× প্রচ্ছদ অনলাইনপ্রথম পাতাশেষের পাতাখেলাবিনোদনএক্সক্লুসিভভারতবিশ্বজমিনবাংলারজমিনদেশ বিদেশশিক্ষাঙ্গনসাক্ষাতকাররকমারিপ্রবাসীদের কথামত-মতান্তরফেসবুক ডায়েরিবই থেকে নেয়া তথ্য প্রযুক্তি শরীর ও মন চলতে ফিরতে ষোলো আনা মন ভালো করা খবরকলকাতা কথকতাখোশ আমদেদ মাহে রমজানস্বাধীনতার সুবর্ণ জয়ন্তীসেরা চিঠিইতিহাস থেকে
ঢাকা, ৫ ডিসেম্বর ২০২১, রবিবার , ২১ অগ্রহায়ণ ১৪২৮ বঙ্গাব্দ, ২৯ রবিউস সানি ১৪৪৩ হিঃ

বিরামপুর সীমান্তে স্বর্ণের বারসহ আটক ১

বাংলারজমিন

বিরামপুর (দিনাজপুর) প্রতিনিধি
২৪ অক্টোবর ২০২১, রবিবার

দিনাজপুরের বিরামপুর সীমান্ত দিয়ে ভারতে পাচারকালে আটটি স্বর্ণের বারসহ গোলজার হোসেন (৪০) নামে এক ব্যক্তিকে আটক করেছে বিরামপুর থানা পুলিশ। আটককৃত আসামি বিরামপুর সীমান্তের কাটলা ইউনিয়নের দক্ষিণ দামোদরপুর গ্রামের মৃত আব্দুর রহমানের ছেলে (৪০)। শুক্রবার রাত সাড়ে ৭টায় কাটলা সীমান্তের কাটলা বাজারের নিকটবর্তী বিদ্যুৎ চালিত একটি কাঠের স’মিল থেকে ৮টি স্বর্ণের বারসহ গোলজার হোসেনকে আটক করা হয়। বিরামপুর থানার ওসি সুমন কুমার মহান্ত সত্যতা নিশ্চিত করে জানান, শুক্রবার রাত সাড়ে ৭ টায় গোপন সংবাদের ভিত্তিতে জানতে পারি একজন চোরাকারবারি বিরামপুর-কাটলা সীমান্ত দিয়ে ভারতে স্বর্ণের বার পাচার করছে। এমন সংবাদের ভিত্তিতে পুলিশ সদস্য কাটলা বাজারে অবস্থান করে। এ সময় একটি মোটরসাইকেল আরোহী গোলজার রহমানকে একটি ব্যাগের থলি দিয়ে পালিয়ে যায়। গোলজার রহমান ব্যাগে থাকা স্বর্ণের বারগুলো একটি বিদ্যুৎ চালিত কাঠের স’মিলের কাঠের নিচে রেখে পালানোর চেষ্টা করেন। এ সময় পুলিশ তাকে আটক করে। পরে তার দেয়া তথ্য আনুযায়ী কাঠের স’মিল থেকে ৮টি স্বর্ণের বার, একটি মোবাইল ও ৬ হাজার টাকা উদ্ধার করা হয়।
তিনি আরও জানান, স্বর্ণের বারগুলো থানায় এনে স্বর্ণকারদের দিয়ে তা পরীক্ষা করানো হয় এবং সেগুলোর  ওজন ৭৯ ভরির বেশি। যার মূল্য প্রায় ৫২ লাখ টাকা। পরে উপজেলা নির্বাহী অফিসার পরিমল কুমার সরকারের উপস্থিতিতে স্বর্ণের বারগুলো সিলগালা করা হয়। আসামির বিরুদ্ধে বিরামপুর থানায় মামলা হয়েছে।

অবশ্যই দিতে হবে *
অবশ্যই দিতে হবে *
অন্যান্য খবর