× প্রচ্ছদ অনলাইনপ্রথম পাতাশেষের পাতাখেলাবিনোদনএক্সক্লুসিভভারতবিশ্বজমিনবাংলারজমিনদেশ বিদেশশিক্ষাঙ্গনসাক্ষাতকাররকমারিপ্রবাসীদের কথামত-মতান্তরফেসবুক ডায়েরিবই থেকে নেয়া তথ্য প্রযুক্তি শরীর ও মন চলতে ফিরতে ষোলো আনা মন ভালো করা খবরকলকাতা কথকতাখোশ আমদেদ মাহে রমজানস্বাধীনতার সুবর্ণ জয়ন্তীসেরা চিঠিইতিহাস থেকে
ঢাকা, ৫ ডিসেম্বর ২০২১, রবিবার , ২১ অগ্রহায়ণ ১৪২৮ বঙ্গাব্দ, ২৯ রবিউস সানি ১৪৪৩ হিঃ

ইতালিতে ইউনিসেফ ইনোসেন্টি ফিল্ম ফেস্টিভ্যালে পুরস্কার জিতলো বাংলাদেশি চলচ্চিত্র ‘অন্তরা’

বিনোদন

মানবজমিন ডিজিটাল
২৫ অক্টোবর ২০২১, সোমবার

বাংলাদেশি পরিচালক ফরিদ আহমদের ‘অন্তরা’ ইউনিসেফ ইনোসেন্টি ফিল্ম ফেস্টিভ্যাল ২০২১ (ইউআইএফএফ) এ ‘সেরা চলচ্চিত্র - মহামারিতে শৈশব’ পুরস্কার জিতেছে। ইউনিসেফের গবেষণা কার্যালয়- ইনোসেন্টি আয়োজিত এই উৎসব এমন চলচ্চিত্রগুলোকে তুলে ধরেছে যা বর্তমানে সময়ে একজন শিশু হওয়ার অভিজ্ঞতাকে দক্ষতার সঙ্গে তুলে ধরেছে।ইতালির ফ্লোরেন্সে ২১-২৪ অক্টোবর অনুষ্ঠিত এই উৎসবে ২৯টি দেশের ৩৮টি চলচ্চিত্র প্রদর্শিত হয়।

সোমবার ইউনিসেফ বাংলাদেশ এক সংবাদ বিজ্ঞপ্তিকে জানায়, ‘অন্তরা’ শীর্ষক এই সংক্ষিপ্ত তথ্যচিত্রটি বাংলাদেশের একটি ঘনবসতিপূর্ণ পাড়ায় বসবাসকারী এক শিশুর দৃষ্টিকোণ থেকে লকডাউনের গল্প বলে। নিপুণভাবে একটি শিশুর বন্দীদশার অভিজ্ঞতা তুলে ধরার কারণে জুরি এই চলচ্চিত্রটিকে পুরস্কারের জন্য বেছে নেয়।

পরিচালক ফরিদ আহমদ বলেন, “করোনাকালীন সময়ে হঠাৎ ঘরবন্দী হওয়ার বাস্তবতা শিশুর মনোজগতকে আক্রান্ত করেছে - একধরণের বিচ্ছিন্নতাবোধও তৈরি করেছে শিশুর মধ্যে। এমনকি শিশুর স্বপ্নকেও প্রভাবিত করেছে।  টুকরো টুকরো এই অভিজ্ঞতাগুলো ধরে রাখতে গিয়ে তৈরি হয়েছে এই চলচ্চিত্র।“

শিশুদের নিয়ে চলচ্চিত্র নির্মাণে স্বীকৃতি দিতে এবং বিশ্বজুড়ে শৈশবের অভিজ্ঞতা অনুসন্ধানে উৎসাহ যোগাতে ইউআইএফএফ ’আইরিস’ পুরস্কার চালু করে। এর দ্বিতীয় সংস্করণে বেশ উৎসাহব্যঞ্জক সাড়া পাওয়া গেছে এবং ১১৪টি দেশ থেকে বিবেচনার জন্য মোট ১৭০০টি চলচ্চিত্র জমা পড়ে।

বাংলাদেশে ইউনিসেফের প্রতিনিধি মি.শেলডন ইয়েট বলেন, “মহামারী বাংলাদেশসহ সারা বিশ্বে শিশুদের মানসিক ও শারীরিক স্বাস্থ্যের উপর ব্যাপক প্রভাব ফেলেছে। শিশুরা লকডাউনের সময় যেই একাকীত্ব এবং বিচ্ছিন্নতার অনুভব করেছিল, ‘অন্তরা’ তারই একটি সংবেদনশীল প্রকাশ। এই মহামারীর প্রত্যক্ষ এবং পরোক্ষ প্রভাব আগামী বছরগুলিতেও শিশুদের সাথে থাকবে।"

অবশ্যই দিতে হবে *
অবশ্যই দিতে হবে *
অন্যান্য খবর