× প্রচ্ছদ অনলাইনপ্রথম পাতাশেষের পাতাখেলাবিনোদনএক্সক্লুসিভভারতবিশ্বজমিনবাংলারজমিনদেশ বিদেশশিক্ষাঙ্গনসাক্ষাতকাররকমারিপ্রবাসীদের কথামত-মতান্তরফেসবুক ডায়েরিবই থেকে নেয়া তথ্য প্রযুক্তি শরীর ও মন চলতে ফিরতে ষোলো আনা মন ভালো করা খবরকলকাতা কথকতাখোশ আমদেদ মাহে রমজানস্বাধীনতার সুবর্ণ জয়ন্তীসেরা চিঠিইতিহাস থেকে
ঢাকা, ২৭ নভেম্বর ২০২১, শনিবার , ১৩ অগ্রহায়ণ ১৪২৮ বঙ্গাব্দ, ২১ রবিউস সানি ১৪৪৩ হিঃ

মদিনায় বিএনপি, বীরগাঁওয়ে আওয়ামী লীগ

বাংলারজমিন

জাবেদ রহিম বিজন, ব্রাহ্মণবাড়িয়া থেকে
২৮ অক্টোবর ২০২১, বৃহস্পতিবার

 বাছবিচার ছাড়াই তৃণমূল থেকে মনোনয়নের জন্য নাম প্রস্তাব। মামলার আসামি, অন্য দলের নেতা, আরও নানা অভিযোগে অভিযুক্তদের নাম দেয়া হচ্ছে তালিকার শীর্ষে। তৃণমূলের তালিকানুসারে নৌকার কাণ্ডারিও হচ্ছেন তারা। এক্ষেত্রে মনোনয়ন বাণিজ্যের অভিযোগ উঠছে জোরেশোরে। চেয়ারম্যান পদে আওয়ামী লীগের মনোনয়ন তেলেসমাতিতে ব্রাহ্মণবাড়িয়ার ইউনিয়নে ইউনিয়নে ছড়িয়ে পড়েছে ক্ষোভ-অসন্তোষ।
জেলার ১০০ ইউনিয়নের মধ্যে ৪৬ ইউনিয়নের নির্বাচনের তফসিল হয়েছে এরই মধ্যে। ১১ই নভেম্বর নাসিরনগর উপজেলার ১৩ ইউনিয়নে, ২৮শে নভেম্বর নবীনগরের ১৩, বাঞ্ছারামপুরের ১১  এবং সরাইলের ৯ ইউনিয়নে ভোটগ্রহণ। নির্বাচনের তফসিল ঘোষণার পর এসব ইউনিয়নে আওয়ামী লীগের প্রার্থীর নাম ঘোষণা করা হয়।
 
নাসিরনগরের ১৩ ইউনিয়নে মনোনয়ন দাখিলের সময় পেরিয়েছে ১৭ই অক্টোবর। এসব ইউনিয়নে চেয়ারম্যান পদে ৬০ জন প্রতিদ্বন্দ্বিতা করছেন।
মনোনয়নে তেলেসমাতি: নবীনগরের বীরগাঁও ইউনিয়নে আওয়ামী লীগের মনোনয়ন পেয়েছেন আনোয়ার হোসেন। তৃণমূল থেকে যে ৩ জনের নাম প্রস্তাব করা হয় এরমধ্যে আনোয়ারের নাম ছিল ১ নম্বরে। নাম প্রস্তাবের পরই তিনি বিএনপির রাজনীতিতে জড়িত ছিলেন বলে অভিযোগ উঠে। সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যমেও এ নিয়ে লেখালেখি শুরু হয়। সৌদি আরবের মদিনা মনোয়ারা প্রাদেশিক যুবদল কমিটির সদস্য হিসাবে আনোয়ার হোসেনের দেয়া পোস্টগুলো সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যমে ছড়িয়ে পড়ে। বিএনপি’র প্রতিষ্ঠাবার্ষিকীতে এবং আন্তর্জাতিক মাতৃভাষা দিবসে নিজের ছবি ও দলের পদবি ব্যবহার করে ২০১৭ এবং ২০১৯ সালে এসব পোস্ট দেন আনোয়ার। প্রবাসে দলের আলোচনা সভায় অংশ নেয়ার ছবিও ছড়িয়েছে ফেসবুকে। নবীনগরের বীরগাঁওয়ের কিশোরপুর গ্রামের এই আনোয়ার হোসেনের নাম রয়েছে আবার নবীনগর যুবলীগের কমিটিতেও। ২০১৭ সালে জেলা যুবলীগ সভাপতি ও সাধারণ সম্পাদক অনুমোদিত ওই কমিটিতে সহ-সম্পাদক পদ রয়েছে তার। তবে আনোয়ার হোসেন এসব অভিযোগ মিথ্যা বলে দাবি করেন। তিনি দীর্ঘদিন ধরে আওয়ামী লীগের রাজনীতির সঙ্গে যুক্ত বলে জানান। তার মনোনয়নের বিষয়ে উপজেলা আওয়ামী লীগের সাধারণ সম্পাদক আবদুল হালিম বলেন- তৃণমূল থেকে তার নাম প্রস্তাব আসে। আমরা ওভাবে সেটি যাচাই করিনি। এটা আমাদের হয়তো একটা ভুল হতে পারে। এ ব্যাপারে জানতে চাইলে ব্রাহ্মণবাড়িয়া জেলা আওয়ামী লীগের সাধারণ সম্পাদক আল মামুন সরকার বলেন, উপজেলা থেকে যে তালিকা এসেছে, সেখানেই তাদের সবার পরিচয় লেখা আছে। তবে এই অভিযোগের সত্যতা সম্পর্কে তিনি কোনো মন্তব্য করেননি।

অবশ্যই দিতে হবে *
অবশ্যই দিতে হবে *
অন্যান্য খবর