× প্রচ্ছদ অনলাইনপ্রথম পাতাশেষের পাতাখেলাবিনোদনএক্সক্লুসিভভারতবিশ্বজমিনবাংলারজমিনদেশ বিদেশশিক্ষাঙ্গনসাক্ষাতকাররকমারিপ্রবাসীদের কথামত-মতান্তরফেসবুক ডায়েরিবই থেকে নেয়া তথ্য প্রযুক্তি শরীর ও মন চলতে ফিরতে ষোলো আনা মন ভালো করা খবরকলকাতা কথকতাখোশ আমদেদ মাহে রমজানস্বাধীনতার সুবর্ণ জয়ন্তীসেরা চিঠিইতিহাস থেকে
ঢাকা, ২৮ নভেম্বর ২০২১, রবিবার , ১৪ অগ্রহায়ণ ১৪২৮ বঙ্গাব্দ, ২২ রবিউস সানি ১৪৪৩ হিঃ

ভূমধ্যসাগরের তলদেশে পাওয়া গেল ক্রুসেডের সময়কার তরবারি

অনলাইন

মানবজমিন ডিজিটাল
(১ মাস আগে) অক্টোবর ২৪, ২০২১, রবিবার, ৬:৩১ অপরাহ্ন

ইসরায়েলি বসতির উত্তরে ভূমধ্যসাগরের তলদেশে ৯’শ বছরের আগের একটি তলোয়ারের খোঁজ পাওয়া গেছে। একজন ইসরায়েলি ডুবুরি সাগরের তলদেশ থেকে ক্রুসেডের সময়কার এই বড় তলোয়ারটি খুঁজে পেয়েছেন বলে জানাচ্ছেন ইসরায়েলি গবেষকরা। ইসরায়েলের অ্যাটলিট থেকে শ্লোমি ক্যাটজিন নামের ওই ডুবুরি ভূমধ্যসাগরীয় সমুদ্রতটে প্রাচীন অস্ত্রটির পাশাপাশি বেশ কিছু পুরাকীর্তি পেয়েছেন। যার মধ্যে রয়েছে পাথরের নোঙ্গর, ধাতুর তৈরি নোঙ্গর এবং মৃৎপাত্রের টুকরো ইত্যাদি। তলোয়ারটির ব্লেডটি ৩৯ ইঞ্চি লম্বা এবং প্রায় ১২ ইঞ্চি একটি হাতল রয়েছে , এটি সম্ভবত ক্রুসেডার নাইট যোদ্ধার হবে বলে মনে করছেন গবেষকরা ।ক্যাটজিন এই তলোয়ারটি সমুদ্রের তলদেশের বালির নীচে আরও চাপা পড়ার আশঙ্কায় তীরে তুলে এনেছিলেন। এরপর তিনি ইসরায়েল কর্তৃপক্ষকে বিষয়টি জানান এবং তাঁকে "দায়িত্বশীল নাগরিক " -এর সম্মাননা প্রদান করা হয়। এই তরবারি আবিষ্কারকে বিরল বলে ব্যাখ্যা করেছেন ইসরায়েল আন্টিক অথরিটির (আইএএ) ডাকাতদমন শাখার ইন্সপেক্টর নীর ডিস্টিলফেল্ড। তাঁর মতে এটি স্পষ্টতই একজন নাইট যোদ্ধার।
এটি সমুদ্রের তলায় সামুদ্রিক জীব দ্বারা আবৃত অবস্থায় পাওয়া গেছিলো , কিন্তু এটুকু বোঝা যায় তলোয়ার তৈরিতে লোহা ব্যবহার করা হয়েছিল। এই ধরণের একটি জিনিস আবিষ্কার সত্যিই উত্তেজনাপূর্ণ, যা আপনাকে ৯০০ বছর আগে একটি ভিন্ন যুগে নিয়ে যায়। যে সময়ে ছিল নাইট, বর্ম এবং তলোয়ার, বলছেন নীর ডিস্টিলফেল্ড। মূলত ক্রুসেড শব্দটির সাথে ধর্মযুদ্ধ জড়িত। ধর্মীয় যুদ্ধের সময় এই তলোয়ার ব্যবহার করত সৈন্যরা। আর সেসময়কার যোদ্ধাদের বলা হত ক্রুসেডার। ১০৯৫ সালে শুরু হওয়া ক্রুসেড চলে প্রায় শতাব্দী ধরে। এই সময়ে ইউরোপীয় খ্রিষ্টানরা মধ্যপ্রাচ্য জুড়ে ভ্রমণ করেছে জেরুজালেমসহ মুসলিমদের অন্য পবিত্র ভূমি দখলের চেষ্টায়। আইএএ-র সামুদ্রিক প্রত্নতত্ত্ব ইউনিটের পরিচালক কোবি শারভিটের মতে, তরোয়াল এবং অন্যান্য জিনিসগুলি ইসরায়েলের কারমেল উপকূলে পাওয়া গেছে, যেখানে অনেক প্রাকৃতিক খাদ রয়েছে যা ঝড়ের সময় প্রাচীন জাহাজগুলিকে আশ্রয় প্রদান করত । যার জেরেই সামনে এসেছে এই ধরণের প্রত্নতাত্বিক আবিষ্কার। এক বিবৃতিতে গণমাধ্যমকে ইসরায়েলের প্রত্নতত্ত্ব কর্তৃপক্ষ জানিয়েছে, তলোয়ারটি পরিষ্কার করে সেটি খতিয়ে দেখার পর মানুষের প্রদর্শনীর জন্য উন্মুক্ত করে দেওয়া হবে। ৯০০ বছর আগের হারিয়ে যাওয়া ইতিহাস প্রত্যক্ষ করতে পারবে মানুষ। সূত্র : cbsnews.com

অবশ্যই দিতে হবে *
অবশ্যই দিতে হবে *
পাঠকের মতামত
**মন্তব্য সমূহ পাঠকের একান্ত ব্যক্তিগত। এর জন্য সম্পাদক দায়ী নন।
Jesmin
২৫ অক্টোবর ২০২১, সোমবার, ৯:১২

এ এমন আর কি হলো! ক্রুসেডারদের জীবন্ত ঢাল, তলোয়ার, বর্সা, তুর্কি আর আরবদের মিউজিয়ামে অসংখ্য পাবেন। তার ও 500 বছর আগের রাসূল সাঃ এর সাহাবাদের ব্যবহৃত ঢাল, তলোয়ার, বর্সাও পাবেন সেখানে।

অন্যান্য খবর