× প্রচ্ছদ অনলাইনপ্রথম পাতাশেষের পাতাখেলাবিনোদনএক্সক্লুসিভভারতবিশ্বজমিনবাংলারজমিনদেশ বিদেশশিক্ষাঙ্গনসাক্ষাতকাররকমারিপ্রবাসীদের কথামত-মতান্তরফেসবুক ডায়েরিবই থেকে নেয়া তথ্য প্রযুক্তি শরীর ও মন চলতে ফিরতে ষোলো আনা মন ভালো করা খবরকলকাতা কথকতাখোশ আমদেদ মাহে রমজানস্বাধীনতার সুবর্ণ জয়ন্তীসেরা চিঠিইতিহাস থেকে
ঢাকা, ২৮ নভেম্বর ২০২১, রবিবার , ১৩ অগ্রহায়ণ ১৪২৮ বঙ্গাব্দ, ২২ রবিউস সানি ১৪৪৩ হিঃ

ভার্চ্যুয়াল প্লট বিক্রি হলো ২৪ লাখ ডলার মূল্যের সমান ক্রিপ্টোকারেন্সিতে

বিশ্বজমিন

মানবজমিন ডেস্ক
(৩ দিন আগে) নভেম্বর ২৪, ২০২১, বুধবার, ১১:৫৯ পূর্বাহ্ন
সর্বশেষ আপডেট: ৩:১৭ অপরাহ্ন

অনলাইনে ভার্চ্যুয়াল রিয়েল এস্টেটের কেনাবেচা চলছে ধুমছে। এরই মধ্যে রেকর্ড স্পর্শ করেছে এই কেনাবেচা। মঙ্গলবার এমন এক কেনাবেচায় ডিসেন্ট্রাল্যান্ড নামের প্রতিষ্ঠানের এক টুকরো ভার্চ্যুয়াল প্লট বা জমি বিক্রি হয়েছে কমপক্ষে ২৪ লাখ ডলার সমমূল্যের ক্রিপ্টোকারেন্সিতে। ক্রিপ্টোকারেন্সির বিনিয়োগকারী টোকেনস ডট কম এবং ডিসেন্ট্রাল্যান্ড মঙ্গলবার এ কথা জানিয়েছে। এ খবর দিয়েছে বার্তা সংস্থা রয়টার্স। উল্লেখ্য, ডিসেন্ট্রাল্যান্ড হলো একটি অনলাইন প্রতিষ্ঠান। একে মেটাভার্সও বলা হয়। মেটাভার্স হলো অনলাইন থ্রিডি একটি ভার্চ্যুয়াল জগত।
এর ব্যবহারকারীরা ডিসেন্ট্রাল্যান্ড থেকে জমি কিনতে পারেন।

দেখতে পারেন বিভিন্ন ভবন। তার ভিতর দিয়ে হেঁটে দেখতে পারেন। অবতারদের মতো লোকজনের সঙ্গে সাক্ষাতও করতে পারেন। এ ধরনের ‘এনভায়রনমেন্ট’ এ বছরে ব্যাপক জনসমর্থন পেয়েছে। এতে করোনা মহামারি সাপে বর হয়ে এসেছে। কারণ, এই মহামারির কারণে অসংখ্য মানুষ অনলাইনে অধিক সময় ব্যয় করতে সক্ষম হয়েছে। গত মাসে ফেসবুক কোম্পানি তার নাম পরিবর্তন করে ‘মেটা’ নাম ধারণ করে। এতে তারা মেটাভার্সের জন্য ভার্চ্যুয়াল রিয়েলিটি প্রোডাক্টের দিকে দৃষ্টি দেয়ার কথা বলে। ফলে মেটাভার্সের দিকে দৃষ্টি আকৃষ্ট হয়েছে বিপুল পরিমাণ মানুষের। তারা এতে ক্রমশ আগ্রহী হয়ে উঠছেন।

এক বিশেষ ধরণের মেটাভার্স হলো ডিসেন্ট্রাল্যান্ড। এটা ব্যবহার করে ব্লকচেইন। এখানে জমি এবং অন্যান্য সামগ্রী বিক্রি হয় অফেরতযোগ্য টোকেনের মাধ্যমে (এনএফটি), যা এক ধরনের ক্রিপ্টো সম্পদ। মানা নামের একটি ক্রিপ্টোকারেন্সি ব্যবহার করে এসব প্রতিষ্ঠান থেকে জমি কিনতে, বিনিয়োগ করতে উৎসাহিত করা হয়। সোমবার ৬ লাখ ১৮ হাজার মানা দিয়ে এক টুকরো রিয়েল এস্টেট কিনেছে সাবসিডিয়ারি প্রতিষ্ঠান টোকেনস ডট কম।

এই প্রতিষ্ঠানটি মেটাভার্স গ্রুপ নামেও পরিচিত। ডিসেন্ট্রাল্যান্ডের এক মুখপাত্র এবং টোকেনস ডট কম এক বিবৃতিতে বলেছে, অর্থের দিক দিয়ে এই রিয়েল এস্টেটের দাম ছিল ২৪ লাখ ২৮ হাজার ৭৪০ ডলার। ওপেনসি’ নামের এনএফটি মার্কেটপ্লেসে এই ভূমি ক্রয়ের রেকর্ড দেখতে পেয়েছে বার্তা সংস্থা রয়টার্স। ভার্চ্যুয়াল রিয়েল এস্টেটের ইতিহাসে এটাই সবচেয়ে বেশি দামের জমি কেনাকাটা বলে জানিয়েছে ডিসেন্ট্রাল্যান্ড।

এই জমিটি ডিসেন্ট্রাল্যান্ডের ম্যাপের ভিতর ফ্যাশন স্ট্রিটে। টোকেনস ডট কম বলেছে, তারা এই জমিতে ডিজিটাল ফ্যাশন ইভেন্ট আয়োজন করবে। অবতারদের জন্য ভার্চ্যুয়াল পোশাক বিক্রি করবে। পুরো জমিটি ভার্চ্যুয়াল জগতে ৬০৯০ বর্গফুটের। এতে আছে ১১৬টি ছোট ছোট পার্সেল। প্রতিটির মাপ ৫২.৫ বর্গফুট। টোকেনস ডট কমের প্রধান নির্বাহী কর্মকর্তা অ্যানড্রু কিগুয়েল বলেছেন, মেটাভার্স গ্রুপ এরই মধ্যে যে রিয়েল এস্টেটের মালিক, তার পরিপূরক হবে এই সম্পদ। উল্লেখ্য, জুনে ডিসেন্ট্রাল্যান্ট আরেকটি ভার্চ্যুয়াল প্লট বিক্রি করেছে ১২ লাখ ৯৫ হাজার মানা’তে। ওই সময় এর অর্থমূল্য ছিল ৯ লাখ ১৩ হাজার ২২৮ ডলারের সমান। সেখানে ডিজিটাল পোশাক বিক্রির জন্য এরই মধ্যে একটি ভার্চ্যুয়াল শপিং সেন্টার নির্মাণ করেছে ক্রেতারা।

অবশ্যই দিতে হবে *
অবশ্যই দিতে হবে *
অন্যান্য খবর