× প্রচ্ছদ অনলাইনপ্রথম পাতাশেষের পাতাখেলাবিনোদনএক্সক্লুসিভভারতবিশ্বজমিনবাংলারজমিনদেশ বিদেশশিক্ষাঙ্গনসাক্ষাতকাররকমারিপ্রবাসীদের কথামত-মতান্তরফেসবুক ডায়েরিবই থেকে নেয়া তথ্য প্রযুক্তি শরীর ও মন চলতে ফিরতে ষোলো আনা মন ভালো করা খবরকলকাতা কথকতাখোশ আমদেদ মাহে রমজানস্বাধীনতার সুবর্ণ জয়ন্তীসেরা চিঠিইতিহাস থেকে
ঢাকা, ২২ জানুয়ারি ২০২২, শনিবার , ৮ মাঘ ১৪২৮ বঙ্গাব্দ, ১৮ জমাদিউস সানি ১৪৪৩ হিঃ

বাবরের কথায় আত্মবিশ্বাস পেতে পারে টাইগাররা

খেলা

স্পোর্টস ডেস্ক
২৬ নভেম্বর ২০২১, শুক্রবার

ঢাকায় টি-টোয়েন্টি সিরিজে পাকিস্তানের বিপক্ষে কোনো প্রতিরোধ গড়তে পারেনি বাংলাদেশ দল। ঘরের মাঠে তিন ম্যাচ সিরিজ হেরেছে ৩-০ ব্যবধানে। তার আগে সংযুক্ত আরব আমিরাতে টি-টোয়েন্টি বিশ্বকাপে সুপার টুয়েলভে টানা পাঁচ ম্যাচে হার।
প্রথম টেস্টে পাকিস্তানের মুখোমুখি হওয়ার আগে আত্মবিশ্বাসটা তাই খুব শক্ত থাকার কথা নয় বাংলাদেশ দলের। আর টেস্টে বাংলাদেশের দুর্বলতা চোখে পড়ে বারবারই। তাই মুমিনুল হকের দল মাঠে নামার আগেই অনেক পিছিয়ে।
কিন্তু সাম্প্রতিক ক্রিকেটে টাইগারদের নাজুক নৈপুণ্য স্বত্ত্বেও বাংলাদেশকে হালকাভাবে নিচ্ছেন না পাকিস্তান দলের অধিনায়ক বাবর আজম। বরং তার কথা আত্মবিশ্বাস জোগাতে পারে টাইগারদের।
গতকাল অনলাইন সংবাদ সম্মেলনে প্রথম টেস্টের জন্য পাকিস্তানের ১২ জনের স্কোয়াড ঘোষণার পর সংবাদকর্মীদের প্রশ্নোত্তর পর্বে অংশ নেন বাবর আজম। বাবরকে এক সংবাদকর্মী প্রশ্ন করেন, টেস্টে পাকিস্তানকে বাংলাদেশ কঠিন পরীক্ষায় ফেলতে পারবে কি? বাবর বলেন, ‘কন্ডিশনটা পার্থক্য গড়েছে। এটা তাদের ঘরের মাঠ। তাদের (বাংলাদেশ) কখনো হালকাভাবে দেখার সুযোগ নেই। আসলে কোনো দলকেই হালকাভাবে দেখার সুযোগ নেই। (বাংলাদেশ) নিয়মিত দলটা না পেলেও তাদের তরুণেরা তো আছে। তারা কিন্তু এই কন্ডিশনেই খেলে উঠে এসেছে। এখানকার কন্ডিশনটা কঠিন। মানিয়ে নিতে একটু সময় লাগে। উইকেটে গিয়ে সময় কাটাতে হয়। আমার মতে, অবশ্যই কঠিন পরীক্ষায় ফেলতে পারে।’
বাংলাদেশ সফরে ব্যাট হাতে সময়টা ভালো যাচ্ছে না বাবরের। বড় রানের দেখা পাচ্ছেন না। বাংলাদেশের বিপক্ষে এর আগে একটি টেস্টই খেলেছেন বাবর, গত বছর রাওয়ালপিন্ডিতে। সে ম্যাচে এক ইনিংস ব্যাটিংয়ের সুযোগ পেয়ে ১৪৩ রান করেছিলেন। এবার টেস্ট সিরিজে সেই ফর্ম টেনে আনতে পারবে কি? এ প্রশ্নের উত্তরে পাকিস্তান অধিনায়ক খানিকটা মজা করেই বলেন, ‘সব সিরিজে কি আমি রান করবো? বাকিরাও তো আছে। অন্য খেলোয়াড়েরাও দায়িত্ব নিয়েছে। কখনো রান পাবেন, কখনো পাবেন না। ক্রিকেট এটাই শেখায়। সব ম্যাচেই ভালো খেলার চেষ্টা থাকে।’
অবশ্যই দিতে হবে *
অবশ্যই দিতে হবে *
অন্যান্য খবর