× প্রচ্ছদ অনলাইনপ্রথম পাতাশেষের পাতাখেলাবিনোদনএক্সক্লুসিভভারতবিশ্বজমিনবাংলারজমিনদেশ বিদেশশিক্ষাঙ্গনসাক্ষাতকাররকমারিপ্রবাসীদের কথামত-মতান্তরফেসবুক ডায়েরিবই থেকে নেয়া তথ্য প্রযুক্তি শরীর ও মন চলতে ফিরতে ষোলো আনা মন ভালো করা খবরকলকাতা কথকতাখোশ আমদেদ মাহে রমজানস্বাধীনতার সুবর্ণ জয়ন্তীসেরা চিঠিইতিহাস থেকে
ঢাকা, ১ ডিসেম্বর ২০২১, বুধবার , ১৭ অগ্রহায়ণ ১৪২৮ বঙ্গাব্দ, ২৫ রবিউস সানি ১৪৪৩ হিঃ

চূড়ান্ত পর্বে খেলার স্বপ্ন মারুফুলের

খেলা

স্পোর্টস রিপোর্টার
২৩ অক্টোবর ২০২১, শনিবার

২০২২ এএফসি অনূর্ধ্ব-২৩ এশিয়া কাপের বাছাইপর্বের জন্য ২৩ সদস্যের চূড়ান্ত দল ঘোষণা করেছে বাংলাদেশ। যেখানে জায়গা পেয়েছে ইংল্যান্ড প্রবাসী ফুটবলার ইউসুফ জুলকারনাইন হক। ইঞ্জুরির কারণে নেই বিপলু আহমেদ। পাসপোর্ট করতে ফিনল্যান্ড যাবেন তারিক কাজী। স্ত্রীকে সময় দিতে ছুটি নিয়েছেন বিশ্বনাথ ঘোষ। সিনিয়র দলে খেলা এই তিন ফুটবলারকে ছাড়াই মূল পর্বে খেলার স্বপ্ন দেখালেন দলটির কোচ মারুফুল হক।  
অনূর্ধ্ব-২৩ এশিয়ান কাপের বাছাইয়ে বাংলাদেশের গ্রুপে আছে উজবেকিস্তান, কুয়েত ও সৌদি আরবের মতো দল। তিন দলই শক্তি সামর্থ্যে বাংলাদেশের চেয়ে এগিয়ে। এরপরও বাংলাদেশ দলের কোচ মারুফের চোখ মূল পর্বেই। এ নিয়ে গতকাল সংবাদ সম্মেলনে তিনি বলেন, ‘আমরা মূল পর্বে খেলতে চাই সেটা গ্রুপ চ্যাম্পিয়ন অথবা সেরা রানার্স আপের মধ্যে থেকে হলেও।’ বাছাইয়ে ১১ গ্রুপ। প্রতি গ্রুপের চ্যাম্পিয়ন দল ও সেরা চার রানার্স আপ মূল পর্বে খেলবে। সঙ্গে স্বাগতিক উজবেকিস্তান। উজবেকিস্তান যদি সেরা ১৫ এর মধ্যে থাকে সেক্ষেত্রে সেরা পঞ্চম রানার্স আপও চূড়ান্ত পর্বে খেলার সুযোগ পাবে। উজবেকিস্তানের চেয়ে কুয়েত ও সৌদি ম্যাচ নিয়ে বেশি মনোযোগী মারুফ বলেন, ‘উজবেকিস্তান স্বাগতিক দল তারা সরাসরিই খেলবে। আমি বাকি দুই ম্যাচ থেকে চার পয়েন্ট নিতে চাই।’ কুয়েতের সঙ্গে বছর আটেক আগে একটি ম্যাচে জয়ের রেকর্ড আছে। সৌদি আরবের সঙ্গে এই পর্যায়ে কোনো পয়েন্ট পাওয়ার ঘটনা নেই বাংলাদেশের। এরপরও মারুফ চ্যালেঞ্জ নিয়ে বলেন, ‘এই গ্রুপিংটা হয়েছে কয়েক মাস আগে। সেই গ্রুপিংয়ের সময় আমার ইচ্ছে ছিল এই দলটাকে দুই তিন মাস নিয়ে কাজ করা। সেটা করতে পারলে ভালো কিছু করা সম্ভব ছিল। এক মাসের মতো পেয়েছি। ভালো ও উন্নত দলের সঙ্গে খেলেই নিজেদের প্রমাণ করতে হয়। আমি সেই চ্যালেঞ্জটাই নিয়েছি।’ অনূর্ধ্ব ২৩ এর নিচে থাকা জাতীয় দলের ছয় জন ফুটবলার পাচ্ছেন মারুফুল হক। তিন পরীক্ষিত ফুটবলার তারিক কাজী, বিশ্বনাথ ঘোষ ও বিপলুকে পাচ্ছেন না মারুফ। এদেরকে মিস করবেন সরাসরি জানিয়ে তিনি দিলেন, ‘তিনজনই গুরুত্বপূর্ণ কারণে দলের সঙ্গে নেই। তাদের বিকল্প রয়েছে। তবে সেই বিকল্প তাদের শূন্যস্থানের পুরোটা পূরণ করতে পারবে না, এটাই বাস্তবতা। এটা মেনেই আমাদের চলতে হবে।’ মারুফের চূড়ান্ত দলে সুযোগ পেয়েছেন ইংল্যান্ড প্রবাসী ইউসুফ জুলকারনাইন। এক সপ্তাহের মতো তাকে অনুশীলন করিয়েছেন মারুফ। এই এক সপ্তাহে পর্যবেক্ষণ শেষে মারুফ বলেন,  ‘সে টেকনিক্যালি সাউন্ড। ট্যাকটিকালি ধীরে ধীরে উন্নতি করছে। ক্রমেই সে দলের সঙ্গে মানিয়ে নেয়ার চেষ্টা করছে।’ সদ্য সমাপ্ত সাফ চ্যাম্পিয়নশিপে ফাউল করেছে বাংলাদেশ। চার ম্যাচে প্রায় ৬০টি ফাউল করেছেন জামাল-তপুরা। এর খেসারত দিতে গিয়ে ১৬টি হলুদ কার্ড ও দু’টি লাল কার্ড দেখে বাংলাদেশ। সাফের এসব ফাউলের প্রসঙ্গ টেনে মারুফুল হক বলেন, অযথা ফাউল কু-অভ্যাসের মধ্যেই পড়ে। ট্রেনিংয়ের শুরুতে আমি মাঠ ও মাঠের বাইরে কু-অভ্যাসগুলো ত্যাগ করার নির্দেশ দিয়েছি।’ মাঠের বাইরে কু-অভ্যাস সম্পর্কে মারুফ বলেন, ‘মাঠের বাইরে কিছু কু-অভ্যাস রয়েছে ফুটবলারদের। যেমন সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যমে বেশি সময় কাটানো। এই অভ্যাস পরিবর্তন করতে বলেছি।’ অনূর্ধ্ব ২৩ দলের অধিনায়কের দায়িত্ব দেয়া হয়েছে ডিফেন্ডার টুটুল হোসেন বাদশাকে। তার সহকারী হিসেবে থাকবেন রহমত মিয়া। জাতীয় দলের মতো এই সফরেও ম্যানেজার সত্যজিৎ দাশ রূপু।

বাংলাদেশ অনূর্ধ্ব-২৩ দল

গোলরক্ষক: পাপ্পু হোসেন, মিতুল মারমা, মাহফুজ হাসান প্রীতম, ডিফেন্ডার: রহমত মিয়া, রিয়াদুল হাসান রাফি, ইয়াছিন আরাফাত, মনির আলম, টুটুল হোসেন বাদশা, সবুজ হোসাইন, দুখু মিয়া, ঈসা ফয়সাল, মিডফিল্ডার: মোহাম্মদ হৃদয়, মানিক হোসেন মোল্লা, আবু সাইদ, পাপন সিং, এনামুল হক, ফরোয়ার্ড: মারাজ হোসেন অপি, মাহবুবুর রহমান সুফিল, ফয়সাল আহমেদ ফাহিম, জমির উদ্দিন, রহিম উদ্দিন, ইউসুফ জুলকারনাইন হক, সাব্বির আহমেদ।

অবশ্যই দিতে হবে *
অবশ্যই দিতে হবে *
অন্যান্য খবর