× প্রচ্ছদ অনলাইনপ্রথম পাতাশেষের পাতাখেলাবিনোদনএক্সক্লুসিভভারতবিশ্বজমিনবাংলারজমিনদেশ বিদেশশিক্ষাঙ্গনসাক্ষাতকাররকমারিপ্রবাসীদের কথামত-মতান্তরফেসবুক ডায়েরিবই থেকে নেয়া তথ্য প্রযুক্তি শরীর ও মন চলতে ফিরতে ষোলো আনা মন ভালো করা খবরকলকাতা কথকতাখোশ আমদেদ মাহে রমজানস্বাধীনতার সুবর্ণ জয়ন্তীসেরা চিঠিইতিহাস থেকে
ঢাকা, ২৯ নভেম্বর ২০২১, সোমবার , ১৫ অগ্রহায়ণ ১৪২৮ বঙ্গাব্দ, ২৩ রবিউস সানি ১৪৪৩ হিঃ

রবীন্দ্র বিশ্ববিদ্যালয়ে ফের আমরণ অনশনে শিক্ষার্থীরা

বাংলারজমিন

শাহ্‌জাদপুর (সিরাজগঞ্জ) প্রতিনিধি
২৪ অক্টোবর ২০২১, রবিবার

রবীন্দ্র বিশ্ববিদ্যালয়ের ১৪ শিক্ষার্থীর চুল কেটে দেয়ার ঘটনায় অভিযুক্ত শিক্ষক ফারহানা ইয়াসমিন বাতেনের বিরুদ্ধে চূড়ান্ত কোনো সিদ্ধান্ত ছাড়াই বিশ্ববিদ্যালয়ের সিন্ডিকেটের সভা মূলতবি করায়  ফের আমরণ অনশন শুরু করেছে শিক্ষার্থীরা। শুক্রবার রাত থেকে শাহ্‌জাদপুর মহিলা ডিগ্রি কলেজের অস্থায়ী একাডেমিক ভবনের মূল ফটকে ফারহানা ইয়াসমিনকে স্থায়ী বহিষ্কারের দাবিতে শিক্ষার্থীরা এ অনশন শুরু করেছে। জানা গেছে, ১৪ শিক্ষার্থীর মাথার চুল কেটে দেয়ার ঘটনায় ৫ সদস্যের তদন্ত কমিটির প্রধান লায়লা ফেরদৌস হিমেল বৃহস্পতিবার বিকালে ট্রেজারার ও ভিসি (অতিরিক্ত দায়িত্ব) অধ্যাপক আব্দুল লতিফের কাছে তদন্ত প্রতিবেদন জমা দেন। এর প্রেক্ষিতে শুক্রবার বিকাল ৪ টায় বিশ্ববিদ্যালয়ের সিন্ডিকেটের সভা অনুষ্ঠিত হয়। টানা ৩ ঘণ্টা সিন্ডিকেটের সভা চললেও অভিযুক্ত শিক্ষকের বিরুদ্ধে চূড়ান্ত কোনো সিদ্ধান্ত ছাড়াই সভা মূলতবি করা হয়। এক পর্যায়ে বিশ্ববিদ্যালয়ের ভিসি অধ্যাপক আব্দুল লতিফ ও  রেজিস্ট্রার সোহরাব আলী অপেক্ষমাণ শিক্ষার্থীদের বিষয়টি অবহিত করেন। এর প্রেক্ষিতে রাতেই শিক্ষার্থীরা জরুরি বৈঠক শেষে অভিযুক্ত শিক্ষক ফারহানা ইয়াসমিনকে স্থায়ী বহিষ্কারের দাবিতে ফের আমরণ অনশন কর্মসূচি শুরু করে। গতকাল আন্দোলনকারী শিক্ষার্থীদের মুখপাত্র আবু জাফর, অনামিকা ও শামীম হোসেন সাংবাদিকদের জানান, ‘আমরা আশা করেছিলাম সিন্ডিকেটের বৈঠকে ফারহানা ইয়াসমিনকে স্থায়ীভাবে বরখাস্ত করা হবে।
কিন্তু বিশ্ববিদ্যালয় কর্তৃপক্ষ এ বিষয়ে কোনো সিদ্ধান্ত না নিয়ে সিন্ডিকেটের সভা মূলতবি করে আমাদেরকে পরীক্ষা হলে ফিরে যেতে নির্দেশ দেন। কর্তৃপক্ষের এই কালক্ষেপণে আমরা সন্দিহান ও শঙ্কিত। আমাদের একটাই দাবি, অভিযুক্ত শিক্ষককে স্থায়ীভাবে বহিষ্কার না করা পর্যন্ত আন্দোলন অব্যাহত থাকবে।’

অবশ্যই দিতে হবে *
অবশ্যই দিতে হবে *
অন্যান্য খবর