× প্রচ্ছদ অনলাইনপ্রথম পাতাশেষের পাতাখেলাবিনোদনএক্সক্লুসিভভারতবিশ্বজমিনবাংলারজমিনদেশ বিদেশশিক্ষাঙ্গনসাক্ষাতকাররকমারিপ্রবাসীদের কথামত-মতান্তরফেসবুক ডায়েরিবই থেকে নেয়া তথ্য প্রযুক্তি শরীর ও মন চলতে ফিরতে ষোলো আনা মন ভালো করা খবরকলকাতা কথকতাখোশ আমদেদ মাহে রমজানস্বাধীনতার সুবর্ণ জয়ন্তীসেরা চিঠিইতিহাস থেকে
ঢাকা, ২৫ জানুয়ারি ২০২২, মঙ্গলবার , ১১ মাঘ ১৪২৮ বঙ্গাব্দ, ২১ জমাদিউস সানি ১৪৪৩ হিঃ

শেষ দিকে দলবদল রাঙালো মোহামেডান

খেলা

স্পোর্টস রিপোর্টার
২৫ নভেম্বর ২০২১, বৃহস্পতিবার

দেড় মাসের বেশি সময় ধরে চলছে ঘরোয়া ফুটবলের দলবদল। আজ দেশি-বিদেশি ফুটবলার নিবন্ধনের শেষ দিন। আর শেষ দিকে এসে দলবদল খানিকটা রাঙিয়েছে ঐতিহ্যবাহী ক্লাব মোহামেডান। পায়ে হাঁটা দূরত্ব হলেও গতকাল বাদ্যযন্ত্র বাজিয়ে, প্রায় শ’খানেক সমর্থক নিয়ে বাফুফে ভবনে হাজির হয় সাদা কালো দলটি। নতুনত্ব ছিল মোহামেডানের সাদা কালো টি-শার্টে। মোহামেডানের লীগ শিরোপা জয়ের সালগুলো (১৯ বার) লেখা ছিল টি-শার্টের ওপর। শেখ রাসেল, পুলিশ ফুটবল ক্লাব, সাইফ স্পোর্টিং ক্লাব আনুষ্ঠানিক দলবদল সেরেছে।
গতকাল বাংলাদেশ ফুটবল ফেডারেশনে (বাফুফে) দলবদলের আনুষ্ঠানিকতা সারে মোহামেডান স্পোর্টিং ক্লাব। গত দুই মৌসুমে সাদা কালোরা কিছুটা আড়ম্বরভাবে দলবদলে অংশ নেয়।
গতকালও এর ধারাবাহিকতা ছিল। ক্লাবের সমর্থক ছাড়াও কয়েকজন খেলোয়াড়, সিনিয়র কর্মকর্তা, কোচিং স্টাফের অনেকেই এসেছিলেন দলবদলের আনুষ্ঠানিকতায়। বাফুফের সাবেক সদস্য ফজলুর রহমান বাবুল গত নির্বাচনের পর প্রথম বাফুফে ভবনে এসেছিলেন মোহামেডানের কর্মকর্তা হয়ে। ২০০২ সালের পর থেকে মোহামেডানের লীগ শিরোপা নেই। আসন্ন মৌসুমেও কাগজে-কলমে মোহামেডান পাচ-ছয় নম্বরে। এরপরও মোহামেডানের অস্ট্রেলিয়ান কোচ শন লি গতবারের চেয়ে ভালো করতে চান। এ নিয়ে তিনি বলেন, ‘আমরা গত আসরে ১ পয়েন্টের জন্য চতুর্থ হতে পারিনি। এবার অবশ্যই চতুর্থ এবং এর চেয়ে উপরে ওঠার লক্ষ্য। গতবার আমাদের স্কোরিংয়ে সমস্যা ছিল। এবার সেখানে ভালো মানের বিদেশি নিয়েছি।’ মোহামেডান গত আসরের বিদেশিদের মধ্যে শুধু মালির সুলেমান দিয়াবাতেকে রেখেছে। নতুন তিন বিদেশি এনেছে মেসোডোনিয়া ও নাইজেরিয়ান থেকে। এক যুগ পর আবার মোহামেডানে ফিরেছেন জাতয়ি তারকা মামুনুল ইসলাম।
এবার শিরোপার লক্ষ্যে দল গড়েছে শেখ রাসেল ক্রীড়া চক্র। দলটির কোচ সাইফুল বারী টিটু বলেন, ‘এবারের দল আগের চেয়ে অনেক ব্যালেন্স। সিজনও এবার আরো কঠিন হবে, প্রতিদ্বন্দ্বিতামূলক হবে। এবার অনেক দল এক নাম্বার হতে চেষ্টা করবে এবং আমরা তাদের মধ্যে অন্যতম।  বাংলাদেশ পুলিশ স্পোর্টিং ক্লাবের সাধারণ সম্পাদক  রেজাউল হায়দার বলেন, ‘উয়েফা প্রো-লাইসেন্স কোচ এনে দুই মাস আগেই আমরা অনুশীলন শুরু করেছি। এই কোচ গতবারের চেয়ে ভালো করবে এমন আশা করছি। দল বদলে আমরা গতবারের ঘাটতি পূরণ করার চেষ্টা করেছি। আমাদের প্লেয়ার এখানে ভালো করে অন্য ক্লাবে গেছে এটা আমাদের গর্বের ব্যাপার। (জমির, জুয়েল) ওদের জায়গায় যারা ঢুকেছে তারা এই জায়গা পূরণ করবে আশা করি। গতবারের চেয়ে লীগে আরো উপরের দিকে থাকা আমাদের টার্গেট। আমাদের ট্যালেন্ট প্লেয়ার আছে যেটা মাঠেই দেখা যাবে। আমাদের দলের ৩৫ জনের মধ্যে ১৬ জন পুলিশেই চাকরি করে। আগে আমরা সারা বছর ক্যাম্প করতাম না কিন্তু লীগে নাম লেখানোর পর সারা বছর ক্যাম্প করছি।’
অবশ্যই দিতে হবে *
অবশ্যই দিতে হবে *
অন্যান্য খবর