× প্রচ্ছদ অনলাইনপ্রথম পাতাশেষের পাতাখেলাবিনোদনএক্সক্লুসিভভারতবিশ্বজমিনবাংলারজমিনদেশ বিদেশশিক্ষাঙ্গনসাক্ষাতকাররকমারিপ্রবাসীদের কথামত-মতান্তরফেসবুক ডায়েরিবই থেকে নেয়া তথ্য প্রযুক্তি শরীর ও মন চলতে ফিরতে ষোলো আনা মন ভালো করা খবরকলকাতা কথকতাখোশ আমদেদ মাহে রমজানস্বাধীনতার সুবর্ণ জয়ন্তীসেরা চিঠিইতিহাস থেকে
ঢাকা, ১ ডিসেম্বর ২০২১, বুধবার , ১৭ অগ্রহায়ণ ১৪২৮ বঙ্গাব্দ, ২৫ রবিউস সানি ১৪৪৩ হিঃ

‘অতীত রেকর্ডই পাকিস্তানের বিপক্ষে ভারতকে এগিয়ে রাখবে’

খেলা

স্পোর্টস ডেস্ক
২২ অক্টোবর ২০২১, শুক্রবার

রাজনৈতিক বৈরিতা নাকি ক্রিকেটীয় প্রতিদ্বন্দ্বিতা? সে যাই হোক- ভারত-পাকিস্তান ম্যাচ যে বাড়তি জৌলুস বহন করে সেটি বলা বাহুল্য। বিশ্বকাপের ম্যাচ ছাড়া যে দুই প্রতিপক্ষকে দেখা যায় না একে অপরের মোকাবিলায়, তাদের প্রতিদ্বন্দ্বিতা দেখা যাবে টি-টোয়েন্টি বিশ্বকাপের গ্রুপ পর্বেই। হাই ভোল্টেজ ম্যাচটি নিয়ে আগ্রহের কমতি নেই ক্রিকেট প্রেমীদের। ক্রিকেট মহলের বিচারে বিশ্বকাপের সবচেয়ে বড় ম্যাচ এটি। বিজ্ঞাপন ও টিকিট চাহিদা দেখলে সেটা যে ভুল নয় তার প্রমাণ পাওয়া যায়। সাবেক-বর্তমান সব ক্রিকেটারদের নজরও কোহলি-বাবরদের মুখোমুখি লড়াইয়ে। ম্যাচটিতে ভারতকে ফেভারিট মানছেন সাবেক ইংলিশ স্পিনার মন্টি পানেসার। তার মতে, অতীত রেকর্র্ডই ভারতকে এগিয়ে রাখবে।
শক্তি-সামর্থ্যরে বিচারে ক্রিকেটের দুই পরাশক্তি ভারত-পাকিস্তানকে সমপর্যায়ে রাখছেন মন্টি পানেসার। তবে দুবাইয়ে বাবর আজমের দলের বিপক্ষে বিরাট কোহলি বাহিনীকেই এগিয়ে রাখছেন এই ক্রিকেটার।
পাকিস্তানে দ্বিপাক্ষিক সিরিজ খেলতে না পারায় দীর্ঘ সময় ধরেই আরব আমিরাতকে হোমগ্রাউন্ড হিসেবে ব্যবহার করেছে বাবর আজমরা। তাই পাকিস্তানি ক্রিকেটাররা মরুর শহরে অন্যান্যদের চেয়ে এগিয়ে থাকবে বলেই মনে করছেন মন্টি। তবে অতীতের রেকর্ডই পাকিস্তানের চেয়ে ভারতকে এগিয়ে রাখবে বলে মত মন্টি পানেসারের। বিশ্বকাপের আসরে এখন পর্যন্ত কোনো ম্যাচে ভারতকে হারাতে পারেনি পাকিস্তান। ওয়ানডে বিশ্বকাপে মোট ৭ বার ও টি-টোয়েন্টি বিশ্বকাপে মোট ৫ বার অর্থাৎ আইসিসি বিশ্বকাপে মোট ১২ সাক্ষাতেও ভারতীয়দের হারাতে পারেনি পাকিস্তান।
পানেসার বলেন, ‘ভারতের বিপক্ষে চাপে থাকবে পাকিস্তান। কারণ অতীতের রেকর্ড। ভারত অনেকটা এগিয়ে থেকেই মাঠে নামবে। শুরুতে বাবর আজমকে ফেরাতে পারলেই পাকিস্তানের ব্যাটিং লাইনআপে ধ্বস নামাতে পারবে ভারত।’
পানেসারের মতে পাকিস্তানকে হারাতে ভারতের সহায়ক হবেন রবীচন্দ্রন অশ্বিন ও রবীন্দ্র জাদেজা। তিনি বলেন, ‘আমার মতে ভারতের গেম চেঞ্জার হলেন অশ্বিন। তাকে আগে থেকে বোঝা যায় না। তাছাড়া রবীন্দ্র জাদেজা। ব্যাটিং কিংবা বোলিং- দুটো দিয়েই খেলার মোড় বদলে দিতে পারেন তিনি। চেন্নাই সুপার কিংসের হয়ে তিনি একটি চমৎকার টুর্নামেন্ট (আইপিএলে) খেলেছিলেন। তারা দুজনই (জাদেজা, অশ্বিন) প্রধান খেলোয়াড় হতে চলেছেন। কারণ অশ্বিন পাওয়ারপ্লেতে এবং ডেথ ওভারেও অসাধারণ হতে পারে। জাদেজা ও অশ্বিন ভালো পারফর্ম করলে ভারত টি টোয়েন্টি বিশ্বকাপ জিতবেই।’
আগামীকাল শুরু হবে টি-টোয়েন্টি বিশ্বকাপের মূলপর্বের লড়াই। আর আগামী ২৪শে অক্টোবর ভারতের মুখোমুখি হবে পাকিস্তান। বাংলাদেশ সময় রাত ৮টায় শুরু হবে ম্যাচটি।

অবশ্যই দিতে হবে *
অবশ্যই দিতে হবে *
অন্যান্য খবর