× প্রচ্ছদ অনলাইনপ্রথম পাতাশেষের পাতাখেলাবিনোদনএক্সক্লুসিভভারতবিশ্বজমিনবাংলারজমিনদেশ বিদেশশিক্ষাঙ্গনসাক্ষাতকাররকমারিপ্রবাসীদের কথামত-মতান্তরফেসবুক ডায়েরিবই থেকে নেয়া তথ্য প্রযুক্তি শরীর ও মন চলতে ফিরতে ষোলো আনা মন ভালো করা খবরকলকাতা কথকতাখোশ আমদেদ মাহে রমজানস্বাধীনতার সুবর্ণ জয়ন্তীসেরা চিঠিইতিহাস থেকে
ঢাকা, ২০ জানুয়ারি ২০২২, বৃহস্পতিবার , ৬ মাঘ ১৪২৮ বঙ্গাব্দ, ১৬ জমাদিউস সানি ১৪৪৩ হিঃ

বাগেরহাটের পৌর মেয়র হাবিবের বিরুদ্ধে দুদকের দু’টি মামলা, আসামি ১৭

বাংলারজমিন

স্টাফ রিপোর্টার, খুলনা থেকে
২৭ নভেম্বর ২০২১, শনিবার

আওয়ামী লীগ নেতা বাগেরহাট পৌরসভার মেয়র খান হাবিবুর রহমানসহ ১৭ জনের বিরুদ্ধে প্রায় আড়াই কোটি টাকা আত্মসাৎ করার দায়ে দুর্নীতি দমন কমিশন সম্মিলিত জেলা কার্যালয়ে পৃথক দু’টি মামলা দায়ের হয়েছে। গত বৃহস্পতিবার বিকালে দায়ের হওয়া মামলার কথা নিশ্চিত করেন দুদকের উপ-পরিচালক নাজমুল হাসান। লোক নিয়োগ এবং আবাহনী ক্রীড়া কমপ্লেক্স ও ডায়াবেটিস হাসপাতাল নির্মাণ না করে এই পরিমাণ টাকা আত্মসাৎ করেছেন বলে মামলা দু’টিতে উল্লেখ করা হয়েছে।
দুদকের সহকারী পরিচালক তরুণ কান্তি ঘোষ বাদী হয়ে দায়ের করা প্রথম মামলার এজাহারে বলা হয়েছে, কোনরূপ নিয়োগ বিজ্ঞপ্তি না দিয়ে এবং স্থানীয় সরকার মন্ত্রণালয়ের নিয়োগবিধি না মেনে পাম্প অপোরেট হিসাবে দিপু দাসসহ মোট ১৭ জনকে নিয়োগ দেয়া হয়। ২০১৭ সালের ৩রা মার্চ থেকে ২০২০ সালের ২৫শে জুলাই পর্যন্ত মোট এক কোটি ২৬ লাখ টাকা আত্মসাৎ করা হয়। এই মামলায় ১নং আসামি হিসেবে বাগেরহাট পৌর মেয়র খান হাবিবুর রহমানসহ মোট ১৭ জনের নামে মামলা করা হয়। একই বাদীর দায়ের করা অপর মামলার এজাহারে বলা হয়েছে, বাগেরহাট ডায়াবেটিকস হাসপাতাল এবং আবাহনী ক্রীড়া কমপ্লেক্স নির্মাণ বাবদ দুই কোটি টাকা বরাদ্দ দেয়া হয়। পৌর মেয়র এই নির্মাণ কাজ না করেই দুই কোটি টাকা হতে এক কোটি টাকা উঠিয়ে নিয়ে আত্মসাৎ করেন। এতে আসামি করা হয়েছে বাগেরহাট পৌর মেয়র খান হাবিবুর রহমান, সাবেক সচিব বর্তমানে মাগুরা পৌরসভার সচিব মো. রেজাউল করিমকে।

অবশ্যই দিতে হবে *
অবশ্যই দিতে হবে *
অন্যান্য খবর