× প্রচ্ছদ অনলাইনপ্রথম পাতাশেষের পাতাখেলাবিনোদনএক্সক্লুসিভভারতবিশ্বজমিনবাংলারজমিনদেশ বিদেশশিক্ষাঙ্গনসাক্ষাতকাররকমারিপ্রবাসীদের কথামত-মতান্তরফেসবুক ডায়েরিবই থেকে নেয়া তথ্য প্রযুক্তি শরীর ও মন চলতে ফিরতে ষোলো আনা মন ভালো করা খবরকলকাতা কথকতাখোশ আমদেদ মাহে রমজানস্বাধীনতার সুবর্ণ জয়ন্তীসেরা চিঠিইতিহাস থেকে
ঢাকা, ১ ডিসেম্বর ২০২১, বুধবার , ১৭ অগ্রহায়ণ ১৪২৮ বঙ্গাব্দ, ২৫ রবিউস সানি ১৪৪৩ হিঃ

বাংলাদেশ ম্যাচের আগে শক্তি কমলো শ্রীলঙ্কার

খেলা

স্পোর্টস ডেস্ক
২৩ অক্টোবর ২০২১, শনিবার

বিশ্বকাপের প্রথম পর্বে শ্রীলঙ্কার সফল বোলার মহীশ তিকশানা। খুব বেশিদিন হয়নি আন্তর্জাতিক ক্রিকেটে পা রেখেছেন। গত সেপ্টেম্বরে জাতীয় দলে অভিষেক। ৩ ম্যাচের অভিজ্ঞতা নিয়ে বিশ্বকাপে এসেছিলেন তিকশানা। বিশ্বমঞ্চে নিজেকে চিনিয়েছেন এই ২১ বছর বয়সী অফস্পিনার। প্রথম পর্বে ৩ ম্যাচে নিয়েছেন ৮ উইকেট। বল করেছেন মাত্র ৯ ওভার। বিশ্বকাপে লঙ্কানদের শক্তির জায়গা বোলিং। সুপার টুয়েলভ পর্বে বাংলাদেশের মুখোমুখি হওয়ার আগে শক্তি হারালো লঙ্কানরা। চোটের কারণে বাংলাদেশ ম্যাচে খেলা হবে না তিকশানার। শুক্রবার প্রথম পর্বের শেষ ম্যাচে নেদারল্যান্ডসের বিপক্ষে পিঠের পেশিতে চোট পান তিনি।
ডাচদের বিপক্ষে কোটার ৪ ওভার শেষ করতে পারেননি। ১ ওভার বল করেই মাঠ ছাড়েন তিকশানা। ম্যাচ চালাকালীন ড্রেসিংরুমে চিকিৎসা নিতে দেখা গেছে তাকে। চোট গুরুতর না হলেও সতর্কতা হিসেবে বাংলাদেশ ম্যাচে বিশ্রামে থাকবেন তিকশানা। এই অফস্পিনার না খেলার সম্ভাবনাই বেশি। শ্রীলঙ্কার মিডল অর্ডার ব্যাটার ভানুকা রাজাপক্ষে বলেন, ‘আমাদের ফিজিও জানিয়েছেন যে খুব সম্ভবত পরের ম্যাচের জন্য তাকে বিবেচনা করা হবে না। আমরা এক ম্যাচ খেলিয়ে গোটা টুর্নামেন্টের জন্য তাকে হারাতে চাই না। এই মুহূর্তে আমি এটুকুই বলতে পারি যে বাংলাদেশের বিপক্ষে সে (তিকশানা) খেলছে না। যদিও শতভাগ নিশ্চিত করে এখনো কোনো সিদ্ধান্ত নেওয়া হয়নি, কিন্তু খুব সম্ভবত সে এই ম্যাচে থাকবে না এবং পরবর্তী ম্যাচগুলো থেকে আবার মাঠে নামবে।’
আয়ারল্যান্ডের বিপক্ষে চাপের মুখে দারুণ ইনিংস খেলেন স্পিনিং অলরাউন্ডার ভানিদু হাসারাঙ্গা। পাঁচে নেমে খেলেন ৪৭ বলে ৭১ রানের ইনিংস। হাসারাঙ্গা মূলত ব্যাট করেন সাত নম্বরে। আগের ম্যাচে পাঁচ নম্বরে ব্যাট করা ভানুকা রাজাপক্ষে ২৭ বলে অপরাজিত ৪২ রান করেন। আইরিশদের বিপক্ষে ৮ রানে ৩ উইকেট হারানোর পর হাসারাঙ্গাকে পাঁচে ব্যাট করতে পাঠান মাহেলা জয়াবর্ধনে। সাবেক লঙ্কান অধিনায়ক মেন্টার হিসেবে দলের সঙ্গে ছিলেন। তবে বিশ্বকাপের গুরুত্বপূর্ণ সময়ে মাহেলাকে পাবে না শ্রীলঙ্কা। টানা কোয়ারেন্টিনে থাকার ধকল নিতে পারছেন না মাহেলা। দেশে ফেরা নিয়ে তিনি বলেন, ‘দেখুন, এভাবে কোয়ারেন্টিন ও জৈব সুরক্ষাবলয়ে থাকাটা খুবই কঠিন। আমি হিসাব করে দেখলাম, প্রায় ১৩৫ দিন ধরে আমি এভাবে ভ্রমণ করছি এবং এখন আমি খুবই ক্লান্ত। কিন্তু আমি এই টুর্নামেন্টের গুরুত্ব খুব ভালোভাবেই বুঝতে পারি। আমি তাদের বলেছি যে আমি প্রযুক্তির মাধ্যমে গোটা দলের সঙ্গে সংযুক্ত থাকব এবং যতটা সম্ভব তাদের সাহায্য করব। আমি আশা করি, সবাই বুঝতে পারবে যে একজন বাবা হয়ে অনেক দিন ধরে নিজের মেয়েকে দেখতে না পারা কতটা কষ্টের। ফলে আমার এখন দেশে ফেরাটা প্রয়োজন।’

অবশ্যই দিতে হবে *
অবশ্যই দিতে হবে *
অন্যান্য খবর