× প্রচ্ছদ অনলাইনপ্রথম পাতাশেষের পাতাখেলাবিনোদনএক্সক্লুসিভভারতবিশ্বজমিনবাংলারজমিনদেশ বিদেশশিক্ষাঙ্গনসাক্ষাতকাররকমারিপ্রবাসীদের কথামত-মতান্তরফেসবুক ডায়েরিবই থেকে নেয়া তথ্য প্রযুক্তি শরীর ও মন চলতে ফিরতে ষোলো আনা মন ভালো করা খবরকলকাতা কথকতাখোশ আমদেদ মাহে রমজানস্বাধীনতার সুবর্ণ জয়ন্তীসেরা চিঠিইতিহাস থেকে
ঢাকা, ২৮ নভেম্বর ২০২১, রবিবার , ১৪ অগ্রহায়ণ ১৪২৮ বঙ্গাব্দ, ২২ রবিউস সানি ১৪৪৩ হিঃ

‘একদিন বার্সেলোনায় ফিরবো’

খেলা

স্পোর্টস ডেস্ক
২৫ নভেম্বর ২০২১, বৃহস্পতিবার

কোচ হয়ে ফিরেছেন জাভি হার্নান্দেজ, দানি আলভেজকে দেখা যাবে ব্লাউগ্রানাদের রাইট ব্যাক পজিশনে। লিওনেল মেসিকেও ফেরানোর ইঙ্গিত দিয়েছেন বার্সেলোনা কোচ হুয়ান লাপোর্তা। আর্জেন্টাইন সুপারস্টারের গলায়ও অভিন্ন সুর। বলেছেন, ‘একদিন বার্সেলোনায় ফিরবো।’
কবে ফিরবেন মেসি? কী হিসেবে যোগ দেবেন বার্সেলোনায়? ৩৪ বছর, তবে বয়সটাকে সংখ্যার হিসাবেই আটকে রেখেছেন মেসি। পারফরম্যান্সে এখনও রয়েছে তারুণ্যের ছাপ। তবে খেলোয়াড় হিসেবে নয়; মেসির কথায় অন্য ভূমিকারই আভাস পাওয়া যায়। সম্প্রতি স্প্যানিশ দৈনিক মার্কাকে দেয়া সাক্ষাৎকারে বার্সেলোনা, পিএসজি, আর্জেন্টিনাসহ নানা বিষয়ে কথা বলেছেন মেসি।
মেসির কাছে প্রশ্ন করা হয়- লাপোর্তা বলেছেন, তিনি বিশ্বাস করেন আপনি এবং ইনিয়েস্তা বার্সেলোনায় ফিরতে পারেন, আপনি কি মনে করেন তার স্বপ্ন সত্যি হবে? জবাবে পাল্টা প্রশ্ন ছুঁড়ে দেন মেসি, ‘খেলোয়াড় হিসেবে?’ মেসি স্পষ্টভাবে নিজের পরিকল্পনার কথা না জানালেও অন্য একটি সাক্ষাৎকারে জানিয়েছেন, খেলোয়াড় হিসেবে ন্যু-ক্যাম্পে ফিরবেন না তিনি।
নভেম্বরের শুরুতে আরেক স্প্যানিশ গণমাধ্যম ‘ স্পোর্ত’কে মেসি বলেছিলেন, ‘বার্সেলোনার উন্নতিতে নিজেকে কাজে লাগাতে চাই। আমি টেকনিক্যাল সেক্রেটারি হতে চাই।
আমি ফিরতে চাই, কারণ ক্লাবকে (বার্সেলোনা) ভালোবাসি।’
মৌসুমের শুরুতে দুই বছরের চুক্তিতে পিএসজিতে যোগ দেন মেসি। একবছর চুক্তির মেয়াদ বাড়ানোরও সুযোগ রয়েছে আর্জেন্টিনা অধিনায়কের সামনে। অর্থাৎ মেসি তিন বছর পিএসজিতে থাকলে তখন তার বয়স হবে ৩৭ বছর।
লিওনেল মেসির বিদায়ের পর স্মরণকালের সর্বোচ্চ বাজে সময় পাড় করছে বার্সেলোনা। রোনাল্ড কোম্যানের অধীনে ধুঁকতে থাকা ব্লাউগ্রানাদের ভাগ্য বদলানোর দায়িত্ব পেয়েছেন জাভি হার্নান্দেজ। বার্সেলোনার সাবেক এই ফুটবলারের অধীনে ভাগ্য কি বদলাবে? মেসি আশাবাদী, ‘জাভির হাত ধরে বার্সেলোনা আবার জেগে উঠবে। তিনি এমন একজন কোচ যিনি অনেক কিছু জানেন এবং বার্সেলোনাকে ভালো করে চেনেন।’
ক্রিস্টিয়ানো রোনালদোর সঙ্গে প্রতিদ্বন্দ্বিতা মিস করেন? মার্কার প্রশ্নের জবাবে মেসি বলেন, ‘অনেক সময় হলো আমরা একই লীগে খেলছি না। আমরা দলের জন্য পরস্পর লড়াই করতাম। খুবই সুন্দর সময় ছিল, বিশেষ করে ভক্তদের জন্য। তারা আমাদের প্রতিদ্বন্দ্বিতা উপভোগ করত। ফুটবল ইতিহাসে এটি দারুণ স্মৃতি হয়েই থাকবে।’
২০১৮ সালে রিয়াল মাদ্রিদ ছেড়ে জুভেন্টাসে পাড়ি জমান ক্রিস্টিয়ানো রোনালদো। এর আগে ২০১৭ সালে ব্রাজিলিয়ান সুপারস্টার নেইমারকে ছেড়েছে বার্সেলোনা। আর মৌসুমের শুরুতে মেসির বিদায়ে সৌরভহীন হয়েছে স্প্যানিশ লা লিগা। প্রত্যেক মৌসুমেই লা লিগা থেকে সুপারস্টারদের হয় কেনো? নতুন তারকা খেলোয়াড়দের এই লীগে আগ্রহী করতে কী করা উচিত? মেসি বলেন, ‘প্রত্যাশিতভাবে তারা উঁচু মানের খেলোয়াড় টানতে এবং লীগকে গত এক দশকের মধ্যে সেরা পর্যায়ে নিয়ে যেতে সক্ষম। সবসময়ই বিশ্বের অন্যতম সেরা টুর্নামেন্ট হিসেবে বিবেচিত হয়েছে এটি। এটা সত্য যে অনেক তারকা খেলোয়াড় বিভিন্ন কারণে লা লিগা ত্যাগ করেছে। আমার বিশ্বাস অদূর ভবিষ্যতে লা লিগা তার পুরনো রূপে ফিরবে।’

অবশ্যই দিতে হবে *
অবশ্যই দিতে হবে *
অন্যান্য খবর