ডিসেম্বর ২০২১, বৃহস্পতিবার , ১৮ অগ্রহায়ণ ১৪২৮ বঙ্গাব্দ, ২৬ রবিউস সানি ১৪৪৩ হিঃ

ভোজ্য তেলের দাম বাড়লো লিটারে ৭ টাকা

প্রথম পাতা

স্টাফ রিপোর্টার
২০ অক্টোবর ২০২১, বুধবার

নিত্যপণ্যের বাজারে অস্থিরতার মধ্যেই আবারো বাড়ানো হলো ভোজ্য তেলের দাম। খোলা ও বোতলজাত সয়াবিন তেল লিটারে আরও ৭ টাকা বাড়ানো হয়েছে। এখন থেকে খোলা সয়াবিন তেল প্রতি লিটার ১৩৬ টাকা এবং বোতলজাত সয়াবিন তেল প্রতি লিটার ১৬০ টাকায় বিক্রি হবে। গতকাল বাংলাদেশ ভেজিটেবল অয়েল রিফাইনার্স অ্যান্ড বনস্পতি ম্যানুফ্যাকচারার্স এসোসিয়েশন এক বিজ্ঞপ্তিতে এই ঘোষণা দেয়।
এতে বলা হয়, আন্তর্জাতিক বাজারে অপরিশোধিত সয়াবিন ও অপরিশোধিত পাম তেলের মূল্যে ঊর্ধ্বমুখী প্রবণতা বিবেচনায় বাংলাদেশ ট্রেড অ্যান্ড ট্যারিফ কমিশন ও বাণিজ্য মন্ত্রণালয়ের সঙ্গে আলোচনা ক্রমে বাংলাদেশ ভেজিটেবল অয়েল রিফাইনার্স অ্যান্ড বনস্পতি ম্যানুফ্যাকচারার্স এসোসিয়েশন ভোজ্য তেলের এই মূল্য নির্ধারণ করলো। এই মূল্য অবিলম্বে কার্যকর হলেও পরিবেশক ও খুচরা পর্যায়ে পুরনো মজুতের ক্ষেত্রে তা প্রযোজ্য হবে না বলে বিজ্ঞপ্তিতে উল্লেখ করা হয়।
মূল্য বাড়িয়ে এতদিন খোলা সয়াবিন তেল লিটার প্রতি ১২৯ টাকা এবং বোতলজাত তেল ১৫৩ টাকায় বিক্রি হচ্ছিল। এখন দুই ধরনের তেলেই ৭ টাকা বাড়ানো হলো। রোববার বাণিজ্য মন্ত্রণালয়ের কর্মকর্তাদের সঙ্গে ব্যবসায়ীদের এক বৈঠকে ভোজ্য তেলের নতুন এই মূল্য প্রস্তাব করা হয়।
এর আগে গত ৫ই সেপ্টেম্বর ভোজ্য তেলের দাম বাড়াতে মন্ত্রণালয়ের দ্বারস্থ হয়েছিলেন মিল মালিকরা। সেই সময় সয়াবিন তেলের দাম না বাড়ালেও পাম তেলের দাম প্রতি লিটার ১১২ টাকা থেকে বাড়িয়ে ১৬০ টাকার ঘোষণা এসেছিল। এ ছাড়া খোলা সয়াবিন তেল আগের নিয়মে প্রতি লিটার ১২৯ টাকা এবং প্রতি লিটার বোতলজাত সয়াবিন তেলের দাম ১৫৩ টাকা, ৫ লিটার বোতলজাত সয়াবিন তেলের দাম ৭২৮ টাকায় বিক্রি অব্যাহত রাখার সিদ্ধান্ত হয়েছিল। যদিও আন্তর্জাতিক বাজারে দাম বৃদ্ধির অজুহাতে খোলা বাজার ও মুদি দোকানগুলোতে নির্ধারিত দামের চেয়ে বাড়িয়েই বিক্রি হচ্ছিল সয়াবিন তেল।
চলতি সপ্তাহের শুরু থেকে খুচরা পর্যায়ে রাজধানী ঢাকার বিভিন্ন দোকানে বিভিন্ন ব্র্যান্ডের বোতলজাত সয়াবিন প্রতিলিটার ১৫৬ থেকে ১৫৮ টাকা এবং খোলা সয়াবিন প্রতিলিটার ১৪২ থেকে ১৪৪ টাকায় বিক্রি হচ্ছিল।
সরকারি বিপণন সংস্থা টিসিবি’র প্রতিদিনের বাজারদরের তথ্যে দেখা যায়, গতকাল খোলা সয়াবিন তেল লিটারে ১৫০ থেকে ১৫৫ টাকায় বিক্রি হয়েছে। যা এক মাস আগে ছিল ১৩০ থেকে ১৩৫ টাকা। অর্থাৎ এক মাসে দাম বেড়েছে ৩ দশমিক ৭৭ শতাংশ। একই মানের তেল গত বছর বিক্রি হয়েছে লিটারে ৯০ থেকে ৯৩ টাকা। অর্থাৎ বছরের ব্যবধানে দাম বেড়েছে ৫০ দশমিক ২৭ শতাংশ। গতকাল সয়াবিনের ১ লিটারের বোতল বিক্রি হয়েছে ১৪৫ থেকে ১৫৫ টাকা। যা এক মাস আগে ছিল ১৪০ থেকে ১৫০ টাকা। অর্থাৎ মাসের ব্যবধানে দাম বেড়েছে ৩ দশমিক ৪৫ শতাংশ। একই তেল গত বছর ছিল ১০০ থেকে ১১০ টাকা লিটারে। অর্থাৎ বছরের ব্যবধানে দাম বেড়েছে ৪২ দশমিক ৮৬ শতাংশ। পাম তেল মান ভেদে গতকাল বিক্রি হয়েছে লিটারে ১২৫ থেকে ১৩৫ টাকায়। যা গত মাসে  ছিল ১২০ থেকে ১৩০। অর্থাৎ মাসে দাম বেড়েছে ৩ দশমিক ৯২ থেকে ৪ দশমিক ০৮ শতাংশ পর্যন্ত। একই মানের তেল গত বছর ছিল ৭৮ থেকে ৮৮ টাকা লিটারে। অর্থাৎ বছরের ব্যবধানে বেড়েছে ৫৪ দশমিক ০৭ থেকে ৫৭ দশমিক ৪১ শতাংশ পর্যন্ত। গত বছর সয়াবিন তেলের ৫ লিটারের বোতল বিক্রি হয়েছে ৪৭০ থেকে ৫২০ টাকা। সেই তেল এখন বিক্রি হচ্ছে ৬৬৮ থেকে ৭২০ টাকায়। অর্থাৎ বছরে বেড়েছে ৪১ দশমিক ৪১ শতাংশ।

অবশ্যই দিতে হবে *
অবশ্যই দিতে হবে *
অন্যান্য খবর