× প্রচ্ছদ অনলাইনপ্রথম পাতাশেষের পাতাখেলাবিনোদনএক্সক্লুসিভভারতবিশ্বজমিনবাংলারজমিনদেশ বিদেশশিক্ষাঙ্গনসাক্ষাতকাররকমারিপ্রবাসীদের কথামত-মতান্তরফেসবুক ডায়েরিবই থেকে নেয়া তথ্য প্রযুক্তি শরীর ও মন চলতে ফিরতে ষোলো আনা মন ভালো করা খবরকলকাতা কথকতাখোশ আমদেদ মাহে রমজানস্বাধীনতার সুবর্ণ জয়ন্তীসেরা চিঠিইতিহাস থেকে
ঢাকা, ২৮ জানুয়ারি ২০২২, শুক্রবার , ১৪ মাঘ ১৪২৮ বঙ্গাব্দ, ২৪ জমাদিউস সানি ১৪৪৩ হিঃ

শ্রীমঙ্গলে স্বতন্ত্র মেয়র প্রার্থীর বাসভবনে ছাত্রলীগের হামলা

বাংলারজমিন

শ্রীমঙ্গল (মৌলভীবাজার) প্রতিনিধি
২৭ নভেম্বর ২০২১, শনিবার

শ্রীমঙ্গলে পৌর নির্বাচনের এক স্বতন্ত্র মেয়র প্রার্থীর বাসভবনে গভীর রাতে হামলার অভিযোগ পাওয়া গেছে। এ ঘটনায়  মেয়র প্রার্থীর ছেলে মুরাদ হোসেন সুমন (২৪) ও ভাতিজা মোশারফ হোসেন রাজ (২৩) দায়ের আঘাতে মারাত্মক আহত হয়েছে। এরমধ্যে মোশারফ হোসেন রাজ ঢাকার এভারকেয়ার হাসপালে চিকিৎসাধীন রয়েছে।
গত বৃহস্পতিবার গভীর রাতে শ্রীমঙ্গলে পৌর নির্বাচনে স্বতন্ত্র মেয়র প্রার্থী ও বর্তমান মেয়র মহসিন মিয়া মধুর শহরের ধানসিঁড়ি এলাকার বাসভবনে এ হামলার ঘটনা ঘটে। মহসিন মিয়া মধু এ ঘটনায় প্রতিদ্বন্দ্বী নৌকা মার্কার প্রার্থী অধ্যক্ষ সৈয়দ মনসুরুল হকের কর্মীদের অভিযুক্ত করেছেন। তিনি গতকাল দুপুরে তার বাসভবনে গণমাধ্যম কর্মীদের কাছে এ অভিযোগ করেন। মহসিন মিয়া মধু বলেন, বৃহস্পতিবার রাত প্রায় সাড়ে ১২টার দিকে উপজেলা ছাত্রলীগের সাবেক সাধারণ সম্পাদক দেলোয়ার হোসেন রাহিদের নেতৃত্বে শতাধিক ছাত্রলীগ ও যুবলীগের কর্মীরা দা, চাপাতি, ও হকিস্টিক হাতে বাসভবনের মেইন গেটের তালা ভেঙে ভেতরে প্রবেশ করে। এ সময় বাসার উঠানে দাঁড়িয়ে থাকা আমার ভাতিজা মোশারফ হোসেন রাজ ও আমার ছেলে মুরাদ হোসেন সুমনকে দা দিয়ে এলোপাতাড়ি কুপিয়ে জখম করে। রাজকে আশঙ্কাজনক অবস্থায় প্রথমে শ্রীমঙ্গল স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সে পরে ঢাকায় এভারকেয়ার হাসপাতালে প্রেরণ করা হয়েছে।
বর্তমানে সে মৃত্যুর সঙ্গে পাঞ্জা লড়ছে। এরপর সন্ত্রাসীরা আমাকে হত্যার জন্য বাসার ভেতরে প্রবেশের চেষ্টা করলে আমি প্রশাসনকে ফোন করে সাহায্য প্রার্থনা করি। খবর পেয়ে ইউএনও, পুলিশ ও র‌্যাবের সদস্যরা ঘটনাস্থলে আসেন। তাদের উপস্থিতিতেই সন্ত্রাসীরা আবারো হামলা করার চেষ্টা করে। তিনি বলেন, আমার জনপ্রিয়তার কাছে নির্বাচনে নৌকা প্রার্থীর নিশ্চিত পরাজয় জেনে এই সন্ত্রাসী হামলা চালানো হয়েছে। এই নগ্ন সন্ত্রাসী হামলার ঘটনায় শ্রীমঙ্গল আসন্ন নির্বাচন নিয়ে সাধারণ ভোটারদের মধ্যে তীব্র আতঙ্ক দেখা দিয়েছে। এখানে সুষ্ঠু ও শান্তিপূর্ণ নির্বাচনের কোনো পরিবেশ নেই। প্রতিপক্ষ শহরের কেন্দ্রস্থল দখল করে জনসভা করলেও আমার পূর্ব নির্ধারিত নির্বাচনী জনসভার অনুমতি বাতিল করেছে প্রশাসন।
মহসিন মিয়া মধু গত বুধবার দুপুরে সংবাদ সম্মেলন করে নির্বাচনের পরিবেশ নিয়ে আশঙ্কা জানানোর পর রাতে এই হামলার ঘটনা ঘটলো। এদিন বিকালে পাল্টা এক সংবাদ সম্মেলন করেন আওয়ামী লীগ মনোনীত নৌকা প্রতীকের প্রার্থী জেলা আওয়ামী লীগের সাংগঠনিক সম্পাদক অধ্যক্ষ সৈয়দ মনসুরুল হক এ অভিযোগ অস্বীকার করে স্বতন্ত্র প্রার্থীর লোকজনদের হাতে তাদের ৩ ছাত্রলীগ কর্মী হামলার শিকার হয়েছে বলে জানিয়েছেন। তিনি বলেন, গত বৃহস্পতিবার রাতে উপজেলা ছাত্রলীগের সাবেক সাধারণ সম্পাদক দেলোয়ার হোসেন রাহিদ, তামিম ও সাদিকুল নামে ৩ কর্মী স্বতন্ত্র প্রার্থী মহসিন মিয়ার বাসভবনের সামনে রাস্তা দিয়ে যাবার সময় তাদের বাসার মধ্যে ধরে নিয়ে গিয়ে ছুরিকাঘাত করে। আহত দেলোয়ার হোসেন রাহিদ বর্তমানে সিলেট এমএজি ওসমানী মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে ভর্তি রয়েছেন। এ ছাড়া শ্রীমঙ্গলে নির্বাচনের স্বাভাবিক ও শান্তিপূর্ণ পরিবেশ বিরাজ করছে বলেও তিনি জানান।
অবশ্যই দিতে হবে *
অবশ্যই দিতে হবে *
অন্যান্য খবর