× প্রচ্ছদ অনলাইনপ্রথম পাতাশেষের পাতাখেলাবিনোদনএক্সক্লুসিভভারতবিশ্বজমিনবাংলারজমিনদেশ বিদেশশিক্ষাঙ্গনসাক্ষাতকাররকমারিপ্রবাসীদের কথামত-মতান্তরফেসবুক ডায়েরিবই থেকে নেয়া তথ্য প্রযুক্তি শরীর ও মন চলতে ফিরতে ষোলো আনা মন ভালো করা খবরকলকাতা কথকতাখোশ আমদেদ মাহে রমজানস্বাধীনতার সুবর্ণ জয়ন্তীসেরা চিঠিইতিহাস থেকে
ঢাকা, ১ ডিসেম্বর ২০২১, বুধবার , ১৭ অগ্রহায়ণ ১৪২৮ বঙ্গাব্দ, ২৫ রবিউস সানি ১৪৪৩ হিঃ

মাহমুদুল্লাহর সমালোচনায় পাপন

খেলা

স্পোর্টস ডেস্ক
২৩ অক্টোবর ২০২১, শনিবার

স্কটল্যান্ডের বিপক্ষে হেরে বিশ্বকাপ শুরু করে বাংলাদেশ। যাতে সুপার টুয়েলভে পৌঁছা নিয়েই শঙ্কা জাগে টাইগারদের। বাংলাদেশের এমন হারে সিনিয়রদের দায় দিয়েছিলেন নাজমুল হাসান পাপন। বিসিবি সভাপতির সমালোচনার বিরোধিতা করেছেন কোচ রাসেল ডমিঙ্গো। জানিয়েছেন দলের সিনিয়রদের নিয়ে কোনো অভিযোগ নেই তার। এরপর পাপুয়া নিউগিনিকে হারিয়ে মূলপর্বে পৌঁছার পর ক্ষোভ ঝাড়েন অধিনায়ক মাহমুদুল্লাহ রিয়াদও। এবার তার পাল্টা জবাব দিলেন পাপন।। বিসিবি প্রধানের মতে, রিয়াদের কথাবার্তা আবেগের বহিঃপ্রকাশ ছাড়া আর কিছু নয়।

পাপন বলেন, ‘দুইটা জিনিস আমি বুঝতে পারছি না। যেটা ও  (মাহমুদুল্লাহ) বলল, তাদের কমিটমেন্ট নিয়ে প্রশ্ন তোলায় খারাপ লেগেছে। আমার মনে হয় না কেউ তাদের কমিটমেন্ট নিয়ে প্রশ্ন তুলেছে... আমি একবারের জন্যও তাদের কমিটমেন্ট নিয়ে প্রশ্ন তুলিনি। দ্বিতীয় ব্যাপার হচ্ছে, সে বলেছে আমি তাদের অপমান করেছি। আমার মনে হয় এটা শুধু আবেগী কথা। আমি এখনো বলছি, প্রথম ম্যাচে তাদের পরিকল্পনা, দৃষ্টিভঙ্গি, মনোভাব নিয়ে আমি খুশি ছিলাম না।’

তিনি আরও বলেন, ‘ সে (রিয়াদ) বলল, তারা মানুষ কিন্তু একই সঙ্গে দলের সমর্থকদের সবাইও কিন্তু মানুষ আর বিসিবিতে যারা আছে তারাও। এখানে ব্যক্তিগতভাবে নেয়ার কিছু নেই। কারণ আমরা যাই বলি না কেন, দল ও দেশের জন্য বলেছি। কোনো ব্যক্তির বিরুদ্ধে না।’

এর আগে স্কটল্যান্ডের কাছে হারের পর পাপন তিন সিনিয়র খেলোয়াড় অর্থাৎ সাকিব, মুশফিক ও রিয়াদকে খোঁচা মেরে বলেছিলেন, ‘কাউকে তিনে খেলাতেই হবে, কাউকে চারে খেলাতেই হবেÑ এটা তো ম্যাচের কন্ডিশনের ওপর নির্ভর করে। তাই এটিও আরেককটি কারণ।... ওরা কী ভেবেছিল জানি না। ওদের মাথায় কী চলছিল জানি না। তবে আমার বিশ্বাস, আমাদের ক্রিকেটাররা আরও বড় দলের বিপক্ষে ভালো খেলতে পারে।’

এরপর পাপুয়া নিউগিনির বিপক্ষে বিশাল জয়ে সুপার টুয়েলভ নিশ্চিত করার পর মাহমুদুল্লাহ বলেন, ‘অনেক প্রশ্ন এসেছে আমাদের তিন সিনিয়র ক্রিকেটারের স্ট্রাইক রেট নির্য়ে। আমরা তো চেষ্টা করেছি। চেষ্টার বাইরে তো আমাদের কাছে কিছু নেই। এরকম না যে আমরা চেষ্টা করিনি। আপ্রাণ চেষ্টা করেছি।। কিন্তু ফল আমাদের পক্ষে আনতে পারিনি। আমরাও মানুষ। আমাদেরও অনুভ’মি কাজ করে।’
মাহমুদুল্লাহ বলেছিলেন, ‘আমাদের পরিবার আছে। বাবা-মায়েরা কিংবা সন্তানেরা টিভির সামনে বসে থাকে খেলা দেখার জন্য। সমালোচনা তো হবেই। কিন্তু সমালোচনার মাধ্যমে যখন কেউ কাউকে ছোট করে ফেলে তখন এগুলো খুব খারাপ লাগে।’

অবশ্যই দিতে হবে *
অবশ্যই দিতে হবে *
অন্যান্য খবর